ভারতের সব থেকে বেশি অলিম্পিক পদক আনা ইভেন্ট শুটিং-এ আবার ব্যর্থতার কাহিনিই লেখা থাকল। ৫০ মিটার পিস্তল বিভাগের যোগ্যতাঅর্জনকারী পর্বে পঞ্চম সিরিজ পর্যন্ত ফাইনালে ওঠার দাবিদার ছিলেন জিতু রাই। কিন্তু শেষ সিরিজে চাপে পড়ে যান তিনি। পঞ্চম সিরিজ পর্যন্ত তাঁর র‍্যাঙ্ক ছিল পাঁচ। ষষ্ট সিরিজে ১২ নম্বরে নেমে গিয়ে ফাইনালে উঠতে ব্যর্থ হন জিতু। ওই একই বিভাগে বিভাগে ভারতের আর এক প্রতিযোগী প্রকাশ নাঞ্জাপ্পা ২৫ র‍্যাঙ্ক নিয়ে যোগ্যতাঅর্জনকারী পর্ব শেষ করেন। বুধবারের পর শুটিং-এ ভারতের পদকের আশা পড়ে রইল গগন নারাং, চয়ন সিংহ, মাইরাজ খান আর গুরপ্রীত সিংহের ওপরে।

মহিলা হকি দল এ দিন আবার ব্যর্থ হল। দীর্ঘ ৩৬ বছর পর অলিম্পিকের আসরে নামা মহিলা হকি দল যে অস্ট্রেলিয়ার কাছে হারবে সেটা এক কথায় জানাই ছিল। কিন্তু অস্ট্রেলিয়া যে ভাবে ভারতকে নিয়ে ছিনিমিনি খেলল সেটা অপ্রত্যাশিত। ৬ গোলের মালা পরাল তারা ভারতকে। জবাবে ভারত মাত্র একটি গোলই করতে পেরেছে। বুধবার, ভারোত্তোলনের ৭৭ কেজি বিভাগের ফাইনালের যোগ্যতা অর্জন করতে ব্যর্থ হন ভারতের সতীশ শিবলিঙ্গম।

এ সবের মধ্যেই এক মাত্র তীরন্দাজ আর বক্সিং ভারতের হয়ে খুশির খবর এনেছে। দীপিকা কুমারী ও বম্বায়ালা দেবী, দু’ জনেই প্রি-কোয়ার্টারে উঠেছেন। প্রথমে অস্ট্রিয়ার প্রতিদ্বন্দ্বীকে ৬-২ সেট পয়েন্টে হারিয়ে রাউন্ড অফ ৩২-এ ওঠেন বম্বায়ালা দেবী। এর ঘণ্টা খানেকের মধ্যেই চিনা তাইপেইয়ের প্রতিদ্বন্দ্বীকে ৬-২ সেট পয়েন্টে হারিয়ে প্রি-কোয়ার্টারে ওঠেন বম্বায়ালা। দীপিকা রাউন্ড অফ ৬৪-এ হারান জর্জিয়ার ক্রিস্টিন এসেবুয়াকে, রাউন্ড অফ ৩২-তে হারান ইতালির গুয়েনদালিনা সারতোরিকে।

বক্সিংএ মনোজ কুমার ‘রাউন্ড অফ থার্টিটু’-তে লিথুয়ানিয়ার ইভালদাস পেত্রুআস্কাসকে হারিয়ে প্রি-কোয়ার্টারে উঠেছেন

 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here