জুরিখ: আবেদনেরই অপেক্ষা ছিল যেন। চার ম্যাচের সাসপেনশন এক ম্যাচেই থেমে গেল আর্জেন্তিনার কিংবদন্তি ফুটবলারের। চিলির বিরুদ্ধে বিশ্বকাপ ফুটবলের যোগ্যতা নির্ণয় পর্বের ম্যাচ শেষ হওয়ার পর ম্যাচের চতুর্থ রেফারিকে গালাগালি দেন লিওনেল মেসি। সেই অপরাধে ২৮ মার্চ ফিফার শৃঙ্খলা রক্ষা কমিটি ৪টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ সাসপেন্ড করে তাঁকে। সঙ্গে জরিমানা ধার্য হয় ১০ হাজার সুইস ফ্রাঁ। শুক্রবার সেই শাস্তি তুলে নিল ফিফার অ্যাপিল কমিটি।

মেসির হয়ে ফিফার কাছে আবেদন জানিয়েছিল আর্জেন্তিনিয় ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন। ইতিমধ্যে বলিভিয়ার বিরুদ্ধে দেশের হয়ে মাঠে নামতে পারেননি বার্সেলোনার এই মহাতারকা। সেই ম্যাচে বলিভিয়ার কাছে ২-০ গোলে হারে আর্জেন্তিনা।

তবে, আর নয়। ফিফা এদিন তাঁদের সিদ্ধান্ত জানিয়ে বলেছে, মেসির আচরণ মোটেও সমর্থনযোগ্য নয় ঠিকই, কিন্তু তাঁর সেদিনের অপরাধ প্রমাণ করার মতো যথেষ্ট তথ্য পাওয়া যাচ্ছে না। তাই তাঁর সাসপেনশন তুলে নেওয়া হচ্ছে। জরিমানার টাকাটাও দিতে হবে না। যদিও একই সঙ্গে ফিফা জানিয়ে দিয়েছে, ম্যাচ অফিশিয়ালদের সর্বদা সম্মান করা উচিৎ।

বিশ্বকাপের যোগ্যতা নির্ণয় পর্বে আর্জেন্তিনার পরবর্তী খেলা উরুগুয়ের বিরুদ্ধে। ৩১ আগস্ট।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here