Connect with us

প্রযুক্তি

নতুন অ্যাপ ‘সেল্‌ফ স্ক্যান’ নিয়ে এল রাজ্য সরকার! এর কাজ কী?

এই অ্যাপটি নিখরচায় ইনস্টল করা যাবে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী

কলকাতা: নতুন একটি অ্যাপ ‘সেল্‌ফ স্ক্যানে’র (Self Scan) আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। এই অ্যাপটি নিখরচায় ইনস্টল করা যাবে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

নতুন অ্যাপটির কাজ কী?

এ দিন নবান্নে অ্যাপটির উদ্বোধন করে মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেন, রাজ্যের তথ্যপ্রযুক্তি দফতর এই নতুন অ্যাপটি তৈরি করেছে।

ওয়াকিবহাল মহলের মতে, জনপ্রিয় চিনা অ্যাপ ‘ক্যাম স্ক্যানারে’র (camscanner app) মতোই কাজ করবে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের উদ্যোগে তৈরি অ্য়াপটি। অর্থাৎ, নথিপত্র স্ক্যান করবে এই অ্যাপ। স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরে এই অ্যাপ নিজের মোবাইলে ইনস্টল করতে পারবেন।

মুখ্যমন্ত্রীর কথায়

রাজ্যের তথ্যপ্রযুক্তি দফতরের তৈরি এই অ্যাপটি যে কেউ বিনামূল্যে নিজের মোবাইলে ইনস্টল করতে পারবেন। রাজ্যে তৈরি এই অ্যাপ সারা দেশকে পথ দেখাবে। এমনকী দেশের সীমানা ছাড়িয়ে আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে এটি জনপ্রিয়তা আদায় করে নেবে বলে আশাপ্রকাশ করেন তিনি।

তিনি বলেন, “আমি সব সময় আমার দেশে তৈরি একটা অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করতে চাই। এটা দেশপ্রেমের প্রতিফলন ঘটায়। বাংলা আজ যা ভাবছে, সমগ্র বিশ্ব আগামীকাল তা ভাবে।”

কেন্দ্রের উদ্যোগ

বিশ্বমানের ভারতীয় অ্যাপ তৈরির উদ্দেশে ‘আত্মনির্ভর ভারত অ্যাপ ইনোভেশন চ্যালেঞ্জ’ (Aatmanirbhar Bharat App Innovation Challenge) চালু করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi)।

কেন্দ্রীয় বিদ্যুতিন এবং তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রক এবং অটল ইনোভেশন মিশনের উদ্যোগে এই কর্মসূচিটি নেওয়া হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, “আজ বিশ্বমানের মেড ইন ইন্ডিয়া অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করার জন্য প্রযুক্তি ও স্টার্ট-আপ সম্প্রদায়ের মধ্যে প্রচুর উৎসাহ রয়েছে। তাদের ধারণা এবং পণ্যগুলির সুবিধার্থে ভারত সরকার এই অ্যাপ উদ্ভাবনী চ্যালেঞ্জ চালু করছে”।

অন্য ইঙ্গিত!

ভারত-চিন সীমান্ত উত্তেজনার আবহে ৫৯টি চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করেছে ভারত সরকার। অ্যাপগুলি নিষিদ্ধ করার কারণ হিসাবে কেন্দ্রীয় সরকার জানিয়েছে,  “ভারতের সার্বভৌমত্ব ও সংহতি, প্রতিরক্ষা, রাষ্ট্রের নিরাপত্তা এবং জনশৃঙ্খলার পক্ষে ক্ষতিকর” ৫৯টি অ্যাপ নিষিদ্ধ করা হল।”

কেন্দ্রের নিষিদ্ধ তালিকায় রয়েছে ক্যাম স্ক্যানার নামে নথিপত্র স্ক্যান করার একটি অ্যাপ। স্বাভাবিক ভাবেই ওই অ্যাপ নিষিদ্ধ হওয়ার পর ভারতের ব্যবহারকারীরা যে এর বিকল্পের সন্ধান করবেন, তা স্বাভাবিক। সেই জায়গায় বাংলার তৈরি সেলফ স্ক্যানার কতটা জনপ্রিয়তা পায়, সেটাই দেখার!

Advertisement
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

প্রযুক্তি

হ্যাকার এবং সাইবার অপরাধীরা করোনার সুযোগ নিচ্ছে : বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

সতর্ক করল ‘হু’, কী ভাবে কোনো ব্যক্তি অথবা সংগঠনের বৈধতা যাচাই করবেন?

ছবি: বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার সৌজন্যে

ওয়েবডেস্ক: করোনাভাইরাস (Coronavirus) সংক্রমণের আবহে ছদ্মবেশী প্রতারকরাও যথেষ্ট সক্রিয় হয়ে উঠেছে। নিজের পোর্টালে বিশ্ব সাস্থ্য সংস্থা (WHO) জানাচ্ছে, হ্যাকার এবং সাইবার অপরাধীরা প্রতারণার উদ্দেশে ইমেল এবং হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজ পাঠিয়ে কোভিড-১৯ মহামারির (Covid-19 pandemic) সুযোগ নিচ্ছে। এ ধরনের বিপজ্জনক লিঙ্কগুলি ক্লিক করলে আর্থিক-সহ অন্যান্য ক্ষতির সম্মুখীন হওয়ার সমূহ আশঙ্কা রয়েছে।

এই ধরনের লিঙ্কগুলি ক্লিক করে কোনো পদক্ষেপ নিলে নিজের ইউজার নেম এবং পাসওয়ার্ড প্রকাশ্যে চলে আসতে পারে। যা দিয়ে আর্থিক জালিয়াতি অথব গুরুত্বপূর্ণ তথ্য হাতিয়ে নিতে পারে প্রতারকরা।

হু বলছে, যদি কোনো ব্যক্তি অথবা সংগঠনে হু-এর হয়ে আপনার সঙ্গে যোগাযোগ করেন, তা হলে তাঁর সত্যতা যাচাই করুন।

যা মাথায় রাখতে হবে:

১. হু কাউকে সুরক্ষার তথ্য দেওয়ার জন্য কখনও আপনার ইউজার নেম বা পাসওয়ার্ড জানতে চায় না।

২. হু কখনোই কোনো প্রশ্নের জন্য ই-মেল অ্যাটাচ করতে বলে না।

৩. কোনো কাজের আবেদনের জন্য, কনফারেন্সে নাম রেজিস্টার করার জন্য বা কোনো হোটেল ভাড়া করার জন্য হু কখনোই টাকা দাবি করে না।

৪. হু কখনও লটারি পরিচালনা করে না বা ইমেলের মাধ্যমে পুরষ্কার, অনুদান, শংসাপত্র বা তহবিল সরবরাহ করে না।

যাচাই করবেন কী ভাবে?

হু বলছে, অপরাধীরা তাদের জালিয়াতির জন্য ইমেল, ওয়েবসাইট, ফোন কল, টেক্সট মেসেজ এবং এমনকী ফ্যাক্স বার্তা ব্যবহার করে। এ ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে। হু-র সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ করে এ ধরনের ব্যক্তি অথবা সংগঠনের বৈধতা যাচাই করে নিতে পারেন।

১. হু-র সঙ্গে যোগাযোগ করতে এই লিঙ্কে ক্লিক করুন: Contact WHO

২. কোনো প্রতারণার বিষয়ে রিপোর্ট করতে এখানে ক্লিক করুন: Report a scam

Continue Reading

প্রযুক্তি

শাওমি, বাইডু-সহ আরও বেশ কয়েকটি চিনা সংস্থার অ্যাপ নিষিদ্ধ করল কেন্দ্র

শাওমির বেশিরভাগ স্মার্টফোনে মাই-ব্রাউজার আগে থেকেই ইনস্টল করা থাকে।

প্রতীকী ছবি

নয়াদিল্লি: চিনের সঙ্গে সীমান্ত সংঘর্ষের জেরে প্রতিবেশী দেশের বেশ কয়েকটি মোবাইল অ্যাপ নিষিদ্ধ করেছিল ভারত সরকার। বুধবার রয়টার্সের একটি প্রতিবেদনে দাবি করা হয়, ফের একবার একই ধরনের পদক্ষেপে শাওমি, বাইডু-সহ আরও বেশ কয়েকটি চিনা সংস্থার অ্যাপকে নিষিদ্ধ করেছে কেন্দ্রীয় সরকার।

তিনটি সূত্রে উদ্ধৃত করে রয়টার্স জানায়, শাওমি (Xiaomi) এবং বাইডুর (Baidu) মতো চিনের বেশ কয়েকটি সংস্থার মোবাইল অ্যাপ নিষিদ্ধ করেছে ভারত। গত জুন মাসে দেশের “সার্বভৌমত্ব এবং অখণ্ডতা” বজায় রাখতে বাইটড্যান্স, টিকটিক (TikTok), ইউসি ব্রাউজার এবং শাওমির মাই কমিউনিটি অ্যাপ (Mi Community app)-সহ সবমিলিয়ে ৫৯টি চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করে কেন্দ্রীয় সরকার।

এর কয়েক সপ্তাহ পরে দ্বিতীয় দফার নিষিদ্ধ তালিকায় উঠে আসে আরও ৪৭টি অ্যাপ। যেগুলি মূলত প্রথম ধাপে নিষিদ্ধ ঘোষিত হওয়া জনপ্রিয় অ্যাপের ক্লোন বা ইতিমধ্যে নিষিদ্ধ অ্যাপ্লিকেশনগুলির ভিন্ন সংস্করণ।

তবে জুনের পদক্ষেপটির পর সরকার নিজের সর্বশেষ সিদ্ধান্তটি সর্বসাধারণের কাছে প্রকাশ করেনি। তবে শাওমির মাই ব্রাউজার প্রো (Xiaomi’s Mi Browser Pro) এবং বাইডুর সার্চ অ্যাপ্লিকেশনগুলি ( search apps)-সহ কয়েকটি নতুন অ্যাপ্লিকেশন নতুন তালিকায় স্থান পেয়েছে বলে সূত্রটি জানিয়েছে।

স্বাভাবিক ভাবেই এখনও স্পষ্ট নয়, নতুন পদক্ষেপে ঠিক কতগুলি অ্যাপ প্রভাবিত হয়েছে। এ ব্যাপারে রয়টার্সের তরফে কেন্দ্রীয় তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রক এবং চিনা দূতাবাসের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও কোনো জবাব মেলেনি।

তবে শাওমির এক ভারতীয় প্রতিনিধি জানান, সরকারি পদক্ষেপ সম্পর্কে সংস্থা বোঝার চেষ্টা করেছে এবং যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। কিন্তু বাইডুর কোনো প্রতিনিদি মন্তব্য করতে রাজি হননি।

এখানে ক্লিক করে পড়তে পারেন: নিষিদ্ধ চিনা অ্যাপ

প্রসঙ্গত, শাওমির বেশিরভাগ স্মার্টফোনে মাই-ব্রাউজার আগে থেকেই ইনস্টল করা থাকে। তবে এই অ্যাপের উপর নিষেধাজ্ঞার ফলে চিনা সংস্থাটিকে ভারতে বিক্রি হওয়া নতুন মোবাইলে এটির ইনস্টল বন্ধ করতে হবে।

Continue Reading

প্রযুক্তি

অনলাইন জালিয়াতি থেকে সাবধান! গ্রাহকদের সতর্ক করল এসবিআই

দেখে নিন, কী করবেন আর কী করবেন না?

SBI
এসবিআই। প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: দেশের বৃহত্তম রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া (SBI) ফিশিং হানার বিরুদ্ধে নিজের গ্রাহকদের সতর্ক করছে। করোনাভাইরাস মহামারির (Coronavirus pandemic) কারণে রীতিমতো গৃহবন্দি হয়ে পড়া মানুষ অনলাইন লেনদেনে নির্ভরশীল হয়ে পড়েছেন। ফলে ব্যবহারকারীর সংখ্যা বাড়ার সঙ্গেই অনলাইনে প্রতারকের সংখ্যাও পাল্লা দিয়ে বাড়ছে।

এসবিআই জানিয়েছে, এ মুহূর্তে সাত কোটি ৩৫ লক্ষ গ্রাহক ইন্টারনেট ব্যাঙ্কিং পরিষেবা ব্যবহার করছেন। অন্য দিকে ১ কোটি ৭০ লক্ষ গ্রাহক মোবাইল ব্যাঙ্কিং পরিষেবা ব্যবহার করছেন। তাঁদের উদ্দেশেই নিজের অ্যাকাউন্ট সুরক্ষিত করার ব্যবস্থা নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছে এসবিআই।

এসবিআই একটি টুইটে জানিয়েছে, “ফিশারদের থেকে সাবধান! আপনি ইন্টারনেটে প্রাপ্ত সমস্ত রকমের যোগাযোগ সম্পর্কে সতর্ক থাকুন। নিরাপদে থাকার জন্য এই সাধারণ সুরক্ষা ব্যবস্থা অনুসরণ করুন”।

ফিশিং (phishing) কী?

ভুয়ো ই-মেল অথবা ওয়েবসাইটের মাধ্যমে কোনো ভুক্তভোগীকে ফাঁদে ফেলে প্রতারকরা। ওই সমস্ত ক্ষেত্রে লগ-ইন করতে গিয়ে ঠিকানা, যোগাযোগ নম্বর, জন্মতারিখ ব্যবহারের ফলে ব্যক্তিগত তথ্য হাতিয়ে নেয় ফিশাররা। নিজের ই-মেল অ্যাকাউন্টে আসা এ ধরনের ই-মেল অথবা ওয়েবলিঙ্কগুলি ক্লিক করার আগে সতর্ক থাকতে হবে। সেগুলি প্রকৃত, না কি ভুয়ো তা খতিয়ে দেখতে হবে।

কী করতে হবে?

১. অজানা প্রেরকের কাছ থেকে আসা কোনো ফাইলের ডাউনলোড এড়িয়ে চলতে হবে।

২. নিজের ব্যক্তিগত তথ্য কাউকে পাঠানোর আগে তার ই-মেল আইডি খতিয়ে দেখতে হবে।

৩. অ্যান্টিভাইরাস, অ্যান্টিস্পাইওয়্যার এবং ফায়ারওয়্যাল সফটওয়্যার ব্যবহার করতে হবে।

৪. নিয়মিত নিজের ওয়েব ব্রাউজারটি আপডেট করতে হবে। ফিশিং ফিল্টার সক্রিয় রাখতে হবে।

কী করবেন না?

১. সন্দেহজনক কোনো ই-মেল অথবা সোশ্যাল মিডিয়া মেসেজে প্রত্যুত্তর দেবেন না।

২. ব্যক্তিগত কাজে সংস্থার ই-মেল আইডি ব্যবহার করবেন না।

৩. ব্যাঙ্কের তথ্য জানতে চাওয়া ফোনের উত্তর দেবেন না।

৪. আচমকা কোনো পুরস্কারের সুযোগ নিতে নিজের ব্যক্তিগত তথ্য কাউকে বলবেন না।

Continue Reading
Advertisement
Advertisement

রবিবারের খবর অনলাইন

কেনাকাটা

কেনাকাটা4 days ago

ঘর ও রান্নাঘরের সরঞ্জাম কিনতে চান? অ্যামাজন প্রাইম ডিলে রয়েছে ৫০% পর্যন্ত ছাড়

খবরঅনলাইন ডেস্ক : অ্যামাজন প্রাইম ডিলে রয়েছে ঘর আর রান্না ঘরের একাধিক সামগ্রিতে প্রচুর ছাড়। এই সেলে পাওয়া যাচ্ছে ওয়াটার...

কেনাকাটা4 days ago

এই ১০টির মধ্যে আপনার প্রয়োজনীয় প্রোডাক্টটি প্রাইম ডে সেলে কিনতে পারেন

খবরঅনলাইন ডেস্ক : চলছে অ্যামাজনের প্রাইমডে সেল। প্রচুর সামগ্রীর ওপর রয়েছে অনেক ছাড়। ৬ ও ৭  তারিখ চলবে এই সেল।...

কেনাকাটা4 days ago

শুরু হল অ্যামাজন প্রাইম ডে সেল, জেনে নিন কোন জিনিসে কত ছাড়

খবরঅনলাইন ডেস্: শুরু হল অ্যামাজন প্রাইম ডে সেল। চলবে ২ দিন। চলতি মাসের ৬ ও ৭ তারিখ থাকছে এই অফার।...

things things
কেনাকাটা1 week ago

করোনা আতঙ্ক? ঘরে বাইরে এই ১০টি জিনিস আপনাকে সুবিধে দেবেই দেবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : করোনা পরিস্থিতিতে ঘরে এবং বাইরে নানাবিধ সাবধানতা অবলম্বন করতেই হচ্ছে। আগামী বেশ কয়েক মাস এই নিয়মই অব্যাহত...

কেনাকাটা2 weeks ago

মশার জ্বালায় জেরবার? এই ১৪টি যন্ত্র রুখে দিতে পারে মশাকে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: একে করোনা তায় আবার ডেঙ্গুর প্রকোপ শুরু হয়েছে। এই সময় প্রতি বারই মশার উৎপাত খুবই বাড়ে। এই বারেও...

rakhi rakhi
কেনাকাটা2 weeks ago

লকডাউন! রাখির দারুণ এই উপহারগুলি কিন্তু বাড়ি বসেই কিনতে পারেন

সামনেই রাখি। কিন্তু লকডাউনের মধ্যে মনের মতো উপহার কেনা একটা বড়ো ঝক্কি। কিন্তু সেই সমস্যা সমাধান করতে পারে অ্যামাজন। অ্যামাজনের...

কেনাকাটা3 weeks ago

অনলাইনে পড়াশুনা চলছে? ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ৪০ হাজার টাকার নীচে ৬টি ল্যাপটপ

ইনটেল প্রসেসর সহ কোন ল্যাপটপ আপনার অনলাইন পড়াশুনার কাজে লাগবে জেনে নিন।

কেনাকাটা3 weeks ago

করোনা-কালে ঘরে রাখতে পারেন ডিজিটাল অক্সিমিটার, এই ১০টির মধ্যে থেকে একটি বেছে নিতে পারেন

শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা বুঝতে সাহায্য করে এই অক্সিমিটার।

কেনাকাটা3 weeks ago

লকডাউনে সামনেই রাখি, কোথা থেকে কিনবেন? অ্যামাজন দিচ্ছে দারুণ গিফট কম্বো অফার

খবরঅনলাইন ডেস্ক : সামনেই রাখি। কিন্তু লকডাউনের মধ্যে দোকানে গিয়ে রাখি, উপহার কেনা খুবই সমস্যার কথা। কিন্তু তা হলে উপায়...

laptop laptop
কেনাকাটা4 weeks ago

ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ২৫ হাজার টাকার মধ্যে এই ৫টি ল্যাপটপ

খবরঅনলাইন ডেস্ক : কোভিভ ১৯ অতিমারির প্রকোপে বিশ্ব জুড়ে চলছে লকডাউন ও ওয়ার্ক ফ্রম হোম। অনেকেই অফিস থেকে ল্যাপটপ পেয়েছেন।...

নজরে

Click To Expand