modric

ওয়েবডেস্ক: চলতি বছরের বিশ্বকাপে ক্রোয়েশিয়াকে চ্যাম্পিয়ন না করতে পারলেও বিশ্বকাপের সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছিলেন লুকা মদরিচ। পেয়েছিলেন গোল্ডেন বল। দেশ এবং ক্লাব জার্সিতে দুর্দান্ত পারফরমেন্সের জেরে রোনাল্ডো, মেসিদের টপকে উয়েফার বর্ষসেরা খেলোয়াড় হয়েছেন এবং ফিফার দ্য বেস্ট সম্মানও পেয়েছেন। তবে এখনও একটি পুরস্কার বাকি। অর্থাৎ ব্যালন ডি’ওর। ১৯৫৬ থেকে যা দেওয়া হচ্ছে। তবে গত এক দশক এই লড়াই সীমাবদ্ধ রোনাল্ডো এবং মেসির মধ্যে। দু’জনেই পাঁচবার করে এই সম্মান পেয়েছেন। তবে চলতি বছর এই লড়াইয়ে বাকিদের থেকে অনেকটা এগিয়ে মদরিচ।

যদি এই পুরস্কার পান তাহলে তিনটি কীর্তি গড়বেন তিনিঃ

১। যদি এই সম্মান পান তাহলে প্রথম ক্রোয়েশিয়ান হিসাবে এই সম্মান পাবেন তিনি।

এখনও পর্যন্ত কোনো ক্রোয়েশিয়ান এই সম্মান পাননি। তবে ১৯৯৮-৯৯ মরশুমে এই সম্মান জেতার কাছাকাছি এসেছিলেন ক্রোয়েশিয়ার কিংবদন্তি ফুটবলার দাভোর সুকের। অবশ্য দ্বিতীয় স্থানে শেষ করেন তিনি। বিশ্বকাপে তৃতীয় হয় ক্রোয়েশিয়া।

২। প্রথম সেন্ট্রাল মিডফিল্ডার হিসাবে এই সম্মান জিততে পারেন মদরিচ

এখনও পর্যন্ত কোনো সেন্ট্রাল মিডফিল্ডার এই সম্মান জিততে পারেননি। রেয়াল মাদ্রিদ এবং ক্রোয়েশিয়ার হয়ে এই পজেশনেই খেলেন মদরিচ। চলতি সময়ে জাভি, স্কোলসের মতো খেলোয়াড়রা দাপিয়ে খেললেও এই সম্মান পাননি। জাভি কাছাকাছি এলেও দু’বারই তৃতীয় স্থানে শেষ করেন।

৩। প্রথম খেলোয়াড় হিসাবে এই সম্মান জিতবেন যিনি টটেনহ্যামে খেলেছেন

২০০৮-১২ মরশুম ইংল্যান্ডের টটেনহ্যাম হটস্পারের হয়ে খেলেছিলেন তিনি। তার পর রেয়ালে যোগ দেন। তবে টটেনহ্যামই তাঁর প্রথম মেজর ক্লাব। এখনও পর্যন্তও টটেনহ্যামে খেলা কোনো ফুটবলারই এই সম্মান পাননি।

৩ ডিসেম্বর এই সম্মান দেওয়া হবে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here