কলকাতা: মোহনবাগানের চলমান গোষ্ঠী-রাজনীতিতে নাটকীয় পট পরিবর্তন। এক বছর আগে দেওয়া সভাপতি পদ থেকে পদত্যাগের চিঠি ফিরিয়ে নিলেন টুটু বসু।

মূলত অঞ্জন মিত্রকে চাপে ফেলে ছেলে সৃঞ্জয় বসু ও তৎকালীন অর্থসচিবকে আরও গুরুত্বপূর্ণ করে তোলার লক্ষ্যে গত বছরের ১৩ জুন মোহনবাগানের সভাপতি পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছিলেন টুটু বসু। কারণ দেখিয়েছিলেন শারীরিক অসুস্থতার। তারপর গঙ্গা দিয়ে বহু জল গড়িয়ে গেছে। ক্লাবে এখন নিজের ক্ষমতা কায়েম করেছেন সচিব অঞ্জন মিত্র। অর্থসচিব দেবাশিস দত্তর পদত্যাগ গ্রহণ করেছেন। কিন্তু টুটু-সৃঞ্জয়ের পদত্যাগ গ্রহণ করেননি। মোহনবাগান ফুটবল ইন্ডিয়া লিমিটেড সংস্থার চরিত্র পাবলিক লিমিটেড করার ব্যাপারেও চাপে ফেলে দিয়েছেন টুটুদের। অন্যদিকে ক্লাবের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় উঠে এসেছেন মুখ্যমন্ত্রীর ভাই বাবুন ব্যানার্জি।

এই অবস্থায় আগামী ৭ জুন মোহনবাগানের সংস্থার বোর্ড মিটিং। যাতে উপস্থিত থাকবেন অঞ্জন, তাঁর মেয়ে সোহিনী, টুটু, সৃঞ্জয় ও দেবাশিস। সেখান থেকেও বসু পরিবারকে সরিয়ে দেওয়ার নকশা রেডি করে ফেলেছিলেন অঞ্জন। কারণ তাঁরা তিনজনই বোর্ড থেকে পদত্যাগপত্রের চিঠি দিয়ে রেখেছেন।

তার ঠিক আগেই এদিন নিজের এক বছর আগের পদত্যাগপত্র ফিরিয়ে নিলেন টুটু। কেন এই সিদ্ধান্ত নিলেন তিনি? কীভাবে, কোন ফর্মুলায় বোঝাপড়া হল টুটু-অঞ্জনের? সেটা সময়ই বলবে। তবে দেখার নিজে প্রেসিডেন্ট পদে ফিরে এসে দেবাশিস দত্তকে ক্লাবে পুনর্বাসন দিতে পারেন কিনা টুটু বসু। কারণ অনেকেই মনে করছেন ২৩ জুন ক্লাবের বার্ষিক সাধারণ সভার সভাপতি হিসেবে হাজির থেকে পরিস্থিতিকে নিজের দিকে নিয়ে আসার শেষ চেষ্টা চালানোর জন্যই ফিরলেন টুটু।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here