নয়াদিল্লি : শেষ পর্যন্ত পিছু হঠলেন কলমডি। চাপের মুখে ভারতীয় অলিম্পিক সংস্থার আজীবন সভাপতি পদ তিনি নেবেন না বলে তার আইনজীবীকে দিয়ে জানিয়ে দিয়েছেন সংস্থার প্রাক্তন সভাপতি। মঙ্গলবার অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের আজীবন সভাপতি হিসাবে কলমডি এবং অভয় সিং চৌথালার নাম ঘোষণার পর নড়েচড়ে বসে ক্রীড়ামন্ত্রক। ক্ষুব্ধ ক্রীড়ামন্ত্রী বিজয় গোয়েল সংবাদ সংস্থা এএনআই কে বলেন, কলমডি এবং অভয় চৌথলা পদত্যাগ না করলে বা ভারতীয় অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশন তাদের সরিয়ে না দিলে, ক্রীড়ামন্ত্রকের সঙ্গে সংস্থার কোনও আদান-প্রদান করবে না। এই নিয়ে আইওএ কে একটি শোকজ নোটিশও পাঠায় ক্রীড়া মন্ত্রক। ক্রীড়া মন্ত্রকের মনোভাব আঁচ পেয়েই নিজের আইনজীবীকে দিয়ে সভাপতির পদ তিনি নেবেন না বলে জানিয়ে দেন কলমডি। 

ইন্ডিয়ান অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি থাকাকালীন ২০১০ সালে কমনওয়েলথ গেমস কেলেঙ্কারিতে নাম জড়ায় কলমডির। গেমসে আর্থিক অনিয়ম সহ একাধিক অভিযোগে ২০১১ সালে তাকে গ্রেফতার করে সিবিআই। ১০ মাস জেলও খাটেন এই ক্রীড়া প্রশাসক। মঙ্গলবার তাকে এবং অভয় চৌথালাকে আজীবন সম্মানিক সভাপতি পদে বসানো সিদ্ধান্ত নেয় ভারতীয় অলিম্পিক অ্যাসোশিয়েশন।

প্রশ্ন উঠছে, যেখানে কালো টাকার বিরুদ্ধে জেহাদ ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, সেখানে কী ভাবে কলমডি এবং চৌথালার মতো দুর্নীতি দায়ে অভিযুক্ত ব্যক্তিরা ভারতীয় অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের অজীবন সভাপতি পদের জন্য মনোনিত হলেন? বিজেপির অন্দরেই এই প্রশ্নটি এখন ঘোরাফেরা করছে। 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here