সাড়ে তিন থেকে চার দিনের মধ্যেই শেষ হয়ে যাওয়া ম্যাচটি গড়াল পঞ্চম দিনে। সৌজন্যে বৃষ্টি। বৃষ্টির তীব্রতা এতটাই ছিল যে চতুর্থ দিনে মাত্র ৯৫টি বল করা সম্ভব হয়েছে, অর্থাৎ ১৫.৫ ওভার। কিন্তু এই ক’টা বলেই ওয়েস্ট ইন্ডিজের টপ অর্ডারের ঘাড় মটকে দিয়েছেন ভারতীয় বোলাররা।

বৃষ্টির জন্যই মঙ্গলবার নির্ধারিত সময়ের এক ঘণ্টা পর খেলা শুরু হয়। দ্বিতীয় ওভারে ইশান্তের বলে বোল্ড হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান ওপেনার চন্দ্রিকা। এর পর আবার এক ঘণ্টার বৃষ্টি বিরতি। বিরতির পর অপর ওপেনার ব্রেথওয়েটের সাথে জুটি বেঁধে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে কিছুটা এগিয়ে নিয়ে যান ড্যারেন ব্রাভো। ১৩তম ওভারে আঘাত হানেন অমিত মিশ্র। রাহুলের হাতে ক্যাচ দিয়ে ২৩ রান করে ফেরেন ব্রেথওয়েট। এর পর শামির পালা। ১৪তম ওভারে কোনও রান না করে শামির বলে বোল্ড হয়ে ফিরে যান স্যামুয়েলস। দু’ ওভার পর আবার শামি। ২০ রান করে রাহুলের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন ব্রাভো। ওয়েস্ট ইন্ডিজের স্কোর তখন চার উইকেটে ৪৮।

ব্রাভোর উইকেটের সঙ্গে সঙ্গেই ফের হানা দেয় বৃষ্টি। সারা দিনে আর একটি বল পড়েনি। জেতার জন্য ওয়েস্ট ইন্ডিজের ছয় উইকেট ফেলতে হবে, এই টার্গেট নিয়ে বুধবার মাঠে নামবে ভারত। তবে আগের দু’দিনের মতো বুধবার বৃষ্টির ভ্রূকুটি কম। নির্ধারিত ৯০ ওভারের থেকে আটটি বেশি অর্থাৎ ৯৮ ওভার বল করার সুযোগ পাবে ভারত। অতএব বলাই যায়, আবহাওয়া ভালো থাকলে বুধবারই টেস্ট সিরিজে ২-০তে এগিয়ে যাবে ভারত।   

ছবি: সৌজন্যে ক্রিকিনফো

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here