পুনে: এএফসি কাপ খেলতে শ্রীলঙ্কা যাওয়ার আগে মেজাজটা ফুরফুরে রাখতে পারলেন না সঞ্জয় সেনের ছেলেরা। টানা ৪ ম্যাচ জয়ের সোনার দৌড় থেমে গেল আই লিগের পিছনের সারির দল ডিএসকে শিবাজিয়ান্সের সামনে।

টানা চার ম্যাচ জিতে কিছুটা আত্মতুষ্টই হয়েতো ছিলেন কাতসুমিরা। কাতসুমি, সোনি কিছুটা চেষ্টা করলেন কিন্তু ঝাঁঝ ছিল না। ডিফেন্স নিয়ে চিন্তাটা ধরা পড়েছিল আগের দিনই। এদিন যেন আরও বাড়ল। প্রথমার্ধে ২ গোলের সুযোগ নষ্ট করল পুনের দল। তার মধ্যে ৩৮ মিনিটে সংইয়ং দেবজিতকে একা পেয়েও  তেকাঠিতে রাখতে পারলেন না বল। দেবজিত এগিয়ে এসে গোলের মুখ ছোটো করে দিয়েছিলেন বটে, তাও গোলটা হওয়াই উচিত ছিল। নড়বড়ে খেলতে খেলতেও গোলের সুযোগ পেয়ে গিয়েছিল সবুজমেরুন। ৩৪ মিনিটে কাতসুমির কর্নারে চমৎকার মাথা ছুঁইয়েছিলেন ডিফেন্ডার এডুয়ার্দো। কিন্তু একটুর জন্য বাইরে গেল বল।

দ্বিতীয়ার্ধেও সব মিলিয়ে এগিয়ে ছিল ব্রিটিশ কোচ ডেভিড চার্লসের ছেলেরা। ৫৭ মিনিটে কর্নারে মাথা ছুঁইয়ে সংইয়ং গোলে বল ঢুকিয়েও দিয়েছিলেন। যদিও রেফারি ফাউলের জন্য তা বাতিল করে দেন। 

শেষের দিকে অবশ্য কিছুটা জ্বলে উঠেছিলেন সঞ্জয় সেনের ছেলেরা। ৭৮ মিনিটে বিক্রমজিতের ভলি বারে লাগল। তবে চমৎকার মুভ থেকে গোলকিপারের সামনে বল পেয়েও গায়ে মারলেন কাতসুমি। ম্যাচের তখন ৭৯ মিনিট। নিজে তো হতাশ হলেনই। হতাশ করলেন পুনের একঝাঁক মোহনবাগানিকেও।

সব মিলিয়ে নিষ্প্রভই দেখাল জেজে, ডাফি, বিক্রমজিতদের।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here