Connect with us

খেলাধুলো

এক্সক্লুসিভ: মোহনের জন্য‌ হাত বাড়িয়েছে রিলায়েন্স, ইস্টের জন্য‌ আদিত্য‌ বিড়লা গ্রুপ

শৈবাল বিশ্বাস

মোটামুটি পরিষ্কার হয়ে গিয়েছে মোহনবাগান ও ইস্টবেঙ্গল এই দু’ দলকেই এ বার আইএসএলে অংশগ্রহণ করতে হবে। ইতিমধ্য‌ে দুই বড় দল এক সঙ্গে বসে স্থির করে নিজেদের অবস্থান সদস্য‌-সমর্থকদের জানিয়ে দেবে বলে ঘোষণা করেছে। যৌথ সাংবাদিক সম্মেলনের দিনক্ষণ নিয়ে এখন দু’ পক্ষের আলোচনা চলছে। তার আগে আলাদা ভাবে মোহনবাগান ও ইস্টবেঙ্গলের কর্তারা তাঁদের অবস্থান ঘোষণা করতে পারেন। তবে যৌথ সাংবাদিক সম্মেলনে আরও বিস্তারিত ভাবে সব কিছু ব্য‌াখ্য‌া করা হবে।

স্পনসরশিপ ছাড়া বড়ো অঙ্কের টাকা জোগাড় করা দুই বড় দলের পক্ষে অসম্ভব। অথচ ফ্র্য‌াঞ্চাইজি মানি ছাড়া দু’ দল যে খেলতে পারবে না তা আইএসএল কর্তৃপক্ষ স্পষ্ট ভাবে জানিয়ে দিয়েছে। আইএসএলের মোটা অঙ্কের ফ্র্য‌াঞ্চাইজি মানি কারা দেবে? জানা গিয়েছে, সেই সমস্য‌ার সমাধান করে দিয়েছে আইএসএল কতৃর্পক্ষ অর্থাৎ নীতা আম্বানিরাই। মোহনবাগান সভাপতি টুটু বোস এবং ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের অন্য‌তম কর্মকর্তা নীতু সরকারের সঙ্গে আইএসএল লিগের কথাবার্তায় স্পষ্ট প্রতিশ্রুতি দিয়ে বলা হয়েছে, ভালো স্পনসর জোগাড় করে দেওয়ার ব্য‌াপারে তারা সম্পূর্ণ সহযোগিতা করবে। স্পনসরদের সামান্য‌ শর্ত মানলে মোহনবাগান বা ইস্টবেঙ্গলের মতো ব্র্য‌ান্ডের স্পনসর জোগাড় করতে অসুবিধা হবে না।

এ পর্যন্ত কথাবার্তা যে দিকে এগোচ্ছে তাতে টাটা স্টিল মোহনবাগানকে স্পনসর করতে রাজি আছে বলে আইএসএলের মাধ্য‌মেই জানানো হয়েছে। কিন্তু মোহনবাগান এই স্পনসরে রাজি নয়। ব্য‌ক্তিগত ভাবে মোহন-কর্তাদের টাটার ব্য‌াপারে কোনো অ্য‌ালার্জি নেই কিন্তু তাঁরা ভাবছেন মুখ্য‌মন্ত্রীর সার্বিক ভাবে টাটা গোষ্ঠীর সম্পর্কে অবস্থানের কথা। মোহন-কর্তাদের সঙ্গে মুখ্য‌মন্ত্রীর সম্পর্ক অত্য‌ন্ত ঘনিষ্ঠ। তিনি লোকসমক্ষে না বললেও ঘনিষ্ঠরা জানেন যাকে বলে পাঁড় মোহনবাগান সমর্থক। কাজেই তাঁকে চটিয়ে এই ক্লাবে কিছু হওয়ার নয়। সে ক্ষেত্রে বিকল্প কোন গোষ্ঠী মোহনবাগানের দায়িত্ব নিতে পারে?

শোনা যাচ্ছে,শেষমেষ রিল্য‌ায়েন্স গোষ্ঠীই এই শতাব্দী প্রাচীন ক্লাবের হাল ধরার জন্য‌ এগিয়ে এসেছে। খুব কিছু পরিবর্তন না হলে মোহনবাগানকে আগামী দিনে রিল্য‌ায়েন্স জিও লোগো পরে খেলতে দেখা যাবে। উল্লেখ্য‌ এ বার কলকাতা নাইট রাইডার্সের অফিসিয়াল পার্টনার হিসাবেও জিও যুক্ত হয়েছে। কলকাতার আরও একটি দলের সঙ্গে যুক্ত হতে তারা মুখিয়েই আছে বলা যায়।

কে হবে ইস্টবেঙ্গলের মুখ্য‌ স্পনসর?

জানা যাচ্ছে, এই দৌড়ে বেশ খানিকটা এগিয়ে আছে আদিত্য‌ বিড়লা গোষ্ঠী। এই গোষ্ঠীর অন্য‌তম পণ্য‌ আল্টাট্রেক সিমেন্টের লোগো গায়ে দিয়ে ইস্টবেঙ্গল আইএসএল খেলতে মাঠে নামতে পারে। নীতা আম্বানির পক্ষ থেকে কুমারমঙ্গলম বিড়লার সঙ্গে যোগাযোগ করে এই প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এ ছাড়াও দু’টি টিম কিছু কো-স্পনসর ধরার চেষ্টা চালাচ্ছে। সে ক্ষেত্রে মোহনবাগানের পছন্দ অ্য‌াক্সিস ব্য‌াঙ্ক, অন্য‌ দিকে ইস্টবেঙ্গল কথাবার্তা চালাচ্ছে মুথুট ফিনান্স ও কোটাক মাহিন্দ্রা ব্য‌াঙ্কের সঙ্গে। যদিও দু’টি ক্ষেত্রেই আলোচনা একেবারে প্রাথমিক স্তরে রয়েছে।

কোন পরিস্থিতিতে এই দুই ক্লাবকে আইএসএল খেলতে বাধ্য‌ করা হল তা অবশ্য‌ দু’ তরফের কোনও কর্মকর্তাই প্রকাশ্য‌ে বলবেন না। কিন্তু জানা গিয়েছে, কেন্দ্রীয় সরকারের একটি মহল থেকে এই দুই দলের ওপরই প্রচণ্ড চাপ সৃষ্টি করা হয়েছে। ভারতের এন্টারটেনমেন্ট মার্কেট এ বার খেলাধূলাকে সব চেয়ে বড় পুঁজি করেছে। মুম্বইয়ের ম্য‌াক্স মার্কেটিং নামে একটি সংস্থা গত বছর একটি সমীক্ষা করে বলেছিল আগামী পাঁচ বছরে বিভিন্ন খেলাধূলায় বিনিয়োগের পরিমাণ গিয়ে দাঁড়াবে ৩০ হাজার কোটি টাকা। যার থেকে তিন গুণ মুনাফা ওঠাটাও অসম্ভব নয়। তারা জোর দিয়ে বলেছিল, ফুটবল হচ্ছে সব চেয়ে সম্ভাবনাময় বিনিয়োগ ক্ষেত্র। কাজেই ভয়ে হোক বা ভক্তিতে মোহনবাগান, ইস্টবেঙ্গল এর থেকে নিজেদের খুব একটা দূরে সরিয়ে রাখতে পারবে না।

Advertisement
Click to comment

0 Comments

  1. Arghadeep Roy Choudhury

    May 20, 2017 at 8:57 pm

    Aditya Birla? Heineken ki holo?

  2. Aniket Chattopadhyay

    May 21, 2017 at 12:19 pm

    Heineken to emnitei sponsor, kingfisher ekhon heineken er product.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ক্রিকেট

১১৬ দিন পর শুরু আন্তর্জাতিক ক্রিকেট, হাঁটু গেড়ে বসে জর্জ ফ্লয়েডকে স্মরণ ক্রিকেটারদের

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ১১৬ দিন পর ফিরল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। সেই মাহেন্দ্রক্ষণে স্মরণ করা হল জর্জ ফ্লয়েডকে। হাঁটু গেড়ে বসে ‘ব্ল্যাক লাইভ্‌স ম্যাটার’কে মনে করালেন দুই দলের ক্রিকেটাররা।

গত ১৩ মার্চ সিডনিতে অস্ট্রেলিয়া বনাম নিউজিল্যান্ড ম্যাচের পরেই ক্রিকেটের মঞ্চে পর্দা পড়ে যায়। করোনার দাপটে স্তব্ধ হয়ে যায় সব কিছু। বিশ্বের অধিকাংশ মানুষের মতোই ঘরবন্দি হয়ে যান ক্রিকেটাররাও।

ফের ক্রিকেট ফেরানোর জন্য আলাপ আলোচনা শুরু হয় ইংল্যান্ড আর ওয়েস্ট ইন্ডিজের মধ্যে। গত মে মাসে ইংল্যান্ড সফরে আসার জন্য রাজি হয়ে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তবে তাদের বেশ কিছু শর্ত পূরণ করতে হত।

গত ৮ জুন ইংল্যান্ডে পা রাখে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সবার কোভিড পরীক্ষা হয়। রিপোর্ট নেগেটিভ হওয়ার পর ২১ দিনের কোয়ারান্টাইনে চলে যান ক্রিকেটাররা। সেই কোয়ারান্টাইন পিরিয়ড শেষ হওয়ার পর নিজেদের মধ্যেই দু’টি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেন ওয়েস্ট ইন্ডিয়ানরা।

এরই মধ্যে আমেরিকায় জর্জ ফ্লয়েডের নৃশংস হত্যার ঘটনাও ঘটে গেল। ‘ব্ল্যাক লাইভ্‌স ম্যাটার’ প্রতিবাদ ছড়িয়ে পড়ে গোটা বিশ্বে। এই প্রতিবাদে শামিল হন দুই দলের ক্রিকেটাররাও।

অবশেষে বুধবার বল গড়াল ক্রিকেটের। ১১৬ বছর পর ফের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট দেখছে দুনিয়া। খুশি হয়েছেন ক্রিকেটপ্রেমীরা। খেলা শুরুর ঠিক আগেই হাঁটু গেড়ে বসে পড়েন দুই দলের ক্রিকেটাররা। স্মরণ করেন জর্জ ফ্লয়েডকে।

Continue Reading

ক্রিকেট

জন্মদিনের দিন দেখে নেওয়া যাক অধিনায়ক সৌরভের পাঁচটি কালজয়ী সিদ্ধান্ত

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ৪৮-এ পড়লেন বিসিসিআই (BCCI) সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় (Sourav Ganguly)। এক দিনের ক্রিকেটে অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান সৌরভ, ওপেনিংকে অন্যতম মাত্রা এনে দিয়েছেন।

একই সঙ্গে ভারতের অন্যতম সফল অধিনায়কও বটে। তবে যে পরিস্থিতিতে তিনি ভারতীয় দলের হাল ধরেছিলেন, তাতে তিনি যে ধোনি বা কোহলির থেকেও সেরা অধিনায়ক, তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

এক বার দেখা নিই অধিনায়ক সৌরভের এমন পাঁচটি সিদ্ধান্ত যা কালজয়ী হয়ে উঠেছে।

১) ২০০১-এর কলকাতা টেস্টে ভিভিএস লক্ষ্মণকে ৩ নম্বরে পাঠানো

অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সেই বিখ্যাত ইডেন টেস্টে ফলো-অন করতে হয় ভারতকে। প্রথম ইনিংসে ভারত মাত্র ১৭১ অল আউট হয়ে গেলেও শুধুমাত্র ভিভিএস লক্ষ্মণই (VVS Laxman) অস্ট্রেলীয় বোলারদের সামনে সাবলীল ছিলেন।

সে কারণে, দ্বিতীয় ইনিংসে দ্রাবিড়ের বদলে লক্ষ্মণকে তিন নম্বরে ব্যাট করতে পাঠায় টিম ম্যানেজমেন্ট। এই সিদ্ধান্তটাই ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দেয়। ছয় নম্বরে নামা দ্রাবিড়কে সঙ্গে নিয়ে টেস্টে চতুর্থ দিন পুরো ব্যাট করে যান লক্ষ্মণ। ২৮১ রানের ঐতিহাসিক একটি ইনিংস খেলে ফেলেন তিনি।

এর ফলে নাটকীয় জয় পায় ভারত। বিশ্বের তৃতীয় দল হিসেবে ফলোঅন করার পর টেস্ট ম্যাচ জেতে ভারত। এর পর চেন্নাইয়ে তৃতীয় টেস্ট জিতে সিরিজ ২-১-এ জিতে নেয় সৌরভের ভারত। সিরিজটা ভারতীয় ক্রিকেটের পুরো ভাবমূর্তিই বদলে দেয়।

ইডেনে ফলোঅন করে ভারতের অত্যাশ্চর্য জয় ক্রিকেট-বিশ্বে রীতিমতো আলোড়ন তৈরি করেছিল। তার রেশ এখনও আছে। এখনও প্রথম ইনিংসে দুর্দান্ত ভাবে এগিয়ে থাকা দল প্রতিপক্ষকে ফলোঅন করাতে দু’ বার চিন্তা করে।

২) সহবাগকে দিয়ে ওপেন করানো

শুরু থেকেই মিডিল অর্ডার ব্যাটসম্যান ছিলেন বীরেন্দ্র সহবাগ (Virender Sehwag)। ২০০১-এ সাউথ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টেস্ট অভিষেকেও ছয় নম্বরে নেমে দুর্ধর্ষ শতরান করেছিলেন তিনি। এক দিনের ক্রিকেটেও পাঁচ বা ছয় নম্বরে নামতেন সহবাগ। এ হেন সহবাগের মধ্যেই অন্য কিছু ব্যাপার খুঁজে পেলেন সৌরভ। বুঝতে পারলেন সহবাগকে দিয়ে ওপেন করালে আরও ভালো ফল পেতে পারে ভারত।

সহবাগকে ওপেনিংয়ে পাঠানোর সেই সিদ্ধান্তটা জে কালজয়ী ছিল, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। টেস্ট ওপেনিংয়ের নতুন সংজ্ঞা দিলেন তিনি। ৫০-এর ওপরে গড় আর দু’টি ত্রিশতরান করে ভারতের অন্যতম সফল ওপেনারদের মধ্যে একজন হয়ে যান সহবাগ।

৩) দ্রাবিড়কে উইকেটকিপার করা

কোচ জন রাইটের সমর্থনে সৌরভের আরও একটি মাস্টারস্ট্রোকীয় চাল। রাহুল দ্রাবিড়কে (Rahul Dravid) এক দিনের দলে উইকেটকিপার করে আনা। দ্রাবিড়ের ব্যাটিং ফর্ম কিছুটা খারাপ হয়ে গিয়েছিল বলে ২০০২-এর গোড়ায় এক দিনের দল থেকে বাদ পড়েছিলেন।

কিন্তু সৌরভ বুঝতে পারেন, দ্রাবিড়ের মতো ব্যাটসম্যানকে এক দিনের দলের বাইরে রাখা উচিত নয়। এর ফলে এক ঢিলে দুই পাখি মরল। ভারতীয় দলে বাড়তি ব্যাটসম্যানও এল, আর উইকেটে পেছনে মোটামুটি নির্ভরযোগ্য একজনকে পাওয়াও গেল।

উইকেটকিপার হিসেবে দ্রাবিড় কতটা দক্ষ ছিলেন, সেটা তো ২০০৩ বিশ্বকাপেই দেখেছি আমরা। সেই সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ সময়েও ব্যাট হাতেও বিশাল ভূমিকা পালন করেছেন তিনি।

৪) ধোনিকে তিন নম্বরে পাঠানো

২০০৪-এর শেষ দিকে বাংলাদেশে অভিষেক হয় মহেন্দ্র সিংহ ধোনির (MS Dhoni)। তিনটে ম্যাচে আহামরি রান পাননি। ধোনিকে সাত নম্বরে পাঠিয়ে তাঁর ব্যাটিং প্রতিভাকে পুরোপুরি নষ্ট করা হচ্ছে, সেটা বুঝেছিলেন সৌরভ। সে কারণেই পাকিস্তানের বিরুদ্ধে বিশাখাপত্তনমে তিন নম্বরে পাঠান ধোনিকে।

ওই ম্যাচেই ধোনি জানান দিয়ে যান তিনি কী! ১৪৮ রানের একটা ইনিংস খেলেন ধোনি। তার পর আর ধোনিকে পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি।

৫) তরুণদের তুলে আনা

সহবাগ, যুবরাজ, হরভজন, জাহির খান আর ধোনি – সৌরভের অধিনায়কত্বে উঠে এসেছেন সবাই। ২০০০ সালে গড়াপেটার জাল থেকে ভারতীয় দলকে বের করে আনার পেছনে সৌরভের অন্যতম কারিগর ছিলেন এই তরুণরা।

বিদেশের মাঠে অন্যতম সফল টেস্ট অধিনায়ক সৌরভ। ২৮ টেস্টে ১১টা জয় পেয়ে রয়েছেন বিরাট কোহলির পরেই। সৌরভের এই সাফল্যের পেছনে তরুণদের অবদান যে অনস্বীকার্য তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

Continue Reading

ক্রিকেট

জন্মদিনে ফিরে দেখা মহেন্দ্র সিংহ ধোনির ম্যাচ জেতানো তিনটে সেরা ইনিংস

বিশ্বকাপ ফাইনালের ৯১ রানের ইনিংসটা নিঃসন্দেহে ধোনির সেরা।

dhoni

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ৩৯-এ পড়লেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনি (MS Dhoni)। সকাল থেকেই শুভেচ্ছার বন্যায় ভেসে যাচ্ছেন মাহি।

ভারতীয় ক্রিকেটে (Indian Cricket) এক অন্য রকম বিপ্লব এনে দিয়েছেন ধোনি। বিশ্বের অন্যতম সেরা উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান হয়ে ওঠেন তিনি। আর পরিসংখ্যান তো বলেই দেয় যে ভারতের সেরা অধিনায়ক তিনিই।

৪০তম জন্মদিনে ফিরে দেখা ধোনির কেরিয়ারের অন্যতম সেরা তিনটে ইনিংস।

১) ৯১ অপরাজিত, বিশ্বকাপ ফাইনাল ২০১১

মঞ্চ যে হেতু বিশ্বকাপ ফাইনাল তাই শতরান না করলেও, এটাই ধোনির কেরিয়ারে সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস। ২০১১-এর বিশ্বকাপ ফাইনালে মুম্বইয়ে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ৭৯ বলে ৯১ রানের দুর্ধর্ষ একটি ইনিংস খেলেন তৎকালীন ভারত অধিনায়ক। ৮টি চার আর ২টি ছক্কায় সাজানো এই ইনিংসে সাহায্যে বিশ্বকাপের ট্রফি তোলে ভারত। ম্যাচের সেরা হন ধোনি।

২) ১৪৮ বনাম পাকিস্তান, ২০০৫

২০০৫-এর ৫ এপ্রিল বিশাখাপত্তনমে কেরিয়ারের প্রথম আন্তর্জাতিক শতরান করেছিলেন ধোনি। পাকিস্তানের বিরদ্ধে ১২৩ বলে ১৪৮ রানের দুর্দান্ত ইনিংসের মধ্যে দিয়েই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিজের আবির্ভাব ঘটিয়েছিলেন তিনি।

৩) ১৮৩ অপরাজিত বনাম শ্রীলঙ্কা, জয়পুর ২০০৫

২০১৫ সালের ৩১ অক্টোবর জয়পুরে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে একদিনের ম্যাচ খেলেছিল ভারত। ওই ম্যাচে ১৪৫ বলে ১৮৩ রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলেছিলেন ধোনি। ১৫টি চার ও ১০টি ছক্কা দিয়ে সাজানো এই ইনিংসে মধ্যে দিয়ে একদিনের ক্রিকেটে উইকেটরক্ষক হিসেবে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ডটি করে ফেলেন ধোনি।

Continue Reading
Advertisement
ক্রিকেট43 mins ago

১১৬ দিন পর শুরু আন্তর্জাতিক ক্রিকেট, হাঁটু গেড়ে বসে জর্জ ফ্লয়েডকে স্মরণ ক্রিকেটারদের

কলকাতা1 hour ago

কলকাতায় লকডাউনের আওতায় পড়া এলাকাগুলির পূর্ণাঙ্গ তালিকা প্রকাশিত

provident fund
শিল্প-বাণিজ্য2 hours ago

কেন্দ্রীয় সরকার আগস্ট মাস পর্যন্ত কর্মীদের ইপিএফ বকেয়া জমা করবে, অনুমোদন মন্ত্রিসভায়

CBSE
দেশ2 hours ago

সিবিএসইর সিলেবাস থেকে বাদ ‘ধর্মনিরপেক্ষতা’, ‘গণতান্ত্রিক অধিকার’, তীব্র বিতর্ক

রাজ্য3 hours ago

আগামী পাঁচ দিন উত্তরবঙ্গে মাত্রাতিরিক্ত বৃষ্টির আশঙ্কা

BMS
দেশ3 hours ago

বেসরকারিকরণের বিরুদ্ধে সপ্তাহব্যাপী প্রতিবাদে নামছে আরএসএসের শ্রমিক সংগঠন

Currency
রাজ্য4 hours ago

ডিএ মামলায় রাজ্য সরকারের আর্জি খারিজ স্যাটে

Hemant Soren
দেশ4 hours ago

মন্ত্রী করোনা আক্রান্ত! কোয়রান্টিনে গেলেন ঝাড়খণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সোরেন

কেনাকাটা

কেনাকাটা1 day ago

বাচ্চার জন্য মাস্ক খুঁজছেন? এগুলোর মধ্যে একটা আপনার পছন্দ হবেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিউ নর্মালে মাস্ক পরাটাই দস্তুর। তা সে ছোটো হোক বা বড়ো। বিরক্ত লাগলেও বড়োরা নিজেরাই নিজেদেরকে বোঝায়।...

কেনাকাটা2 days ago

রান্নাঘরের টুকিটাকি প্রয়োজনে এই ১০টি সামগ্রী খুবই কাজের

খবরঅনলাইন ডেস্ক : লকডাউনের মধ্যে আনলক হলেও খুব দরকার ছাড়া বাইরে না বেরোনোই ভালো। আর বাইরে বেরোলেও নিউ নর্মালের সব...

কেনাকাটা3 days ago

হ্যান্ড স্যানিটাইজারে ৩১ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় দিচ্ছে অ্যামাজন

অনলাইনে খুচরো বিক্রেতা অ্যামাজন ক্রেতার চাহিদার কথা মাথায় রেখে ঢেলে সাজিয়েছে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের সম্ভার।

DIY DIY
কেনাকাটা1 week ago

সময় কাটছে না? ঘরে বসে এই সমস্ত সামগ্রী দিয়ে করুন ডিআইওয়াই আইটেম

খবর অনলাইন ডেস্ক :  এক ঘেয়ে সময় কাটছে না? ঘরে বসে করতে পারেন ডিআইওয়াই অর্থাৎ ডু ইট ইওরসেলফ। বাড়িতে পড়ে...

নজরে