কলকাতা: আশা ছিল হয়তো আরও অনেক ফুটবলমোদী জড়ো হবেন। হননি। তাতে কি? নতুন কথা তো বরাবরই কম মানুষ বলেছেন। নতুন পথে তো শুরুতে বরাবরই কম মানুষ হেঁটেছেন। সত্যিটাকে চিনতে সব সময়ই মানুষের সময় বেশি লেগেছে। কিন্তু তাতে সত্যিটা মিথ্যে হয়ে যায়নি কখনওই।

এমনই এক নবীন সত্যের জন্ম শনিবার দেখল বাংলা। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দুই ক্লাবের সমর্থকরা এক হয়ে পথ হাঁটলেন যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গন থেকে। সঙ্গে থাকলেন অধ্যাপক, গবেষক, বুদ্ধিজীবীরাও। লক্ষ্য একটাই, বাংলার ফুটবলকে রক্ষা করা ও এগিয়ে নিয়ে যাওয়া।

গত এক মাসেরও বেশি সময় ধরে ভারতীয় ফুটবল আলোড়িত দুই লিগ নিয়ে। আই লিগ ও আইএসএল। মোহনবাগান ও ইস্টবেঙ্গলের সমর্থকদের একটা বড়ো অংশের মত, আইএসএল-এর প্রতি প্রচ্ছন্ন প্রশ্রয় রয়েছে ভারতীয় ফুটবল ফেডারেশনের। বেসরকারি সংস্থা আইএমজিআর চালিত ওই লিগে অন্যায় ভাবে অংশ নিতে দেওয়া হয়নি মোহন-ইস্টকে। কমিয়ে দেওয়া হয়েছে আই লিগের গুরুত্ব। এ আর কিছুই নয়, ভারতীয় ফুটবলের মানচিত্র থেকে দুই প্রধানকে ধীরে ধীরে মুছে দেওয়ার চক্রান্ত। এএফসি পরের মরশুম থেকে দেশে একটি মাত্র লিগের প্রতিশ্রুতি দিলেও সিঁদুরে মেঘ দেখছেন মোহন-ইস্ট সমর্থকরা। তাঁদের উদ্যোগে ইতিমধ্যেই ‘এক দেশ এক লিগ’-এর দাবিতে খাস কলকাতায় হয়ে গেছে দু’টি মিছিল।

এই সব প্রতিবাদের আবহেই জুন মাসে গড়ে ওঠে ‘বেঙ্গল ফুটবল লাভার্স ফোরাম’। শনিবার এই নবীন সংগঠন এক মিছিলের আয়োজন করল যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গন থেকে। ৩টে থেকে শুরু হয়ে সল্ট লেকের পথঘাট ঘুরে সাড়ে পাঁচটায় তা ফিরে এল যুবভারতীর দরজাতেই। যে ময়দান বছরে বেশ কয়েক বার চঞ্চল থাকে দুই ক্লাবের যুযুধান সমর্থকদের কণ্ঠস্বরে। মিছিলে হাঁটলেন প্রায় সাড়ে পাঁচশো ফুটবলমোদী।

ফুটবলের জন্য এই আবেগই বলে দেয় বাংলার ফুটবলকে, লালহলুদ, সবুজমেরুনকে মুছে ফেলার ক্ষমতা নেই কোনো কায়েমি স্বার্থেরই।

1 মন্তব্য

  1. Over the last 3 seaons ATK (Atletico de Kolkata) was a strong favourite among the All India and Bengal based sponsors since ATK matches used to attract great audience at the ground as well as on TV.

    However ,many of the sponsors were earlier not aware that 80% of the ATK supporters are actually hardcore supporters of East Bengal and Mohun Bagan , who would no longer support this club. Most of these ex-fans

    now terribly hate ATK because ATK refused to allow East Bengal and Mohun Bagan play ISL from Kolkata.On July-8 there was a grand protest on the streets of Kolkata which was organised by the fans of EB and MB.

    With this kind of growing hatred and anger towards ATK among the common people of Bengal , it would be interesting to see how many sponsors now show interest to support ATK.

    It seems ATK has rough times ahead because their foreign partner , Atletico Madrid , has dumped them and in spite of immense effort ,as of now ATK couldn’t find another suitable foreign alliance.
    So, along with fan bass ATK brand name is also now in crisis because the club name and jersey was designed keeping in mind Atletico Madrid . ATK should hope that the protesters don’t inform their sponsors
    about the actual status of their fan base.

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন