ওয়েবডেস্ক: মঙ্গলবার বাজারে এল আইফোন-১১। কুপার্টিনোর স্টিভ জোবস থিয়েটারে একই দিনে অ্যাপেলের আরও কিছু প্রোডাক্ট লঞ্চ হয়েছে। এ দিনেই বাজারে এসেছে ১০.২ ইঞ্চির আইপ্যাড আর ‘অ্যাপেল ওয়াচ সিরিজ ৫’। দুই ক্যামেরা-সহ আরও আকর্ষণীয় ফিচার রয়েছে নতুন এই ফোনে। দামও সে রকমই। ইতিমধ্যেই তো অনেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় বলাবলি শুরু করে দিয়েছেন যে এই ফোন কিনতে গেলে আগে হৃদযন্ত্রটি বেচে দিতে হবে। যাই হোক, এই ফোনের দাম-সহ কী কী ফিচার রয়েছে একবার দেখে নেওয়া যাক।

১) ভারতে আইফোন ১১-এর দাম শুরু ৬৮,৩০০ টাকা থেকে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে এটি শুরু হচ্ছে ৬৯৯ ডলার, অর্থাৎ ভারতীয় মুদ্রায় ৫০ হাজার টাকা থেকে।

২) ১৩ সেপ্টেম্বর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র-সহ বিশ্বের ৩০টি দেশে এই ফোনের প্রি-অর্ডার শুরু হবে। বিক্রি শুরু ২০ সেপ্টেম্বর থেকে।

৩) আইফোন ১১ -এ রয়েছে একটি এ-১৩ বায়োনিক চিপ। সংস্থার দাবি, বিশ্বের দ্রুততম সিপিইউ আর দ্রুততম জিপিইউ রয়েছে এই ফোনে। ফোনটি চলবে আইওএস-১৩ অপারেটিং সিস্টেমে।

৪) আইফোন ১১-এর বেস ভেরিয়েন্টে থাকছে ৬৪ জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ।

৫) মোট ছ’টি রঙে পাওয়া যাবে নতুন আইফোন ১১

৬) আইফোন ১১-এ থাকবে একটি ৬.১ ইঞ্চি লিকুইড রেটিনা ডিসপ্লে।

৭) আইফোন ১১-এ রয়েছে ১২ মেগাপিক্সেল এর দুটি ক্যামেরা। এর রিয়ার ক্যামেরার সাহায্যে ৬০ ফ্রেম প্রতি সেকেন্ড স্পিডে ভিডিও রেকর্ড করা যাবে। উচ্চমানের পোট্রেট মোড, নাইট ভিশন মোড-সহ একাধিক আকর্ষণীয় ফিচার রয়েছে এই ফোনে। সেলফি তোলার জন্য এই ফোনে রয়েছে ১২ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। এই সেলফি ক্যামেরায় রয়েছে স্লো-মো ভিডিও রেকর্ডিং ফিচার।

আমাজন থেকে কিনতে ক্লিক করুন এখানে

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন