টেস্ট না খেলেও কেন বছরে দু’কোটি ধোনিকে, ইস্তফাপত্রে প্রশ্ন রামচন্দ্র গুহর

0
547

বেঙ্গালুরু: কোচ অনিল কুম্বলে এবং অধিনায়ক বিরাট কোহলির দ্বন্দ্বের মধ্যে বিতর্কের মাত্রা বাড়িয়েছে ইতিহাসবিদ রামচন্দ্র গুহর পদত্যাগ। কুম্বলেকে আর ভারতীয় দলের কোচের পদে রাখা হবে না, এই আন্দাজ করেই সম্ভবত ইস্তফা দিয়েছেন রামচন্দ্র এমনই জল্পনা। এরই মধ্যে নতুন মাত্রা যোগ করল ধোনিকে নিয়ে রামচন্দ্রের প্রশ্ন।

শুক্রবার প্রশাসক কমিটির চেয়ারম্যান বিনোদ রাইকে পাঠানো পদত্যাগপত্রে ধোনির পাশাপাশি দ্রাবিড়ের স্বার্থের সংঘাত নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন এই ইতিহাসবিদ।

টেস্ট খেলেন না, তবুও বছর দু’কোটি কেন ধোনিকে?

টেস্ট না খেলেও, কোন যুক্তিতে বিসিসিআইয়ের গ্রেড এ চুক্তিতে রয়েছেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিংহ ধোনি, এ ব্যাপারে প্রশ্ন ছুড়েছেন গুহ। তাঁর মতে ‘সুপারস্টার সিনড্রোম’-এর জন্যই ধোনি গ্রেড এ-তে চুক্তিবদ্ধ। ভারতীয় ক্রিকেটারদের জন্য যখন নতুন এই চুক্তির তালিকা তৈরি করা হয়েছিল তখন প্রশাসকদলের সদস্য ছিলেন গুহ। তিনি ধোনিকে গ্রেড এ-তে রাখার বিরোধিতা করেছিলেন, এই কথা জানিয়ে বলেন, “আমি আগেও মনে করিয়েছি যে টেস্ট না খেলা সত্ত্বেও ধোনিকে গ্রেড-এ-তে রাখলে ভুল বার্তা যায়।” প্রসঙ্গত ধোনিই এখন একমাত্র টেস্ট না-খেলা ক্রিকেটার যিনি বছরে দু’কোটি টাকা করে পাচ্ছেন।

ভারতীয় যুব দলের পাশাপাশি আইপিএলেও কোচ, স্বার্থের সংঘাতের অভিযোগ দ্রাবিড়ের বিরুদ্ধে

বরাবরের স্বচ্ছ ভাবমূর্তি থাকা প্রকৃত ‘জেন্টলম্যান’ রাহুল দ্রাবিড়ের বিরুদ্ধে স্বার্থের সংঘাতের অভিযোগ এনেছেন গুহ। আইপিএলে দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের সঙ্গে ভারতীয় যুব দলেরও কোচ দ্রাবিড়। সেখানেই প্রশ্ন গুহর। পদত্যাগপত্রে তিনি লিখেছেন, “আমি আগেও বলেছি যে ভারতীয় দলের পাশাপাশি আইপিএলেও কোচিং করানো লোঢা কমিটির নিয়মবিরুদ্ধ। দু’টো আলাদা দায়িত্ব এক জনের পক্ষে সামলানো সম্ভব নয় এবং এর ফলে একটি দলের প্রতিও সুবিচার করা সম্ভব নয়।” গুহর মতে, দেশের স্বার্থ সব সময় আগে রাখা উচিত ক্রিকেটার বা সাপোর্ট স্টাফদের।

খেলোয়াড়দের অত্যধিক ক্ষমতা দেওয়া অনুচিত

কোচ বাছার ব্যাপারে দলে ক্রিকেটারদের বেশি ক্ষমতা দেওয়া উচিত নয় বলে মনে করেন গুহ। ইতিহাসবিদের প্রধান টার্গেট যে ভারত অধিনায়ক সেটা বলাই বাহুল্য। পদত্যাগপত্রে তিনি বলেন, “গত এক বছরে দুর্দান্ত সব সাফল্য পেয়েছে ভারতীয় দল। ক্রিকেটারদের পাশাপাশি কোচদেরও কৃতিত্ব প্রাপ্য।” তাঁর মতে কে কোচ হবেন কে না হবেন সে ব্যাপারে ক্রিকেটারদের কিছু বলার অধিকার দেওয়া উচিত নয়। ক্রিকেটারদের এই মতকে ‘ভেটো ক্ষমতা’র সঙ্গে তুলনা করে গুহ বলেন, “অন্য কোনো দেশের অন্য কোনো খেলায় খেলোয়াড়দের এ রকম ভেটো ক্ষমতা দেওয়া হয় না।”

বিনোদ রাইকে লেখা রামচন্দ্র গুহর চিঠি

বিনোদ রাইকে লেখা রামচন্দ্র গুহর চিঠি

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here