কোহলি মুখ খুললেন, বললেন ড্রেসিং রুমে কী ঘটেছে কিছু বলবেন না

0
497

ত্রিনিদাদ: অনিল কুম্বলের সঙ্গে বিরোধ নিয়ে এই প্রথম মুখ খুললেন বিরাট কোহলি, কিন্তু বিরোধের কারণ নিয়ে কিছু বললেন না।  স্পষ্ট বুঝিয়ে দিলেন, ড্রেসিং রুমে যা ঘটেছে তা তিনি কখনওই প্রকাশ করবেন না।

একটা ক্রিকেট দলের ড্রেসিং রুমে যা ঘটে তা গোপনীয় ব্যাপার এবং নিতান্তই ব্যক্তিগত। ড্রেসিং রুমের এই পবিত্রতাটুকু তো রক্ষা করা উচিত – কোচের পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার পর অনিল কুম্বল যা বলেছেন তার জবাব এ ভাবেই দিলেন অধিনায়ক বিরাট কোহলি। ত্রিনিদাদ থেকে ম্যাচ-পূর্ববর্তী সাংবাদিক সম্মেলনে কোহলি বলেন, “অনিলভাই তাঁর মতামত প্রকাশ করেছেন এবং সরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। আমরা সবাই তাঁর সিদ্ধান্তকে সম্মান জানাই। যা ঘটেছে তা টুর্নামেন্টের ঠিক পরে পরেই ঘটেছে।”

কোহলি বলেন, “একটা কথা নিশ্চিত করে বলতে চাই। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি চলাকালীন আমি ১১টা সাংবাদিক সম্মেলন করেছি। আমরা গত তিন-চার বছর ধরে একটা সংস্কৃতি তৈরি করেছি। তা হল চেঞ্জ রুমে যা-ই ঘটুক, আমরা সব সময় চেঞ্জ রুমের পবিত্রতা রক্ষা করার চেষ্টা করব। গোটা টিম এতেই বিশ্বাস করে। আমাদের কাছে এটাই সব চেয়ে বড়ো ব্যাপার।

“যা বলতে চাই তা হল আমার কাছে সব চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার ড্রেসিং রুমের পবিত্রতা রক্ষা করা এবং চেঞ্জ রুমে যা ঘটে তা আমাদের সকলের কাছে গোপনীয় এবং নিতান্তই ব্যক্তিগত।

“… এবং এটা একটা এমন ব্যাপার যা জনসমক্ষে বিস্তারিত ভাবে প্রকাশ করব না। তাঁর মতামত প্রকাশিত হয়েছে এবং আমরা সেই সিদ্ধান্তকে সম্মান জানাই।”

খেলোয়াড় হিসাবে কুম্বলের অবদানকে তিনি ও তাঁর সহ-খেলোয়াড়রা শ্রদ্ধা করে, এ কথা জানিয়ে কোহলি বলেন, “ক্রিকেটার হিসাবে তাঁর প্রতি এবং দেশের জন্য তাঁর অবদানের প্রতি আমার পূর্ণ শ্রদ্ধা আছে। তিনি এত বছর ধরে খেলে এসেছেন এবং এই ব্যাপারটা তাঁর কাছে থেকে কেড়ে নেওয়া যায় না। আমরা সবাই তাঁকে পরিপূর্ণ ভাবে সম্মান করি।”

কোহলি সচেতন ভাবে পরিষ্কার বুঝিয়ে দেন, কোচ হিসাবে কুম্বলের ভূমিকা সম্পর্কে তিনি কিছু বলবেন না।

টুইট মুছে দিলেন কোহলি

নতুন কোচকে স্বাগত জানিয়ে এক বছর আগে নিজের করা টুইটটি মুছে দিয়েছেন ভারত অধিনায়ক।

গত বছর ২৩ জুন, কুম্বলেকে স্বাগত জানিয়ে টুইট করেছিলেন কোহলি। টুইটে তিনি লিখেছিলেন, “হৃদয় দিয়ে আপনাকে স্বাগত জানাচ্ছি কুম্বলে স্যার। আপনার সঙ্গে কাজ করার জন্য মুখিয়ে রয়েছি। ভারতীয় ক্রিকেটের ভালো সময় শুরু হতে চলেছে।” কিন্তু এখন সেই টুইটটির লিঙ্কে কার্সর ক্লিক করলে ‘নো রেজাল্ট’ আসছে। অর্থাৎ টুইটটি মুছে দিয়েছেন কোহলি। তবে কবে সেই টুইটটি মুখেছেন সে ব্যাপারে কিছু বলা যাবে না।

চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির সময় থেকেই তিক্ততা বাড়ছিল কোহলি এবং কুম্বলের মধ্যে। তাই মনে করা হচ্ছে ওই সময়েই হয়তো টুইটটি মুছেছেন বিরাট।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here