ওয়েবডেস্ক: উইম্বলডন জয়ের সুযোগ সবার ঘন ঘন আসে না। ইতিহাসের মুখোমুখি হওয়ার সুযোগ তো আরওই কম আসে। তেমনই এক সুযোগের সামনে রবিবার দাঁড়িয়েছিলেন ক্রোয়েশিয়ার মারিন চিলিচ। কিন্তু উল্টোদিকে যখন টেনিসের কিংবদন্তি, তখন খেলার যাবতীয় অনিশ্চয়তার ইতিবাচক সুযোগ যে রজার ফেডেরারের দিকেই যাবে, সে তো বলাই বাহুল্য।

আরও পড়ুন: সিঙ্গলসে সবচেয়ে বেশি গ্র্যান্ডস্লাম-জয়ী ১০ জন পুরুষ খেলোয়াড়ের তালিকা

তাই হল, প্রথম সেটেই চোট পেয়ে গেলেন চিলিচ। তারপর গোটা ম্যাচটা কোনো মতে টেনে নিয়ে গেলেন। দ্বিতীয় সেটে যখন ৩-০ পিছিয়ে পড়েছেন, তখন চিকিৎসার জন্য কোর্টে আসতে হল সুপাইভাইজার ও ট্রেনারকে। কান্নায় ভেঙে পড়েও কোর্ট ছাড়েননি চিলিচ। দর্শকরা ঐতিহাসিক ম্যাচে দুর্দান্ত লড়াই হয়তো দেখতে পেলেন না। কিন্তু দেখলেন টেনিস ও ইতিহাসের ম্যাচের প্রতি পরাজয়ের মুখে দাঁড়িয়ে থাকা এক খেলোয়াড়ের দুরন্ত আবেগ ও সম্মান।

চোট পেয়ে ভেঙে পড়েন মারিন চিলিচ

আর কিংবদন্তির কথা নতুন করে কিই বা বলার আছে। ৬-৩, ৬-১, ৬-৪ ফলে ২০১৭ সালের উইম্বলডনটি জেতার পথে আরও একগাদা রেকর্ড করে ফেললেন রজার ফেডেরার।

  • গ্র্যান্ডস্লাম জয়ের সংখ্যায় ইতিহাসের সর্বোচ্চ স্থানে তো আগেই পৌঁছেছিলেন, এবার সেটা বেড়ে হল ১৯।
  • অষ্টম উইম্বলডন জিতলেন। যা এর আগে কেউ জেতেননি। এর আগে সবচেয়ে বেশিবার জয়ের রেকর্ড ছিল তাঁর এবং পিট সাম্প্রাসের(৭বার)।
  • এক মাস পরেই ৩৬ বছরে পড়বেন ফেডেরার। এত বেশি বয়সে এর আগে কেউ উইম্বলডন জেতেননি।
  • গোটা টুর্নামেন্টে এবার একটিও সেট খোয়াননি রজার। এই কৃতিত্ব শেষবার দেখিয়েছিলেন বিয়র্ন বর্গ, ১৯৭৬ সালে। ৪১ বছর পর সেই রেকর্ড ছুঁলেন রজার।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন