ব্রিসবেন:  লোয়ার অর্ডার ব্যাটসম্যানদের নিয়ে প্রায় আসাধ্য সাধন করে ফেলেছিলেন আসাদ সাফিক। কিন্তু জয় থেকে মাত্র ৪০ রান দূরে থেমে গেল পাকিস্তানের ইনিংস। টেস্ট ম্যাচ অস্ট্রেলিয়া জিতলেও দুর্দান্ত লড়াই করে মনস্তাত্বিক জয় হল পাকিস্তানেরই।

ব্রিসবেনে, অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টে চতুর্থ দিন দ্বিতীয় সেশন পর্যন্ত ল্যাজেগোবরে হয়েছে পাকিস্তান। অস্ট্রেলিয়ার প্রথম ইনিংসে ৪২৯ রানের জবাবে, মাত্র ১৪২-এই শেষ হয় মিসবাহদের ইনিংস। দ্বিতীয় ইনিংসে পাঁচ উইকেটে ২০২ তুলে অস্ট্রেলিয়া ডিক্লেয়ার করায় পাকিস্তানের জয়ের লক্ষ্য দাঁড়ায় ৪৯০। এই পাহাড়প্রমাণ রান তাড়া করে পাকিস্তান যে ফের এক বার পর্যুদস্ত হবে তা আন্দাজ করাই যাচ্ছিল, কিন্তু সব হিসেব ওলটপালট করে দেন সাফিক। দলের স্কোর তখন ছয় উইকেটে ২২০, অস্ট্রেলিয়ার জয় শুধু সময়ের অপেক্ষা, ঠিক এখান থেকে মহম্মদ আমিরের সঙ্গে খেলা ধরেন সাফিক।

দু’জনের মধ্যে ৯২ রানের পার্টনারশিপ তৈরি হওয়ার পর ক্রিজে আসেন ওয়াহাব রিয়াজ। ওয়াহাব যখন আউট হন, পাকিস্তান তখন পৌঁছে গিয়েছে ৩৭৮-এ। এর পর সাফিকের সঙ্গে যোগ দেন ইয়াসির শাহ। ইতিমধ্যে শতরান করে ফেলেন সাফিক। ইয়াসির আর সাফিকের জুটি ভাঙার চেষ্টায় রীতিমতো কালঘাম ছুটছে অস্ট্রেলিয়ার। সাবলীল ভাবে ব্যাট করছিলেন ইয়াসির। দু’জনে মিলে পাকিস্তানের স্কোরকে পৌঁছে দেন ৪৪৯-এ। জয় আর মাত্র ৪১ রান দূরে। এখানেই মনঃসংযোগ হারিয়ে ডেভিড ওয়ার্নারের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান সাফিক। ১৩৭-এর দুর্ধর্ষ ইনিংস খেলেন তিনি। তিনি আউট হতে অবশ্য শেষ উইকেটটি ফেলার জন্য বেশি পরিশ্রম করতে হয়নি অস্ট্রেলিয়াকে। ৪৫০ রানে শেষ হল পাকিস্তান। অস্ট্রেলিয়া জিতল ৪০ রানে। তবে অস্ট্রেলিয়া জিতলেও সিরিজে মানসিক ভাবে এগিয়ে গেল পাকিস্তান।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here