মহামেডান-৬(ডিকা ৪, মননদীপ, প্রহ্লাদ)   রেলওয়ে এফসি-০

কলকাতা: নিয়মরক্ষার ম্যাচ ছিল দু পক্ষেরই। লিগ জয়ের দৌড় থেকে দূরে চলে গেছে মহামেডান আর অবনমন নিশ্চিত রেলওয়ে এফসি-র। সেই ম্যাচে প্রথম দলের পাঐঁচ জনকে বিশ্রাম দিয়েছিলেন সাদাকালো কোচ বিশ্বজিত ভট্টাচার্য। যদিও তাঁর সামনে বড়ো ম্যাচ। লিগ জয়ের স্বপ্ন থাক বা না থাক। ডার্বি সব সময়ই ডার্বি।

তো সেই ডার্বির আগে আত্মবিশ্বাস জোটানোর কাজটা ভালোমতোই সেরে নিলেন সাদাকালো ফুটবলাররা। প্রায় প্রতিরোধহীন রেলকে ভাসিয়ে দিলেন গোলের বন্যায়। দ্বিতীয়ার্ধে মহামেডান কিছুটা গাছাড়া ভাব না দেখালে গোলের সংখ্যা আরও বাড়তে পারত। এর মধ্যেই মাঝমাঠে কিছুটা নজর কাড়লেন সত্যম শর্মা। পরিবর্তনের মেজাজে গোলরক্ষক শঙ্কর রায়কে খেলার মাছে তুলে নিলেন বিশ্বাজিত। নামালেন হরপ্রীতকে।

মোহনবাগানের বিরুদ্ধে নিষ্প্রভ থাকলেও এদিন আবার গোলের উদ্যোগ চোখে পড়ল ডিকার খেলায়। হ্যাটট্রিক সহ ৪ গোল করলেন। প্রথমার্ধে ৩টি, দ্বিতীয়ার্ধে ১টি। প্রথম এবং শেষ গোলটি বেশ ভালো। কলকাতা লিগে ১০ গোল হয়ে গেল তাঁর। সর্বোচ্চ গোলদাতা হওয়াটা কেবল সময়ের অপেক্ষা। তবে নামজাদা বিদেশিকে তো ছোটো দলের বিরুদ্ধে গোল করার জন্য দলে নেওয়া হয় না। বাকি দুটি গোল করলেন মননদীপ ও প্রহ্লাদ রায়। প্রথমার্ধেই ৪-০ গোলে এগিয়ে গেছিল বিশ্বাজিত ভট্টাচার্যের দল।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন