sachin-youtube

নয়াদিল্লি : বৃহস্পতিবার রাজ্যসভায় তিনি দেশের খেলাধুলোর উন্নতি নিয়ে বলতে চেয়েছিলেন। কিন্তু প্রবল হৈ হট্টোগোলের জেরে তাঁকে বলতে দেওয়া হয়নি। পরেরদিনই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে তাঁর বক্তব্য দেশবাসীর কাছে হাজির করলেন রাজ্যসভার সাংসদ সচিন তেন্ডুলকর।

তিনি মূলত দেশের খেলাধুলোর উন্নয়ন নিয়ে বলতে চেয়েছিলেন। আর তাঁর বক্তব্যের সিংহভাগ জুড়ে থাকত উত্তর-পূর্ব ভারতের ক্রীড়ক্ষেত্রে উন্নয়ন। কিন্তু বৃহস্পতিবার সংসদের উচ্চকক্ষে তিনি এ সব বলার সুযোগই পাননি। তাঁর ব্যক্তবের একটি ইউটিউব ভিডিও করছেন সচিন। সেটিকেই সোশ্যাল মিডিয়ার শেয়ার করেছেন।

তিনি বলেন ভারতকে ‘স্পোর্টস লাভিং’ দেশ থেকে ‘স্পোর্টস প্লেয়িং’ দেশ হয়ে উঠতে হবে। অর্থাৎ ভালোবেসে শুধু খেলা দেখলে হবে না অংশ নিতে হবে খেলায়। উত্তর-পূর্ব ভারতের ক্রীড়াক্ষেত্রে উন্নতির প্রসঙ্গে তিনি দীপা কর্মকার, মেরি কম, বাইচুং ভুটিয়াকে উদাহরণ হিসাবে উল্লেখ করেন।

মাস্টার ব্লাস্টার বলেন, ‘‘ দেশের মোট জনসংখ্যার মাত্র ৪ শতাংশ বাস করেন উত্তর-পূর্ব ভারতে। তা সত্ত্বে ভারোত্তলক মীরাবাই চানু, দীপা কর্মকার, বাইচুং ভুটিয়া, সুনীতা দেবী, সঞ্জিতা চানুর মতো প্রতিভার জন্ম দিয়েছে উত্তর-পূর্বাঞ্চল।’’

রও পড়ুন : হায় ভারত রত্ন! রাজ্যসভায় কথাই বলতে দেওয়া হল না সচিনকে

বৃহস্পতিবার রাজ্যসভায় তিনি যখন এই কথাগুলো বলতে যান সেই সময় কংগ্রেসের হৈ-হট্টোগোলে অধিবেশন মুলতুবি করে দেন অধ্যক্ষ।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here