প্যারিস: ২০১৫ সালের ফরাসি ওপেনের কোয়ার্টার ফাইনালে হেরে গেছিলেন তিনি। যদিও তার আগে টানা পাঁচবার আর মোট ন’বার জেতা হয়ে গেছিল ফরাসি ওপেন। যাই হোক, তারপর চোট নিয়ে ভুগেছেন প্রায় দেড় বছর। কোর্টের বাইরেও ছিলেন বেশ কিছুদিন। গত বছর আসেননি ফরাসি ওপেন খেলতে। এ বছর এলেন এবং গোটা টুর্নামেন্টে মাত্র ৩৫টি গেম হারলেন।

ভবিষ্যতের টেনিস-পাঠকরা আরও জানবেন, যে বছর রাফায়েল নাদাল কোনো একটি গ্র্যান্ডস্লাম ১০ বার জেতার অভূতপূর্ব কৃতিত্ব যে বছর অর্জন করেছিলেন। সে বছর গোটা ফরাসি ওপেনে একটি সেটও হারেননি।

ফাইনালে তার চেয়ে বয়সে সামান্য বড়ো স্ট্যান ওয়ারিঙ্কাকে হারালেন ৬-২, ৬-৩, ৬-১ সেটে। সময় নিলেন ২ ঘণ্টা ৫ মিনিট। যাকে বলে, স্রেফ দাঁড়াতেই দিলেন না। আন্ডি মারেকে অমন দুর্দান্ত খেলে সেমিফাইনালে হারানোর পর নাদালের কাছে যে এমন খড়কুটোর মতো উড়ে যাবেন, তা বোধহয় নাদালের অতি বড়ো সমর্থকও ভাবেননি।

আরও কয়েকটা তথ্য দেওয়া যাক। এর আগে নাদাল শেষ গ্র্যান্ডস্লাম জিতেছিলেন এখানেই। ২০১৪ সালে। সেবারই হয়ে গেছিলেন সর্বাধিক ফরাসি ওপেন জয়ী টেনিস খেলোয়াড়। আর এবার যেটা হলেন, তা হল ১৯৬৮ সালের পর এত বয়সে কেউ ফরাসি ওপেন জেতেননি। সব নিলিয়ে ১৫টা গ্র্যান্ডস্লাম হয়ে গেল স্প্যানিশ কিংবদন্তির। আর কিংবদন্তিদের সম্পর্কে পরিসংখ্যান দিয়ে কে আর শেষ করতে পেরেছে।

এক নজরে নাদালের ফরাসি ওপেন জয়ের খতিয়ান:২০০৫, ২০০৬, ২০০৭, ২০০৮, ২০১০, ২০১১, ২০১২, ২০১৩, ২০১৪, ২০১৭।

শনিবার ৮৪ বছর পর ফরাসি ওপেন জিতেছিলেন এক মহিলা খেলোয়াড় আর রবিবার লা ডেসিমার ইতিহাস রচনা করেছিলেন এক পুরুষ। ২০১৭ সালের ফরাসি ওপেন সত্যিই টেনিস ইতিহাসে আলাদা অধ্যায় দাবি করবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন