ওয়েলিংটন: বাসিন রিজার্ভ স্টেডিয়াম।  বিশ্বের তাবড় তাবড় ব্যাটসম্যানরা যেখানে নিউজিল্যান্ড পেস আক্রমণের সামনে ভিরমি খায়, সেখানেই ব্যাটিং বিক্রম দেখাল বাংলাদেশ। সৌজন্যে শাকিব আল হাসান আর মুসফিকুর রহিম।

একদিনের আর টি২০ সিরিজে কিউয়িদের কাছে নাকানিচোবানি খাওয়ার পর আন্দাজ করা হয়েছিল টেস্টেও হয়তো উড়ে যাবে তারা,  বিশেষ করে টেস্টটি যখন বেসিন রিজার্ভে হচ্ছে। কিন্তু হল ঠিক উল্টো। টসে হেরে ব্যাটিং করছে টাইগাররা। দলের স্কোর যখন চার উইকেটে ১৬০, শাকিবের সঙ্গে ক্রিজে আসেন অধিনায়ক মুসফিকুর রহিম। তারপর কয়েক ঘণ্টা, শুধু রেকর্ডের পর রেকর্ড ভেঙে গেল এই জুটি।

বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসে সর্বোচ্চ পার্টনারশিপের রেকর্ড করল এই জুটি। ১৫৮ করে মুসফিক যখন আউট হন দুজনের জুটি তখন ৩৫৯ রান করে ফেলেছে। মুসফিকের থেকে বেশি ভয়ঙ্কর ছিলেন শাকিব। বাংলাদেশের তৃতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে দ্বিশতরানের রেকর্ড গড়েন তিনি। কিছুক্ষণের মধ্যেই তামিম ইকবালকে টপকে বাংলাদেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ রানের মালিক হয়ে যান কেকেআরের এই নির্ভরযোগ্য অলরাউন্ডার। ৫০০-এর গণ্ডী অবলীলায় পেরিয়ে যায় বাংলাদেশ। দিনের শেষে বাংলাদেশের স্কোর সাত উইকেটে ৫৪২ । নিউজিল্যান্ডের মাঠে তাদের হারানোর স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছে এগারো বাঙালির এই দল।  

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here