খবর অনলাইন:ভারতের ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের (বিসিসিআই) কাঠামোগত সংস্কার নিয়ে বিচারপতি লোঢার নেতৃত্বাধীন প্যানেল যে সুপারিশ করেছেন, তার সঙ্গে রাজ্য ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনগুলোকে একমত হতে হবে বলে সোমবার স্পষ্ট জানিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট।

প্রধান বিচারপতি টি এস ঠাকুর এবং বিচারপতি এফ আম আই কালিফুল্লাকে নিয়ে গঠিত ডিভিশন বেঞ্চ বলেছে, “এক বার বিসিসিআইয়ের সংস্কার হয়ে গেলে রাজ্য ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনগুলোকে সংস্কারের পথে যেতে হবে যদি তারা বিসিসিআইয়ের সঙ্গে থাকতে চায়। ম্যাচ-ফিক্সিং ও স্পট-ফিক্সিংয়ের অভিযোগ খতিয়ে দেখতে কমিটি গড়ার ব্যাপারটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা, কোনও তুচ্ছ ঘটনা নয়।”

ডিভিশন বেঞ্চ বলেছে, বিসিসিআইয়ের স্বার্থের সঙ্গে যাঁরা জড়িয়ে আছেন তাঁদের সঙ্গে কথা বলেই বিশেষজ্ঞদের নিয়ে গঠিত এই কমিটি সর্ব ভারতীয় ক্রিকেট সংস্থার সংস্কার নিয়ে সুপারিশ করেছে, এবং তাঁদের অনুসন্ধানকে ‘শুধুমাত্র সুপারিশ’ বলা যায় না। “আমরা যদি বলি এগুলি রূপায়িত করতে হবে তা হলে সেগুলো আর সুপারিশ থাকে না। এগুলিকে সুপারিশ বলা হচ্ছিল, কারণ কমিটির কিছু কিছু অনুসন্ধান বিসিসিআই নিজেরাই আলোচনা চলাকালীন রূপায়িত করেছিল এবং কিছু কিছু করেনি।”

লোঢা প্যানেলের সুপারিশে আপত্তি করে হরিয়ানা ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন সুপ্রিম কোর্টে যায়। এ বিষয়ে সোমবার শুনানির সময় ডিভিশন বেঞ্চ বলে, “আমরা বিষয়টা শুনছি কারণ যে যে সুপারিশ রূপায়ণ করা হয়নি, সেগুলো করা যায় কিনা সেটা আমরা দেখছি।”

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here