mohanbagan elections
নিজস্ব চিত্র

কলকাতা: প্রত্যাশা মতোই মোহনবাগান নির্বাচনে সচিব পদে লড়াই হতে চলেছে টুটু বসু ও অঞ্জন মিত্রর। মঙ্গলবার, মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিনে দুই গোষ্ঠীই ২২ জনের প্যানেলে মনোনয়ন জমা দেয়। টুটু হাজির থাকলেও অসুস্থতার জন্য নিজে হাজির থাকতে পারেননি অঞ্জন মিত্র।

টুটু গোষ্ঠী তাদের প্যানেলের ২২ জনের নাম সংবাদমাধ্যমকে জানিয়ে দিয়েছে। যুগ্ম সচিব পদে লড়ছেন সৃঞ্জয় বসু, অর্থসচিব পদে দেবাশিস দত্ত, ফুটবল সচিব পদে বাবুন ব্যানার্জি, কোষাধ্যক্ষ পদে সত্যজিৎ চ্যাটার্জি প্রমুখ। কিন্তু অঞ্জন গোষ্ঠী এ দিন তাদের প্যানেল জানায়নি। তাদের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে নির্বাচনের দায়িত্বে থাকা তিন প্রাক্তন বিচারপতির কমিটি প্যানেল জানাবেন সময়মতো। কিন্তু আসল ঘটনা হল অঞ্জন গোষ্ঠীর প্যানেল নিয়ে সোমবার গভীর রাতে ব্যাপক ডামাডোল হয়। ঠিক ছিল ফুটবল সচিব পদে লড়বেন অঞ্জনের জামাই তথা প্রাক্তন ফুটবলার কল্যাণ চৌবে। কিন্তু প্রতিপক্ষ বাবুন ব্যানার্জির সঙ্গে লড়তে শেষ মুহূর্তে অস্বীকার করেন কল্যাণ। ফলে নতুন করে ঠিক হয় প্যানেল। বস্তুত মঙ্গলবার সকালে অঞ্জন গোষ্ঠী নতুন করে মনোনয়নপত্র তুলে জমা দেয়। জানা গিয়েছে কাশীনাথ দে অর্থসচিব, মদন দত্ত কোষাধ্যক্ষ, সোহিনী চৌবে ইয়ুথ ডেভেলপমেন্ট সচিব পদে লড়ছেন।

কিন্তু বাগান নির্বাচনে চমক ছিল অন্যত্র। এ দিন দুপুরে পাঁচ সঙ্গী-সহ মনোনয়ন জমা দেন সাংসদ কুনাল ঘোষ। তিনি বলেন, তাঁর ২২ জনের প্যানেলের বাকিরা না কি টুটু ও অঞ্জন গোষ্ঠীর ৪৪ জনের মধ্যেই ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছেন। সূত্রের খবর কুনালবাবু নিজে যুগ্ম সচিব পদে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন।

তবে ক্লাবের আনাচেকানাচে খবর অঞ্জন গোষ্ঠীর যুগ্ম সচিব পদের প্রার্থী শেষ পর্যন্ত মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নেবেন। সে ক্ষেত্রে যুগ্ম সচিব পদে সৃঞ্জয় বসুর প্রতিদ্বন্দ্বী হবেন একমাত্র কুনাল ঘোষ। তবে এটা এখনও সুধুই সম্ভাবনা।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন