১৬ দিনের আনন্দ শেষে ঘনিয়ে এল বিশাদের মুহূর্ত। এ বারের মতো অলিম্পিকের পালা শেষ। আবার চার বছরের অপেক্ষা। বৃষ্টিস্নাত মারাকানা স্টেডিয়ামে ঘণ্টা তিনেকের এক বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে শেষ হল অলিম্পিক।

সমাপ্তি অনুষ্ঠানে জ্বলজ্বল করে থাকলেন ভারতের সাক্ষী মালিক। এ বারের অলিম্পিকে ভারতকে দু’টি পদক এনে দিয়েছেন দুই মহিলা ক্রীড়াবিদ। কিন্তু রুপো জেতা পিভি সিন্ধু দেশে ফিরে আসার ফলে পতাকা বহন করার সুযোগ আসে ব্রোঞ্জজয়ী সাক্ষীর কাছে।

সমাপ্তি অনুষ্ঠানের প্যারেডে অভিনব পদ্ধতিতে নিজের উপস্থিতি জানান দেয় গ্রেট ব্রিটেন। ব্রিটেনের অলিম্পিক ইতিহাসে রিওতেই  সব থেকে সফল হয়েছে ব্রিটেন। সেই মুহূর্তকে স্মরণীয় করে রাখতে আলো লাগানো জুতোয় প্যারেডে আসেন খেলোয়াড়রা।

সমাপ্তি অনুষ্ঠানে ব্রাজিলের শিল্প ও সংস্কৃতিকে তুলে ধরা হয়েছিল। ছিল রিও কার্নিভালের কিছু ঝলকও। নকল বৃষ্টির মাধ্যমে অলিম্পিকের মশাল নেভানো হয়। সেই সঙ্গে ওখান থেকে একটি গাছের ভাস্কর্য বেরিয়ে আসে যেটা বোঝায় যে অলিম্পিকের পুনর্জন্ম হতে চলেছে। প্রায় তিনশো জন নৃত্যশিল্পীকে নিয়ে একটি কার্নিভাল প্যারেডে নেতৃত্ব দেন ব্রাজিলের মডেল ইজাবেল গৌলার্ট। বাজির প্রদর্শনী আরও বর্ণময় করে তোলে অনুষ্ঠানকে।

এই অনুষ্ঠানের মধ্যে সরকারি ভাবে জাপানকে দায়িত্ব দেওয়া হল চার বছর পর অলিম্পিক আয়োজন করার জন্য। রিও-র মেয়র এদুয়ার্দো পাইসের হাত থেকে অলিম্পিকের পতাকা নিয়ে টোকিওর গভর্নর য়ুরিকো কোইকের হাতে অলিম্পিকের পতাকা তুলে দেন আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির সভাপতি থমাস বাক। টোকিওর জন্য বারো মিনিটের একটি ছোট্ট অনুষ্ঠান হয় যেখানে ভিডিও গেমের জনপ্রিয় চরিত্র সুপার মারিও সেজে আবির্ভূত হয়ে সবাইকে তাক লাগিয়ে দেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে।

রিওর অলিম্পিককে সরকারি ভাবে সমাপ্তি ঘোষণা করেন থমাস বাক।   

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here