novak djokovic winning wimbledon title

লন্ডন: বিশ্বকাপ ফুটবলের বাজারে প্রায় নিঃশব্দে উইম্বলডন চ্যাম্পিয়ন হয়ে গেলেন নোভাক জোকোভিচ। প্রায় দু’ বছরের মাথায় কোনো গ্র্যান্ড স্লাম শিরোপা জিতলেন জোকোভিচ। এবং এ বার তাঁর চার নম্বর উইম্বলডন জেতা। এর আগে জোকোভিচ উইম্বলডন জেতেন ২০১৫ সালে।

বিশ্ব ক্রমপর্যায়ে আট নম্বর স্থানে থাকা কেভিন অ্যান্ডারসনের বিরুদ্ধে জোকোভিচ প্রথম দু’টি সেট জেতেন খুব সহজেই। ৬-২, ৬-২ ফলে প্রথম দু’টি সেট জেতার পর তৃতীয় সেটে অ্যান্ডারসনের বাধার মুখে পড়েন জোকোভিচ। এই সেটটি টাইব্রেকারে গড়ায়। শেষ পর্যন্ত জোকোভিচ জেতেন ৭-৬ (৭/৩) ফলে।

এই নিয়ে জোকোভিচের ১৩টি গ্র্যান্ড স্লাম শিরোপা জেতা হল। টেনিসের ইতিহাসে গ্র্যান্ড স্লাম জয়ী পুরুষ খেলোয়াড়দের তালিকায় চার নম্বরে চলে এলেন জোকোভিচ। তালিকায় তাঁর আগে রয়েছেন রজার ফেডেরার (২০টি গ্র্যান্ড স্লাম), রাফায়েল নাদাল (১৬) এবং পিট সাম্প্রাস (১৪)।

উইম্বলডন জয়ের মধ্যেই ৩১ বছর বয়সি সার্বিয়ান জোকোভিচ গড়ে ফেললেন আরও এক ইতিহাস। ২০০১ সালের পর বিশ্ব র‍্যাঙ্কিং-এ এত নীচে থাকা কোনো টেনিস প্লেয়ার অল ইংল্যান্ড ক্লাবে চ্যাম্পিয়ন হলেন। বিশ্ব ক্রমপর্যায়ে জোকোভিচের স্থান এখন ২১ নম্বরে। এর আগে ২০০১ সালে উইম্বলডন চ্যাম্পিয়ন হন বিশ্ব ক্রমপর্যায়ে ১২৫ স্থানে থাকা ক্রোয়েশিয়ার গোরান ইভানেসেভিচ। সে বার ইভানেসেভিচ উইম্বলডনে সুযোগ পেয়েছিলেন ‘ওয়াইল্ডকার্ড’ হিসাবে।

 

 

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন