নতুন মহিলা চ্যাম্পিয়ন পেল উইম্বলডন

0
simona halep
চ্যাম্পিয়ন সিমোনা হালেপ। ছবি সৌজন্যে দ্য ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল।

ওয়েবডেস্ক: সেরেনা উইলিয়ামসকে ৬-২, ৬-২ ফলাফলে হারিয়ে প্রথম উইম্বলডন চ্যাম্পিয়নের ট্রফি তুলে নিলেন সিমোনা হালেপ। গত গ্রীষ্মে ফরাসি ওপেনে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর আবার সাফল্য পেলেন হালেপ। এবং ২৭ বছরের হালেপ নিজের দেশ রোমানিয়ার জন্য এই প্রথম অল ইংল্যান্ড ক্লাবে সিঙ্গলস চ্যাম্পিয়নের সম্মান এনে দিলেন।

আরও পড়ুন ফেডেরারের দ্বাদশ উইম্বলডন ফাইনাল, খেলবেন বর্তমান চ্যাম্পিয়নের বিরুদ্ধে

ও দিকে গত বসন্তে কন্যাসন্তান জন্ম দেওয়ার পর সেরেনা টেনিসকোর্টে ফিরে এসে এই নিয়ে তিন বার ছুঁতে পারলেন না মার্গারেট কোর্টকে। গ্র্যান্ড স্লাম খেতাব জেতার যে সর্বকালীন রেকর্ড রয়েছে মার্গারেটের ঝুলিতে, তার থেকে একটি খেতাব পিছনেই রয়ে গেলেন সেরেনা। মার্গারেটের দখলে রয়েছে ২৪টি খেতাব, আর সেরেনার দখলে রয়েছে ২৩টি খেতাব।  

ঠিক ১২ মাস আগে অল ইংল্যান্ড ক্লাবের এই কোর্টে মহিলাদের সিঙ্গলস ফাইনালে জার্মানির আনজেলিক ক্যারব্যারের কাছে এবং তার পরে ইউএস ওপেনে জাপানের নাওমি ওসাকার যে ভাবে হেরেছিলেন  সেরানা, শনিবার ঠিক সে ভাবেই সিমোনা হালেপের কাছে হারলেন। আসলে ইতিহাসকে ছোঁয়ার চিন্তা বোধহয় মনকে সরাতে পারছেন না সেরেনা।

তবে এই জয়ে হালেপের কৃতিত্ব কিছু কম নয়। শুধু যে তিনি সুদক্ষ ডেফেন্ডারই নন, দুর্দান্ত অ্যাটাকারও, তার প্রমাণ দিলেন এ দিন। কেমব্রিজ আর সাসেক্স-এর ডাচেসরা রয়্যাল বক্সের একেবারে সামনের সারিতেই বসেছিলেন। তাঁরা কায়মনবাক্যে চাইছিলেন এ দিনটা তাঁদের ঘনিষ্ঠ বন্ধু সেরেনার হোক। কিন্তু ভাগ্যবিধাতার মনে ছিল অন্য কিছু। এ দিন ছিল হালেপের দিন। মাত্র ৫৬ মিনিট সময় নিলেন জয় ছিনিয়ে নিতে। সেরেনার শেষ ফোরহ্যান্ড শটটা যখন নেটে লাগল, তখন কোর্টে হাঁটু গেড়ে বসে পড়লেন হালেপ, ঈশ্বরকে ধন্যবাদ দিচ্ছেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here