মিলখা সিং
ছবি টুইটার থেকে নেওয়া।

খবরঅনলাইন ডেস্ক: অনেক চেষ্টা করেও বাঁচানো গেল না। চলে গেলেন ভারতের প্রবাদপ্রতিম দৌড়বীর মিলখা সিং। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৯১ বছর।

শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টা নাগাদ মিলখা সিংয়ের মৃত্যু হয় বলে তাঁর পরিবারের তরফে জানানো হয়েছে।

কোভিড ১৯ জনিত জটিলতার কারণে গত ২৪ মে তাঁকে মোহালির এক বেসরকারি হাসপাতালে ভরতি করা হয়। তিনি আইসিইউ-তে ছিলেন।

১৯ মে ৯১ বছরের কিংবদন্তি অ্যাথলিট কোভিড পজিটিভ হন। তবে তাঁর তেমন কোনো উপসর্গ ছিল না বলে তাঁকে বাড়িতেই আইসোলেশনে রাখা হয়। কয়েক দিন পরেই তাঁকে ‘কোভিড নিউমোনিয়া’র কারণে মোহালির হাসপাতালে ভরতি করা হয়।

মিলখা সিংযের পরিবার এক বিবৃতি প্রকাশ করে বলে, “গভীর দুঃখের সঙ্গে আমরা আপনাদের জানাতে চাই যে মিলখা সিং জি ২০২১-এর ১৮ জুন রাত সাড়ে ১১টায় প্রয়াত হয়েছেন।”

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, “তিনি কঠিন লড়াই করলেন কিন্তু ঈশ্বরের চাওয়া ছিল অন্য। প্রকৃত ভালোবাসা ও সাহচর্যের জন্যই বোধহয় আমাদের মা নির্মল জি আর বাবা পাঁচ দিনের মধ্যে প্রয়াত হলেন।”

প্রধানমন্ত্রীর শোক

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী মিলখা সিংয়ের প্রয়াণে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। তিনি টুইট করে বলেছেন, “শ্রী মিলখা সিং জির প্রয়াণের সঙ্গে সঙ্গে আমরা বিরাট মাপের এক ক্রীড়াবিদকে হারালাম, যিনি জাতির কল্পনাশক্তি দখল করে নিয়েছিলেন এবং অগণিত ভারতবাসীর হৃদয়ে বিশেষ জায়গা করে নিয়েছিলেন। তাঁর প্রেরণাদায়ক ব্যক্তিত্ব লক্ষ লক্ষ মানুষের কাছে তাঁকে প্রিয় করে তুলেছিল। তাঁর প্রয়াণে ব্যথিত।”

আরও একটি টুইটে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেছেন, “কয়েক দিন আগেই শ্রী মিলখা সিং জির সঙ্গে কথা বলেছিলাম। তখন তো জানতামই না, এটাই আমাদের শেষ কথা। তাঁর জীবনের যে যাত্রাপথ তা থেকে অনেক উদীয়মান অ্যাথলিট শক্তি অর্জন করবে। তাঁর পরিবার এবং সারা পৃথিবী জুড়ে তাঁর যে ভক্তকুল রয়েছেন তাঁদের সকলের উদ্দেশে আমার সমবেদনা রইল।”

‘ফ্লাইং শিখ’

মিলখা সিংকে বলা হত ‘ফ্লাইং শিখ’। এশিয়ান গেমসে ট্র্যাক অ্যান্ড ফিল্ডে চারটি সোনাজয়ী মিলখা ১৯৫৮-য় কার্ডিফে অনুষ্ঠিত কমনয়েলথ গেমসেও সোনা পেয়েছিলান।

১৯৬০-এর রোম অলিম্পিক্সে তিনি অল্পের জন্য পদক থেকে বঞ্চিত হন। ৪০০ মিটার দৌড়ের ফাইনালে মিলখা চতুর্থ হয়েছিলেন। মিলখা দৌড় শেষ করেছিলেন ৪৫.৭৩ সেকেন্ডে। প্রায় ৪০ বছর ধরে এটা একটা জাতীয় রেকর্ড ছিল। ১৯৯৮-তে পরমজিৎ সিং এই রেকর্ড ভাঙেন।

১৯৫৬ এবং ১৯৬৪-র অলিম্পিক গেমসেও মিলখা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন। ১৯৫৯-এ তাঁকে ‘পদ্মশ্রী’ সম্মানে সম্মানিত করা হয়।

আরও পড়ুন: প্রয়াত অভিনেত্রী স্বাতীলেখা সেনগুপ্ত   

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন