Connect with us

খেলাধুলো

স্বপ্ন পূরণ হল না সিন্ধুর

একেই বলে, এত কাছে তবুও কত দূরে! কোটি কোটি দেশবাসীর আশীর্বাদ সত্ত্বেও সোনার স্বপ্ন অধরাই থেকে গেল পুরসালা বেঙ্কট সিন্ধুর, ম্যাচের প্রথম গেম জিতেও। আসলে ভারতবাসীর প্রত্যাশা, সঙ্গে বিশ্বের এক নম্বরের মুখোমুখি হওয়া, এই দুইয়ের চাপে নিজের স্নায়ু ধরে রাখতে পারলেন না হায়দরাবাদের তরুণী। তবুও তিনি যা করেছেন তা এতটুকু খাটো করে দেখার নয়। অলিম্পিকে কোনও ভারতীয় ব্যাডমিন্টন প্লেয়ার যা করতে পারেননি, সিন্ধুই করে দেখিয়েছেন।

ম্যাচের শুরু থেকেই এ দিন দাপট দেখানো শুরু করেন বিশ্বের এক নম্বর, স্পেনের কারোলিনা মারিন। প্রথম গেমের ‘মিড-গেম’ ব্রেকের সময়ে মারিন এগিয়ে ছিলেন ১১-৬ ব্যবধানে। তবে বিরতির পর গেমে দুর্দান্ত কামব্যাক ঘটান সিন্ধু। ১৬-১৯ ব্যবধানে পিছিয়ে পড়লেও পর পর পাঁচটি পয়েন্ট পেয়ে ২১-১৯-এ প্রথম গেম দখল করেন সিন্ধু। দ্বিতীয় গেমের শুরুতে আবার দাপট দেখাতে শুরু করেন মারিন। এ বার আরও ভয়ঙ্কর। পর পর পয়েন্ট পেয়ে সিন্ধুর ধরাছোঁয়ার বাইরে চলে যাচ্ছিলেন মারিন। প্রথম গেমে যে ভাবে কামব্যাক করেছিলেন সিন্ধু, দ্বিতীয় গেমে তার ছিটেফোঁটাও পাওয়া যায়নি। দ্বিতীয় গেমটি মারিন জেতেন ২১-১২ ব্যবধানে।

প্রথম দু’টি গেম সমান সমান, তৃতীয় গেম যাঁর সোনার পদক তাঁর, এই অবস্থায় ঝাঁপিয়ে পড়লেন দু’জনেই। তবে যথারীতি, আগের দু’টি গেমের মতোই শুরু করেন মারিন। ক্রমশ এগিয়ে যেতে থাকেন তিনি। তবে সিন্ধুও চেষ্টা চালাচ্ছিলেন কামব্যাক ঘটানোর। তৃতীয় গেমটির বিরতির সময়ে স্কোর ছিল মারিনের পক্ষে ১১-১০। বিরতির পর মারিন আর সিন্ধুকে ম্যাচে ফিরতেই দেননি। তৃতীয় গেমে মারিনের জয়ের ব্যবধান ২১-১৫।

তবে সোনা হারলেও, জমাটি ম্যাচ উপহার দিয়ে দেশবাসীর মন জয় করলেন সিন্ধু। আবার চার বছরের অপেক্ষা।

ক্রিকেট

চলে গেলেন ‘থ্রি ডব্লু’-এর শেষ জন স্যার এভার্টন উইকস, শেষ হল একটা অধ্যায়

খবরঅনলাইন ডেস্ক: তাঁর দুই সতীর্থ স্যার ক্লাইড ওয়ালকট এবং স্যার ফ্র্যাঙ্ক ওরেল আগেই চলে গিয়েছিলেন। এ বার সেই ঠিকানায় পাড়ি জমালেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিখ্যাত ‘থ্রি ডব্লিউ’ এর শেষ জন স্যার এভারটন উইকস।

বুধবার বার্বাডোজে (Barbados) নিজের বাড়িতে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেছেন কিংবদন্তি এই ক্যারিবিয়ান ব্যাটসম্যান। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯৫।

১৯৪৮ সালে তিন সপ্তাহের ব্যবধানে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক হয়েছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেটের ‘থ্রি ডব্লিউ’ স্যার ক্লাইড ওয়ালকট (Sir Clyde Walcott), স্যার ফ্র্যাংক ওরেল (Sir Frank Worrell) এবং স্যার এভারটন উইকসের (Sir Everton Weekes)। তাদের তিন জনেরই জন্ম বার্বাডোজে।

ওরেল মারা যান ১৯৬৭ সালে, ওয়ালকট ২০০৬-এ। এ বার সেখানে চলে গেলেন উইকসও।

ক্রিকেট বিশ্ব দেখেছে এ তিন ডব্লিউয়ের তাণ্ডব। তবে ওয়ালকট বা ওরেলের থেকেও তর্কাতীত ভাবে সেরা ব্যাটসম্যান ছিলেন উইকস। ১৯৪৮ অর্থাৎ অভিষেকের বছরেই মার্চ থেকে ডিসেম্বরের ভেতরে টানা পাঁচ টেস্টে সেঞ্চুরি করেছিলেন তিনি।

ষষ্ঠ টেস্টে আম্পায়ারের ভুলে আউট হন ৯০ রান করে। মাত্র ১২ ইনিংসে পূরণ করেছিলেন কেরিয়ারের ১০০০ রান। এর চেয়ে দ্রুত আর কেউ এই মাইলফলকে পৌঁছোতে পারেননি।

কেরিয়ার শেষে ৪৮ টেস্টে ১৫ শতরান ও ১৯ অর্ধশতরানের মধ্যে দিয়ে ৫৮.৬১ গড়ে ৪৪৫৫ রান করেন উইকস। উইকসের ব্যাটিংয়ের মধ্যে স্যার ডন ব্র্যাডম্যানের ছায়া দেখতে পেতেন অনেকেই।

১৯৫১ সালে উইজডেনের বর্ষসেরা ক্রিকেটারের সম্মান পান এভারটন উইকস। পরে ১৯৯৫ সালে ক্রিকেটে অবদানের জন্য নাইটহুড উপাধি লাভ করেন তিনি এবং নামের সামনে যোগ হয় ‘স্যার’ শব্দটি।

Continue Reading

ক্রিকেট

২০১১ বিশ্বকাপ কাণ্ড: জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করা হল কুমার সঙ্গকারা, মাহেলা জয়বর্ধনকে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: যে আশঙ্কাটা করা হচ্ছিল, সেটাই হল। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য এ বার তলব করা হল শ্রীলঙ্কার দুই কিংবদন্তি কুমার সঙ্গকারা (Kumar Sangakkara) আর মাহেলা জয়বর্ধনকে (Mahela Jaywardene)।

২০১১-এর বিশ্বকাপ ফাইনালে (2011 Cricket World Cup) সত্যি গড়াপেটা হয়েছিল কি না তার তদন্তের জন্য শ্রীলঙ্কা পুলিশের পুলিশ ইন্ডিপেন্ডেন্ট স্পোশাল ইনভেস্টিগেশন ইউনিট এই দুই ক্রিকেটারকে তলব করেছে। বুধবার সকালে দু’ জনকে হাজিরা দিতে হবে।

শ্রীলঙ্কার প্রাক্তন ক্রীড়ামন্ত্রী মহিন্দানন্দ অতুলগামাগের অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তের নির্দেশ দেয় শ্রীলঙ্কা সরকার। তদন্ত শুরু করে পুলিশের ইন্ডিপেন্ডেন্ট স্পোশাল ইনভেস্টিগেশন ইউনিট।

মঙ্গলবার প্রায় ঘণ্টা ছয়েক জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় ২০১১ বিশ্বকাপের সময় শ্রীলঙ্কার নির্বাচক প্রধান অরবিন্দ ডি সিলভাকে। এর পর বুধবার জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডেকে পাঠানো হয় শ্রীলঙ্কারন ওপেনার উপুল থরাঙ্গাকে। তাঁকে ঘণ্টা দুয়েক ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

উল্লেখ্য, কিছু দিন আগেই অতুলগামাগে অভিযোগ করেছিলেন ২০১১ সালের বিশ্বকাপ ফাইনাল ভারতের কাছে নাকি বিক্রি করে দিয়েছিল শ্রীলঙ্কা! সেই সময় ২০১১ বিশ্বকাপে শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক কুমার সাঙ্গাকারা বলেন, “ওঁর যাবতীয় তথ্য আইসিসি-র দুর্নীতিদমন শাখার হাতে তুলে দেওয়া উচিত, যাতে সব কিছুর তদন্ত হয়।”

তবে গোটা ঘটনাপ্রবাহ দেখে মনে হচ্ছে, গড়াপেটার অভিযোগের এই জল অনেক দূরই গড়াবে। গোটা বিষয়টির ওপরে নজর রাখছে আইসিসিও।

Continue Reading

ক্রিকেট

আইসিসির চেয়ারম্যানের পদ থেকে সরে দাঁড়ালেন শশাঙ্ক মনোহর, এ বার কি সৌরভ?

খবরঅনলাইন ডেস্ক যেমনটা ভাবা হচ্ছিল, তেমনটাই হল। আইসিসির চেয়ারম্যানের পদ থেকে সরে দাঁড়ালেন শশাঙ্ক মনোহর। আপাতত তাঁর জায়গায় কার্যনির্বাহী চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব নিয়েছেন সিঙ্গাপুরের ইমরান খোয়াজা।

মনোহর সরে দাঁড়ানোয় স্বাভাবিক ভাবেই সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে নিয়ে জল্পনা আরও বেড়ে গেল। গত কয়েক দিন ধরেই সৌরভের নামটা হাওয়ায় ভেসে বাড়াচ্ছে। তিনি না কি আইসিসির চেয়ারম্যানের দৌড়ে অনেকটাই এগিয়ে রয়েছেন।

দক্ষিণ আফ্রিকা, অস্ট্রেলিয়ার মতো শক্তিশালী ক্রিকেট দেশ চাইছে, করোনাভাইরাস নিয়ে এমন সঙ্কটের সময়ে শক্ত হাতে কেউ এসে হাল ধরুন। কারও কারও সরাসরি প্রস্তাব, সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ই আসুন নতুন আইসিসি প্রধান হিসেবে।

সৌরভকে আইসিসিতে চাইছেন তাঁর বন্ধু তথা সাউথ আফ্রিকার ক্রিকেট বোর্ডের বর্তমান প্রধান গ্রেম স্মিথ। এ ছাড়া ডেভিড গাওয়ারও সৌরভের পক্ষেই।

জুলাইয়ের মধ্যেই পরবর্তী চেয়ারম্যান নির্বাচনের প্রক্রিয়া সেরে ফেলতে চায় আইসিসি। তার মানে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য বোর্ড কর্তাদের হাতে সময় থাকছে মেরেকেটে পনেরো দিন মতো।

বিসিসিআই সূত্রে খবর, সৌরভের মনোনয়ন নিয়ে অন্যান্য দেশের বোর্ডকে বাজিয়েও দেখা হয়েছে। উল্লেখযোগ্য সাড়া পাওয়া গিয়েছে বলেই খবর। তবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত এখনও হয়নি। 

আইসিসি চেয়ারম্যানের দৌড় থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন পাকিস্তানের এহসান মানি। বর্তমানে কার্যনির্বাহী সভাপতি খোয়াজার দাবিও খুব একটা জোরালো নয়। ইংল্যান্ডের কলিন গ্রেভস খুবই আগ্রহী। কিন্তু সর্বশেষ খবর, তাঁর দিকেও যথেষ্ট সমর্থন নেই।

অন্যান্য কয়েকটি বোর্ডের কর্তাদের সঙ্গে কথা বলে মনে হচ্ছে, ‘ডার্ক হর্স’ হিসেবে উঠে আসতে পারেন নিউজ়িল্যান্ডের গ্রেগ বার্কলে। ২০১২ থেকে হ্যাডলির দেশের বোর্ডে ডিরেক্টর। এখন আইসিসি-তে তিনিই নিউজ়িল্যান্ডের  প্রতিনিধিত্ব করেন। 

তবে সৌরভের আইসিসিতে যাওয়া না-যাওয়া একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের ওপরে নির্ভর করছে। লোঢা কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডে সৌরভদের মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা এই জুলাইতেই। কিন্তু ইতিমধ্যেই সেই মেয়াদের ব্যাপারে শীর্ষ আদালতে আবেদন করা হয়েছে। সুপ্রিম কোর্ট এখনও শুনানির দিন জানায়নি।

সৌরভের প্রেসিডেন্ট পদের সময়কাল যদি এই জুলাইয়েই শেষ হয়ে যায়, তা হলে তাঁর আইসিসিতে যাওয়ার পথ অনেকটাই মসৃণ হয়ে যাবে বলে মনে করা হচ্ছে।

Continue Reading
Advertisement
দেশ2 days ago

কোভিড ১৯ আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ১৮,৫২২, সুস্থ ১৩,০৯৯

ক্রিকেট1 day ago

আইসিসির চেয়ারম্যানের পদ থেকে সরে দাঁড়ালেন শশাঙ্ক মনোহর, এ বার কি সৌরভ?

ক্রিকেট2 days ago

বর্ণবিদ্বেষের বিরুদ্ধে গর্জে উঠতে আসন্ন টেস্ট সিরিজে ওয়েস্ট ইন্ডিজের জার্সিতে থাকছে ‘ব্ল্যাক লাইভ্‌স ম্যাটার’

kiran rao, aamir khan and azaad khan
বিনোদন2 days ago

আমির খানের বেশ কয়েকজন সহযোগী করোনা পজিটিভ

DIY
ঘরদোর2 days ago

সময় কাটছে না? ঘরে বসে এই সমস্ত সামগ্রী দিয়ে করুন ডিআইওয়াই আইটেম

ক্রিকেট2 days ago

২০১১ বিশ্বকাপ ফাইনাল: গড়াপেটার অভিযোগে ফৌজদারি তদন্তের নির্দেশ

বিজ্ঞান1 day ago

কোভাক্সিন কী? জেনে নিন বিস্তারিত

বিদেশ2 days ago

ভারত ৫৯টি অ্যাপ নিষিদ্ধ করতেই চিনের জোরালো প্রতিক্রিয়া

নজরে