খবর অনলাইন: বৃহস্পতিবার রাত থেকে শুক্রবার সকাল পর্যন্ত হওয়া ইউরোর গ্রুপ স্টেজ আর কোপা আমেরিকার কোয়ার্টার ফাইনালের খবর দেওয়া হল।

ইউরো: পুরনো রোগ ফিরল জার্মানির

বড়ো টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচ জিতে দ্বিতীয় ম্যাচেই ছন্দ হারায় জার্মানি, এটা এখন প্রমাণিত সত্য। বৃহস্পতিবার তাই ঘটল প্যারিসের স্তাদ দ্য ফ্রান্সে। এ দিন ম্যাচের শুরু থেকে ছন্নছাড়া দেখিয়েছে জোয়াকিম লো’র দলকে। ওজিল, মুলার, খেদিরা যে ভাবে একটার পর একটা মিস পাস করে গেছেন তা দেখে মনে হয় গত বছর নভেম্বরে এই স্টেডিয়ামেই ফ্রান্সের বিরুদ্ধে ফ্রেন্ডলির সময় প্যারিসে জঙ্গি হামলার সেই ভয়াবহ স্মৃতি থেকে এখনও বেরিয়ে আসতে পারেননি জার্মানরা।

গোলশূন্য ভাবে শেষ হলেও, এই ম্যাচ কিন্তু পোল্যান্ডের পক্ষেই ছিল। পোল্যান্ডের মিলিক  অবিশ্বাস্য দু’টো মিস না করলে অন্তত দু’গোলে হেরে যেতে পারত জার্মানি। জার্মানির স্ট্রাটেজি কপি করে পোল্যান্ড শুধু যে প্রচণ্ড গতিতে আক্রমণে উঠে আসছিল তাই শুধু হয়, অত্যন্ত দক্ষতার সাথে ডিফেন্সও সামলেছে।

অন্য দিকে, ইংল্যান্ড আর ওয়েলসের মধ্যে ব্রিটেন-ডার্বি জিতে নিল ইংল্যান্ড। তবে ম্যাচের প্রথমার্ধে কখনওই মনে হয়নি ইংল্যান্ড জিততে পারে। উলটে ৪২ মিনিটে ওয়েলসের তারকা গ্যারেথ বেলের গোলের পর ইংল্যান্ডের হেরে যাওয়ার সম্ভাবনাই বেশি দেখাচ্ছিল।  দ্বিতীয়ার্ধে জেমি ভার্ডি আর ড্যানিয়েল স্টারিজ নামার পর খেলার স্টাইল কিছুটা পালটাল ইংল্যান্ডের। আক্রমণের ঝাঁঝ বাড়তে লাগল। ৫৬ মিনিটে ভার্ডির দৌলতে ইংল্যান্ড সমতা ফেরালেও অনেকের মতে গোলটা অফ-সাইড ছিল। অন্তিম লগ্নে ইংল্যান্ডের হয়ে জয়সূচক গোলটি করেন স্টারিজ। ম্যাচ জিতলেও বিশেষজ্ঞদের মতে বেশ কিছু আতঙ্কের জায়গা রয়ে গেছে ইংল্যান্ডের, যা দ্রুত ঠিক না করলে পরে ভোগান্তি আছে। ব্রিটিশ কোচ রয় হজসনের জন্য প্রাপ্তির চেয়ে চিন্তা বেশি থাকল এই ম্যাচ থেকে।

দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে ইউরোয় প্রথম জয় পেল নর্দার্ন আয়ার্ল্যান্ড। বৃহস্পতিবার রাতে ইউক্রেনকে ২-০ গোলে হারিয়ে চমক দিল তারা। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই গোল করেন ম্যাকআউলি। দ্বিতীয়ার্ধের শেষে স্টপেজ টাইমে দেশের হয়ে দ্বিতীয় গোলটি করেন নিয়াল ম্যাকগিন।

আজ ইউরোয় মুখোমুখি: ইতালি-সুইডেন (সন্ধে সাড়ে ৬টা); চেক রিপাবলিক-ক্রোয়েশিয়া (রাত সাড়ে ৯টা); স্পেন-তুরস্ক (রাত সাড়ে ১২টা)

কোপা: সেমিফাইনালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র

একুয়াদোরকে ২-১ গোলে হারিয়ে কোপা আমেরিকার সেমিফাইনালে চলে গেল জার্মান কিংবদন্তি য়ুরগেন ক্লিন্সমানের দল। ম্যাচের ২২ মিনিটে প্রথম গোল করে যুক্তরাষ্ট্রকে এগিয়ে দেন ডেম্পসে। ম্যাচের ৫১ মিনিটে রেড কার্ড দেখে মাঠ ছেড়ে বেরিয়ে যান একুয়াদোরের আন্তোনিও বালেন্সিয়া আর যুক্তরাষ্ট্রের জার্মেন জোন্স। তবে দশ জনে হয়ে গেলেও আক্রমণের ধার কমাননি মার্কিনরা। ৬৫ মিনিটে দু’নম্বর গোলটি করেন জারদেস। ৭৪ মিনিটে একুয়াদোরের হয়ে আরোয়ো ব্যবধান কমিয়ে একটা ক্ষীণ আশা জাগালেও আর কোনও গোল হয়নি ম্যাচে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here