অ্যান্ড্রয়েড ফোনের তথ্য হাতিয়ে নেয় এই ম্যালওয়্যার, হদিশ মিলল ২৩টি অ্যাপে

0

এই ধরনের ম্যালওয়্যার থেকে সুরক্ষিত থাকার জন্য কী করবেন?

২৩টি অ্যাপের মধ্যে এমন একটি সাধারণ ম্যালওয়্যার শনাক্ত হয়েছে, যা অ্যান্ড্রয়েড ফোনের উপর গুপ্তচরবৃত্তি চালাতে সক্ষম। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং কোরিয়ার বাজারে সক্রিয় রয়েছে ফোনস্পাই (PhoneSpy) নামের এই অ্যান্ড্রয়েড ম্যালওয়্যারটি। তবে স্বস্তির বিষয় একটাই, সংক্রামিত অ্যাপ্লগুলোর কোনোটাই গুগল প্লে স্টোরে পাওয়া যাচ্ছে না।

জিম্পেরিয়াম নামে এক মোবাইল সিকিউরিটি এজেন্সি এই ম্যালওয়্যার সম্পর্কে রিপোর্ট করেছে। সংস্থাটি বলেছে, ডিভাইসে দুর্বলতার সুযোগ নিয়ে, অ্যাপের মধ্যে লুকিয়ে থাকে ফোনস্পাই। যোগব্যায়াম শেখা থেকে শুরু করে টিভি এবং ভিডিও দেখা বা ফটো ব্রাউজ করা পর্যন্ত একটি সংশ্লিষ্ট অ্যাপে ছদ্মবেশ ধারণ করে লুকিয়ে থাকতে পারে ওই ম্যালওয়্যার।

ফোটো, কল লগ, কন্ট্যাক্ট এবং মেসেজ-সহ গুরুত্বপূর্ণ ডেটা চুরি করতে, ইনস্টল করা অ্যাপগুলোর সম্পূর্ণ তালিকা পেতে, ফোনে ক্যামেরা এবং মাইক্রোফোন ব্যবহার করে রিয়েল টাইমে অডিও এবং ভিডিও রেকর্ড করতে, আইএমইআই নম্বর, ডিভাইসের নাম এবং ডিভাইসের তথ্য বের করতে সক্ষম ফোনস্পাই ম্যালওয়্যার। শুধু তাই নয়, ব্র্যান্ড এবং ডিভাইসে রিমোর্ট অ্যাক্সেস করতে পারে ফোনস্পাই।

সংস্থার বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “এই ম্যালওয়্যার মোবাইল সিকিউরিটি অ্যাপ-সহ ব্যবহারকারীর ইনস্টল করা যেকোনো অ্যাপ্ল আন-ইনস্টল করতে সক্ষম। ডিভাইসের সুনির্দিষ্ট অবস্থান জেনে নিতে পারে রিয়েল-টাইমে। ব্যবহারকারী জানতেও পারেন না তাঁর উপর কী মারাত্মক ভাবে নজরদারি চলছে। ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম, গুগলের সংগ্রহের জন্য ফিশিং পেজ ব্যবহার করতে পারে ওই ম্যালওয়্যার”।

এই ধরনের ম্যালওয়্যার থেকে সুরক্ষিত থাকার জন্য, কখনোই অবিশ্বস্ত উৎস থেকে তাদের ফোনে অ্যাপ্ল ডাউনলোড করা উচিত নয়। এ ছাড়াও, সন্দেহজনক ই-মেল এবং মেসেজ পাঠানো লিঙ্কগুলিতে কখনোই ক্লিক করা বা অ্যাটাচমেন্ট ডাউনলোড করবেন না।

আরও পড়তে পারেন: ভারতে আটার থেকে সস্তা ডেটা! মোবাইলে সময় নষ্ট করার ক্ষেত্রে সবচেয়ে এগিয়ে ভারতীয়রা: রিপোর্ট

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন