সানি চক্রবর্তী:

ফেভারিট হিসেবে আইজলে পাড়ি দিয়েও হয়নি। অল্পের জন্য টানা দ্বিতীয় বারেও ফসকেছে আই লিগ। তাই যেন কটকে ফেডারেশন কাপের ফাইনালে নামার আগে একটু বেশি সতর্ক মোহনবাগান শিবির।

ট্রফির থেকে ঠোঁটের দূরত্ব মাথায় রেখেই খেলতে নামতে চাইছে সঞ্জয় সেন ব্রিগেড। গত বারের পুনরাবৃত্তিই এখন সনি-কাটসুমিদের অ্যাজেন্ডায় পয়লা নম্বরে। বেঙ্গালুরুকে হারিয়ে টানা তৃতীয় বছর ভারতসেরার ট্রফিটা ঘরে তুলতে চাইছে তারা। চলতি বছরে এই নিয়ে ষষ্ঠ বার বেঙ্গালুরু এফসি-র বিরুদ্ধে খেলতে নামবে মোহনবাগান। গত ম্যাচের মতোই হেড টু হেডে ৩-১ ব্যবধানে এগিয়ে থাকলেও এই ম্যাচটাই সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ হতে চলেছে দুই শিবিরের মধ্যে। সঞ্জয় সেন বলে দিয়েছেন, “শেষ হার্ডেলের জন্য ছেলেরা প্রস্তুত। দলে কোনো চোট-আঘাতের সমস্যা নেই। মাঠে নেমে সেরাটা মেলে ধরতে ছেলেরা তৈরি। এখন একমাত্র লক্ষ্য ট্রফিটা জেতা।” বার বার দুই দল একে অপরের বিরুদ্ধে খেলার পরে দুই পক্ষই অন্যের শক্তি-দুর্বলতা সম্পর্কে ওয়াকিবহাল বলেও মনে করেন বাগান সারথি। সে প্রসঙ্গেই তাঁর সংযোজন, “দেশের অন্যতম দুই সেরা দল বলেই বারবার বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় মুখোমুখি হচ্ছে বেঙ্গালুরু-মোহনবাগান।”

আরও পড়ুন: এক্সক্লুসিভ: মোহনের জন্য‌ হাত বাড়িয়েছে রিলায়েন্স, ইস্টের জন্য‌ আদিত্য‌ বিড়লা গ্রুপ

কটকের বরাবাটি স্টেডিয়ামে যে ম্যাচে চোটের জেরে সুনীল ছেত্রীর সার্ভিস পাবে না বেঙ্গালুরু। কার্ড সমস্যায় নেই মিডফিল্ডার ক্যামেরুন ওয়াটসন। ডিফেন্সে যদিও ফিরছেন জন জনসন। সনি-ডাফি-বলবন্ত-কাটসুমি চতুর্ভুজকে আটকাতে যাঁর উপরে ভরসা করবেন অ্যালবার্ট রোকা। অন্য দিকে বাগানের আক্রমণের কেন্দ্রবিন্দু সনি নর্ডিকে আটকানোর গুরু দায়িত্ব থাকবে সন্দেশ ঝিংগানের কাঁধে। মোহনবাগানের আক্রমণকে সমীহ করে তাদের ফেভারিট বলে মেনে নিচ্ছেন বেঙ্গালুরু স্প্যানিশ কোচ। রোকা বলেছেন, “আক্রমণ বেশ ভালো মোহনবাগানের। রক্ষণও মজবুত। ওদের যাবতীয় আক্রমণ রোখার জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে আমাদের। তবে ফেভারিট ওরাই।”

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here