সানি চক্রবর্তী:

দ্রুতগতিতে এগিয়ে এখন বিজনেজ এন্ডে পৌঁছে গিয়েছে আইপিএল। প্লেঅফে স্থান পাকা করার লড়াইয়ের তীব্রতাও বেড়ে গিয়েছে। জয়ের রথে চেপে দুরন্ত গতিতে ছুটতে থাকা নাইট শিবিরের চাকা গত ম্যাচেই বসে গিয়েছিল উপ্পলে। সানরাইজার্স হায়দরাবাদ অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নারের একার বিক্রমেই বড়োসড়ো হারের সামনে পড়তে হয়েছিল। আইপিএলের ধুমধাড়াক্কা ক্রিকেটের বাজারে দু’দিন আগের ম্যাচও ইতিহাস হয়ে যায়। থেকে যায় শুধু লিগ টেবিলে ২ পয়েন্টের হিসেবনিকেশ আর জেতা বা হারার রেশ।

তাই হারের রেশ নিয়ে ক্রিকেটের নন্দনকাননে ঘুরে দাঁড়ানোর লড়াই কেকেআরের। এ বার সামনে মহেন্দ্র সিং ধোনির রাইজিং পুনে সুপারজায়ান্ট। তবে বুধবারের ম্যাচটা বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ নাইটদের কাছে। সুপারজায়ান্টকে হারাতে পারলেই প্লেঅফে জায়গা পাকা হয়ে যাবে তাদের।

স্টিভ স্মিথ, বেন স্টোকসরা থাকলেও ইডেন যে আজ ভরবে ‘মাহি’-র টানে, সেটা টিকিটের হাহাকারে বেশ পরিষ্কার। পুনের সঙ্গে কলকাতার যোগটা কিন্তু পুরোনো। কেকেআর থেকে সরে গিয়ে ২০১১ সালে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় তত্কালীন পুনের ফ্র্যাঞ্চাইজি দলের হয়ে নেমেছিলেন ইডেনে। সে বারে আবেগে দু’ভাগ হয়েছিল ইডেন। এ বারে যদিও প্রেক্ষাপট একেবারে আলাদা। দিন কয়েক আগেই ইডেনের দর্শকদের দু’ভাগ করে দিয়েছিল বিরাট কোহলির উপস্থিতি। এ বার পালা ধোনির!

এমনিতেই ফুরফুরে মেজাজে মঙ্গলবার সন্ধেয় শহরে পৌঁছেছে পুনে দল। টানা দুই ম্যাচে জয়, বেন স্টোকসের অতিমানবীয় ইনিংস এবং সর্বোপরি জয়ের মোমেন্টামের সন্ধান। পুনে অধিনায়ক স্মিথ তো আগের ম্যাচের পরে বলেই রেখেছেন, “সঠিক সময়ে এসে ছন্দ পেয়ে দিয়েছি আমরা।” প্রতিযোগিতার আর চার ম্যাচ বাকি, এমন সময়ে অধিনায়ককে আর কীই বা বেশি খুশি করতে পারে।

নাইট শিবিরের অধিনায়ক গম্ভীর অবশ্য এক দিনের জন্য দিল্লি গিয়েছিলেন। মেয়ে আজিনের জন্মদিনে তার মুখে হাসি দেখাটা মিস করতে চাননি গোতি। মাঝে দলের সঙ্গে যোগ দিয়ে খুশির খবরও পেয়ে গিয়েছেন। মঙ্গলবার দলের ঐচ্ছিক অনুশীলনে ব্যাট হাতে নেমে পড়েছিলেন ক্রিস লিন। বাঁ কাঁধের চোটে টানা ৮ ম্যাচে তাঁর সার্ভিস পায়নি দল। তবে তার রিকভারি যে বেশ দ্রুত হয়েছে তা সত্যিই আশা ছড়াতে পারে কেকেআর শিবিরে। হয়তো পুনে ম্যাচে তাঁকে খেলানোর ঝুঁকি নেওয়া হবে না, কিন্তু কিছু দিনের মধ্যেই গম্ভীরের সঙ্গে যে তিনি ফের ওপেনিংয়ে নামছেন, তা পরিস্কার জানান দিয়ে গেল নেটে তার খুনে ব্যাটিং। বোলিং কোচ লক্ষ্মীপতি বালাজিকে কার্যত বলে বলে বাউন্ডারিতে ফেললেন একাধিকবার।

সুপারজায়ান্ট শিবিরের বিরুদ্ধে আগের তিন সাক্ষাতেই জিতেছে কেকেআর। এ বার তাদের সামনে সুযোগ থাকছে ধোনিদের হারানোর ধারা বজায় রাখার ও লিগটেবিলের শীর্ষস্থানটা পুনরুদ্ধার করার। এ দিকে, কেকেআরের হয়ে মাত্র একটি ম্যাচে খেলা শাকিব আল হাসান এই ম্যাচের পরে উড়ে যাচ্ছেন জাতীয় শিবিরে। খেলার সে ভাবে সুযোগ না পেলেও কোনো রকম অভিযোগ-অনুযোগের রাস্তায় হাঁটতে নারাজ শাকিব। বরং নাইট শিবিরের স্পিরিট ধরেই বলছেন, তৃতীয় বার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার মতো সমস্ত মশলাই আমাদের ভাণ্ডারে রয়েছে।

কলকাতা নাইট রাইডার্স বনাম রাইজিং পুনে সুপারজায়ান্ট

ইডেন গার্ডেন্স, রাত ৮ টা থেকে।

 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here