নয়াদিল্লি: সঙ্গে নিয়ে বেরনো যায় মোবাইল, ল্যাপটপ, ট্যাবলেট, স্মার্ট স্পিকার, ওয়্যারলেস এয়ারবাড অথবা স্মার্টওয়াচের মতো বৈদ্যুতিন ডিভাইসগুলি। কিন্তু প্রায়শই সমস্যায় পড়তে হয় চার্জ শেষ হয়ে গেলে। এ ধরনের ডিভাইসগুলিতে একই রকমের চার্জার ব্যবহারের বিষয়টি নিয়ে অনেক দিন ধরেই চিন্তাভাবনা করছে কেন্দ্রীয় সরকার। তবে এর সঙ্গে যেহেতু বিভিন্ন সংস্থা জড়িয়ে রয়েছে, তাই এখনও পর্যন্ত সম্পূর্ণ বাস্তবায়িত হয়নি এই পরিকল্পনা।

এ ধরনের পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য কেন্দ্রের তরফে তিনটি বিশেষজ্ঞ দল গঠন করা হবে বলে ধারাণা করা হচ্ছে। বুধবার এই শিল্পের সঙ্গে সংযুক্ত বিভিন্ন পক্ষের সঙ্গে বৈঠক করে কেন্দ্র। জানা গিয়েছে, এ ধরনের ডিভাইসগুলিতে কী ভাবে একক মানের চার্জার ব্যবহার করা যায়, সে বিষয়ে প্রাথমিক আলোচনা হয় ওই বৈঠকে।

আলোচনায় অংশ নেন কেন্দ্রের উপভোক্তা বিষয় মন্ত্রকের আধিকারিক, বৈদ্যুতিন পণ্য নির্মাতা সংস্থা ও শিল্পে সংগঠনের প্রতিনিধিরা। জানা যায়, আইটি হার্ডওয়্যার নির্মাতারা, যেমন ডেল এবং এইচপি এই পদক্ষেপের বিরোধিতা করে। তবে স্মার্টফোন ব্র্যান্ডগুলি জানায়, তারা ইতিমধ্যেই একটি সাধারণ মান হিসাবে ইউএসবি-সি টাইপ চার্জিং পোর্ট নিয়ে কাজ করছে। তবে ফিচার ফোনের ক্ষেত্রে এই চার্জার প্রযোজ্য হবে না।

সরকারি আধিকারিকরা জানান, কী ভাবে এই একক মান অর্জন করা যায়, তা খতিয়ে দেখার জন্য তিনটি বিশেষজ্ঞ দল গঠন করা হবে। ল্যাপটপ এবং ট্যাবলেট, স্মার্টফোন ও ফিচার ফোন এবং স্মার্টওয়াচে একই ধরনের চার্জার নিয়ে বিস্তৃত গবেষণা করবে ওই তিনটি বিশেষজ্ঞ দল।

স্যামসাং এবং অ্যাপলের মতো স্মার্টফোন নির্মাতা সংস্থার কর্মকর্তা, হার্ডওয়্যার নির্মাতা এইচপি, ডেল, লেনোভো এবং ফিকি, সিআইআই এবং আইসিইএ-এর মতো শিল্প সংগঠনের প্রতিনিধিরা ওই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন। পাশাপাশি ছিলেন আইআইটি-দিল্লি এবং আইআইটি-বিএইচইউ-র প্রতিনিধিরাও।

একেক ল্যাপটপের চার্জার একেক রকম। কারণ, সেগুলির কতটা ‘পাওয়ার’-এর প্রয়োজনীয়তা রয়েছে, তার উপর নির্ভর করে চার্জারও পরিবর্তিত হয়। কিছু ল্যাপটপ ইউএসবি-সি টাইপ চার্জিং উপযুক্ত। কিন্তু সেগুলোর বেশিরভাগের দাম তুলনামূলক বেশি। হাই-এন্ড ল্যাপটপ ব্যারেল-পিন চার্জারের উপর নির্ভর করে। ইউএসবি-সি টাইপটি সর্বশেষ স্ট্যান্ডার্ড, তবে হাই-এন্ড ওয়ার্কস্টেশন এবং গেমিং ল্যাপটপে উচ্চ ক্ষমতার প্রয়োজন হয়। যে কারণে, সেগুলো পাওয়ার-হাংরি সিপিইউ এবং জিপিইউ-তে চলে।

অন্য দিকে, স্মার্টফোন নির্মাতারা জানিয়েছে, বেশিরভাগ অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন ইতিমধ্যেই ইউএসবি-সি চার্জিং-এ চলছে। এটা ইউরোপীয় ইউনিয়নের বাধ্যতামূলক মান অনুযায়ী তৈরি করা হচ্ছে। তবে ফিচার ফোনগুলিতে এখনও মাইক্রো-ইউএসবি চার্জিং পোর্ট ব্যবহার করা হয়। ইউএসবি-সি-তে আপগ্রেড করলে নির্মাতাদের উপর অতিরিক্ত খরচের চাপ পড়বে। ফলে দামও বেড়ে যাবে বলে জানিয়েছে নির্মাতা সংস্থাগুলি।

আরও পড়তে পারেন:

দু’জনেই নাগপুরের বাসিন্দা, আরএসএস-ঘনিষ্ঠ, কেন ফডণবীসকে জায়গা দিতে সরানো হল গডকরীকে

বিহারে পালাবদলের পর প্রথম বার লালু-নীতীশ সাক্ষাৎ

‘তুমি খুশি থাকো’ – শিল্পী-শিক্ষিকা সুপূর্ণা চৌধুরীকে স্মরণ করল ‘ইন্দিরা শিল্পীগোষ্ঠী’

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন