Connect with us

প্রযুক্তি

প্রতি ঘণ্টায় ২০০ কিলোমিটার গতিসম্পন্ন রেল ইঞ্জিন কোথায় তৈরি হল?

কলকাতা: দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি প্রথম সর্বাধিক গতির রেল ইঞ্জিন নিয়ে এল পশ্চিমবঙ্গের চিত্তরঞ্জন লোকোমোটিভ ওয়ার্কস (সিএলডব্লিউ)। এই দ্রুতগতির ইঞ্জিনের ছোটার ক্ষমতা প্রতি ঘণ্টায় ২০০ কিলোমিটার। সিএলডব্লিউ দীর্ঘদিন ধরেই যাত্রীবাহী ট্রেনের জন্য ৫৪০০ অশ্বশক্তিসম্পন্ন ডব্লিউএপি-৫ ইঞ্জিন তৈরি করে আসছে। এই ইঞ্জিন ঘণ্টায় সর্বাধিক ১৬০ কিমি গতি তুলতে পারে। সেই ডব্লিউএপি-৫ ইঞ্জিনের নতুন করে নকশা করা হয়েছে। সংস্থার এক […]

Published

on

কলকাতা: দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি প্রথম সর্বাধিক গতির রেল ইঞ্জিন নিয়ে এল পশ্চিমবঙ্গের চিত্তরঞ্জন লোকোমোটিভ ওয়ার্কস (সিএলডব্লিউ)। এই দ্রুতগতির ইঞ্জিনের ছোটার ক্ষমতা প্রতি ঘণ্টায় ২০০ কিলোমিটার। সিএলডব্লিউ দীর্ঘদিন ধরেই যাত্রীবাহী ট্রেনের জন্য ৫৪০০ অশ্বশক্তিসম্পন্ন ডব্লিউএপি-৫ ইঞ্জিন তৈরি করে আসছে। এই ইঞ্জিন ঘণ্টায় সর্বাধিক ১৬০ কিমি গতি তুলতে পারে। সেই ডব্লিউএপি-৫ ইঞ্জিনের নতুন করে নকশা করা হয়েছে।

সংস্থার এক জন প্রবীণ আধিকারিক বলেন, নতুন নকশার ডব্লিউএপি-৫ ইঞ্জিন এরোডিনামিক অর্থাৎ অত্যধিক গতিতে বাতাস কম টানে, যার ফলে শক্তিকে অনেক ভালো ভাবে কাজে লাগায় এবং খুব দ্রুত গতিতে চলার সময় এই ইঞ্জিন অনেক বেশি স্থিতিশীল। চালকের জায়গাটিও এক দম আধুনিক। সব থেকে বেশি গতি অর্থাৎ ২০০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা গতির সঙ্গে খাপ খাইয়ে নেওয়ার মতো উচ্চ শক্তিসম্পন্ন এর গিয়ারের ব্যবস্থাও। এই ইঞ্জিন ব্যবহার করা হবে দূরপাল্লার গাড়ি রাজধানী, শতাব্দী, গতিমানের জন্য।

Loading videos...

এই নতুন ইঞ্জিনে রয়েছে কর্মীদের গলার শব্দ আর ভিডিও রেকর্ড করার ব্যবস্থা। রয়েছে মাইক্রোফোন, ক্যামেরা। ভেতরে আর বাইরে সব জায়গাতেই আছে ক্যামেরা আর মাইক্রোফোনের ব্যবস্থা, যাতে ভেতরে কর্মীদের আচরণ, কথাবার্তা রেকর্ড করা যায় আর বাইরের সিগন্যাল ব্যবস্থার সমস্ত পদ্ধতি ঠিকঠাক ভাবে রেকর্ড করা যায়।

রেলের গ্রুপ ডি পরীক্ষার প্রশ্নোত্তর : পর্ব ২৫

বিশ্বের সব চেয়ে বৃহৎ লোকোমোটিভ প্রস্তুতকারক সংস্থা সিএলডব্লিউ ২০১৭-১৮ সালে সংস্থা ৩২৫টি রেল ইঞ্জিন তৈরি করেছে। বারাণসীর ডিজেল লোকোমোটিভ ওয়ার্কসকে ২৫টি ইঞ্জিন তৈরি করতে সাহায্য করেছে।

এই বছরের বাজেট পেশের সময় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি এই এই ধরনের উচ্চগতি  সম্পন্ন ইঞ্জিন তৈরির ব্যাপারে ঘোষণা করেছিলেন। সব মিলিয়ে ৫৭৩টি এই জাতীয় ইঞ্জিন তৈরির কথা বলেন তিনি।

প্রযুক্তি

Covid Vaccination: ৮ মে থেকে কো-উইন সিস্টেমে জুড়ছে নতুন ফিচার

কো-উইন অ্যাপে অ্যাপয়েন্টমেন্ট পাওয়ার পর টিকাকেন্দ্রে যাওয়ার আগে অবশ্যই মনে রাখবেন…

Published

on

খবর অনলাইন ডেস্ক: টিকাকরণ সম্পর্কে তথ্যগত ত্রুটি এড়াতে এবং নাগরিকদের অসুবিধা দূর করতে নতুন ফিচার জুড়ছে কো-উইন সিস্টেমে। স্বাস্থ্যমন্ত্রক জানিয়েছে, আগামী ৮ মে থেকে কো-উইনে চার সংখ্যার নতুন সিকিউরিটি কোড যুক্ত হতে চলেছে।

কিছু ক্ষেত্রে দেখা গিয়েছে যে, কোভিড-১৯ ভ্য়াকসিনের জন্য কো-উইন পোর্টালে বুক করেও কেউ কেউ নির্ধারিত দিনে টিকাকেন্দ্রে যাচ্ছেন না এসএমএস-এর মাধ্যমে তাঁদের বিষয়টি জানানো সত্ত্বেও না যাওয়ার কারণে নির্দিষ্ট টিকা তাঁদের দেওয়া যাচ্ছে না।

Loading videos...

দেখা যাচ্ছে তথ্যগত ত্রুটি

এ ভাবে একটা বড়ো অংশের মানুষের টিকাকরণ সংক্রান্ত তথ্যে ত্রুটি দেখা যাচ্ছে। সংশ্লিষ্ট কর্মী টিকাকরণের তথ্য আপডেট করতে গিয়ে এ ব্যাপারে ভুল করে ফেলছেন। অর্থাৎ, পোর্টালে কে নাম লিখিয়েছিলেন আর কাকে টিকা দেওয়া হল, সে ব্যাপারে বিভ্রান্ত হচ্ছেন টিকাকর্মীরা।

মন্ত্রকের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, এ ধরনের ত্রুটি হ্রাস করতে কো-উইন সিস্টেমে নতুন একটি ফিচার অন্তর্ভুক্ত করা হচ্ছে। ৮ মে থেকে কো-উইন অ্যাপ্লিকেশনে একটি চার সংখ্যার সিকিউরিটি কোড ব্যবহার করা হবে।

এ বার থেকে ভেরিফিকেশনের পর টিকার জন্য আবেদনকারীর যোগ্যতা পূরণ হলে যাচাইকারী অথবা ভ্যাকসিনেটর তাঁর কাছ থেকে ওই চার সংখ্যার সিকিউরিটি কোড চাইবেন। ওই একই কোড কো-উইন সিস্টেমে দেওয়া হলে টিকাকরণের সঠিক তথ্য রেকর্ড করা যাবে।

কী ভাবে পাওয়া যাবে কোড?

মনে রাখতে হবে, এই নতুন ফিচার শুধুমাত্র তাঁদের ক্ষেত্রেই কার্যকর হবে, যাঁরা টিকার জন্য স্লট বুকিং করতে অনলাইনে আবেদন জানাবেন।

চার সংখ্যার এই সিকিউরিটি কোড অ্যাপয়েন্টমেন্ট অ্যাকনলেজমেন্ট স্লিপের উপরেই ছাপা থাকবে, যা টিকাকর্মী আগে থেকে জানতে পারবেন না। এ ছাড়া আবেদনকারীকে যে কনফার্মেশন এসএমএস পাঠানো হবে, সেথানেও কোডটি জানিয়ে দেওয়া হবে।

নাগরিকদের উদ্দেশে পরামর্শ

স্বাস্থ্যমন্ত্রক জানিয়েছে, কোনো ব্য়ক্তি টিকার জন্য আবেদন জানিয়ে স্লট পাওয়ার পর আদৌ তিনি টিকা নিলেন কি না, সেই তথ্য এ বার সঠিক ভাবে আপডেট সম্ভব হবে নতুন এই ফিচারের মাধ্যমে। পাশাপাশি কো-উইন সিস্টেমের অপব্যবহারকেও রোধ করবে।

নাগরিকদের উদ্দেশে মন্ত্রকের পরামর্শ, কো-উইন থেকে স্লট বুকিংয়ের পর টিকাকেন্দ্রে যাওয়ার সময় অবশ্যই অ্যাপয়েন্টমেন্ট স্লিপটি সঙ্গে রাখতে হবে। সেটা ডিজিটাল বা প্রিন্ট করেও নিয়ে যাওয়া যেতে পারে। সঙ্গে রেজিস্টার্ড মোবাইলে আসা কনফার্মেশন এসএমএস-টিও সঙ্গে রাখতে হবে।

আরও পড়তে পারেন: চলতি বছরে ভারতে ২৮,০০০ ফ্রেশার নিচ্ছে কগনিজ্যান্ট

Continue Reading

প্রযুক্তি

কী কাণ্ড! অনলাইনে প্রেম করতেও ভ্যাকসিন? ডেটিং অ্যাপের নতুন মাপকাঠি

এমনই একটি নতুন এবং গুরুত্বপূর্ণ ‘মাপকাঠি’ যুক্ত হয়েছে অনলাইন ডেটিংয়ে।

Published

on

খবর অনলাইন ডেস্ক: ডেটিং অ্যাপ (Dating App) আগের তুলনায় এখন আরও জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। শুধু বর্তমান কোভিড পরিস্থিতিই নয়, এর আগেও বিশ্ব জুড়ে অনলাইন ডেটিংয়ের রমরমা ছিল।

প্রথম দিকে দেখা গিয়েছিল, কারও চোখের দিকে তাকিয়ে মনের খিদে মেটানো, নিজেদের মনের কথা ভাগ করে নেওয়া অথবা দুর্দান্ত কিছু হাস্যরসাত্মক আলাপচারিতায় উপচে পড়ছে অনলাইন প্রেম। কিন্তু এখন একটি নতুন এবং গুরুত্বপূর্ণ ‘মাপকাঠি’ যুক্ত হয়েছে অনলাইন ডেটিংয়ে।

Loading videos...

ভ্যাকসিন স্ট্যাটাস

‘টিন্ডার’, ‘বাম্বল’, ‘ওকে কিউপিড’-এর মতো জনপ্রিয় ডেটিং অ্যাপের মাধ্যমে সংগৃহীত তথ্য অনুযায়ী, একটা বড়ো অংশের ব্যবহারকারী এমনটাও জানাচ্ছেন, তাঁরা কোভিড-১৯ টিকা নিয়েছেন। সঙ্গে নিজের ভবিষ্যতের সঙ্গীকে ভ্যাকসিন উপহার দেওয়ার আশা প্রকাশ করতেও ছাড়ছেন না অনেকে।

গার্ডিয়ান-এর প্রতিবেদন অনুযায়ী, ‘এলেট ডেট’ নামে একটি অ্যাপ ‘ভ্যাকসিন স্ট্যাটাস’কে পৃথক ‘মাপকাঠি’ হিসাবে যুক্ত করেছে। যাতে এর ভিত্তিতে টিকা নেওয়া ব্যবহারকারীদের সহজে বেছে নেওয়া যায়।

নিজের মতো কাউকে বেছে নেওয়ার জন্য ব্যবহারকারীরা সেখানে ‘ভ্যাকসিনেশন’, ‘শটস’ ইত্যাদির মতো শব্দগুলি ব্যবহার করছেন। আবার যাঁরা ভ্যাকসিন নিতে আগ্রহী নন, অনলাইন ডেটিংয়ে তাঁদের প্রত্যাখ্যান করার মতোও ঘটনা ধরা পড়েছে।

বাড়তি আগ্রহের কারণ

ওকে কিউপিড-এর মুখপাত্র মাইকেল কায়ে বলেছেন, এখন অনলাইন ডেটিং অ্যাপ ব্যবহারকারীদের কাছে সব থেকে গরমাগরম ব্যাপার হল টিকাকরণ। তিনি দাবি করেছেন, যাঁরা টিকা নিয়েছেন, তাঁরা খুব দ্রুত নিজের ‘পছন্দ’ বেছে নিতে পারছেন।

এলেট ডেট-এর প্রতিষ্ঠাতা সঞ্জয় পঞ্চাল সংবাদ সংস্থাটিকে বলেছেন, “আপনি যদি জানিয়ে দেন, নিজে টিকা নিয়েছেন, তা ব্যাপারটা কিছুটা নমনীয় হয়ে উঠছে। আমাদের গবেষণায় দেখা গিয়েছে, টিকা নেওয়ার বিরুদ্ধে থাকা কাউকে বেছে নিতে আপত্তি জানাচ্ছেন ৬০ শতাংশের বেশি ব্যবহারকারী”।

সংশ্লিষ্ট মহলের দাবি, এ ধরনের ডেটিং অ্যাপগুলি সর্বতো ভাবে ব্যবহারকারীদের সুরক্ষা দিয়ে থাকে। স্বাভাবিক ভাবেই কোনো ব্যবহারকারী যদি টিকা নিয়ে থাকেন, তা হলে তিনি যে অন্যের কাছে বাড়তি আগ্রহের কারণ হয়ে উঠবেন, তাতে অবাক হওয়ার কিছু নেই। এ ধরনের কিছু অ্যাপ আবার ভিডিও কলের সুবিধাও দিচ্ছে।

আরও পড়তে পারেন: ডেটিং অ্যাপ ব্যবহারে সাবধান! কয়েক লক্ষ ছবি, চ্যাট-সহ ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁস

Continue Reading

প্রযুক্তি

বাড়ির কাছাকাছি রেশন দোকান কোনটা, খুব সহজেই জেনে নিতে পারেন ‘মেরা রেশন’ মোবাইল অ্যাপ থেকে

যাঁরা বাড়ি বদল করেছেন, তাঁরা খুব সহজেই নিজের নতুন ঠিকানার কাছাকাছি রেশন দোকানের অবস্থান জেনে নিতে পারবেন এই অ্যাপের মাধ্যমে।

Published

on

খবর অনলাইন ডেস্ক: বাড়ি বদল করলে প্রাথমিক ভাবে নতুন ঠিকানার কাছাকাছি ঠিক কোন রেশন দোকান রয়েছে, সেটা খুঁজে বের করাও বেশ ঝক্কির ব্যাপারা। সেই কাজ এ বার সহজ করে দিচ্ছে ‘মেরা রেশন’ মোবাইল অ্যাপ। শুধু তাই নয়, অতীতে আপনি কতটা রেশন নিয়েছেন, তার উত্তরও মিলবে। কিংবা রেশন দোকান সম্পর্কে কোনো অভিযোগ থাকলে ঘরে বসেই তা জানাতে পারেন এই মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে।

গত মার্চ মাসে ভারত সরকার ‘মেরা রেশন’ মোবাইল অ্যাপ (Mera Ration mobile app) চালু করার পর এই কাজগুলো অনেকটাই সহজ হয়েছে। চালু করার পর থেকে ১২ এপ্রিল পর্যন্ত প্রায় ৫ লক্ষ মানুষ এই অ্যাপটি ডাউনলোড করছেন এবং এর ফিচারগুলির সুবিধা নিচ্ছেন।

Loading videos...

কোথায় পাওয়া যাবে ‘মেরা রেশন’ মোবাইল অ্যাপ

কেন্দ্রীয় সরকার রেশন কার্ডধারীদের জন্য ‘মেরা রেশন’ নামে এই মোবাইল অ্যাপটি চালু করেছে। যার মধ্যে কার্ডধারক নিজের বাড়ির কাছাকাছি রেশন দোকানের অবস্থান জেনে নেওয়ার পাশাপাশি রেশন কার্ড সম্পর্কে সম্পূর্ণ তথ্য পাচ্ছেন।

অ্যান্ড্রয়েড ফোনের জন্য ‘মেরা রেশন’ মোবাইল চালু করা হয়েছে। ব্যবহারকারীরা এটি গুগল প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড করতে পারেন।

কী ভাবে সুবিধা পাওয়া যাবে

যাঁরা বাড়ি বদল করেছেন, তাঁরা খুব সহজেই নিজের নতুন ঠিকানার কাছাকাছি রেশন দোকানের অবস্থান জেনে নিতে পারবেন এই অ্যাপের মাধ্যমে। অ্যাপ ডাউনলোড করে রেজিস্ট্রার করার পর মানচিত্রের সাহায্যে নিকটবর্তী রেশন দোকান খুঁজে পাওয়া যাবে। এ ছাড়া সেখানে কোন কোনো দ্রব্য পাওয়া যাচ্ছে, সেটাও জানা যাবে।

এই অ্যাপটি হিন্দি এবং ইংরাজি-উভয় ভাষাতেই রয়েছে। অ্যাপ থেকে যেমন পরামর্শ পাওয়া যাবে, তেমনই আপনিও প্রতিক্রিয়া জানাতে পারবেন। জাতীয় খাদ্য সুরক্ষা আইন (NFSA)-এর আওতায় রেশন পাচ্ছেন ৬৯ কোটি মানুষ। ‘ওয়ান নেশন ওয়ান ওয়ান রেশন কার্ড’-এর উদ্যোগকে এগিয়ে নিয়ে যেতেই এই মোবাইল অ্যাপ চালু করা হয়েছে।

আরও পড়তে পারেন: হোয়াটসঅ্যাপে আপনার প্রোফাইল এবং আলাপচারিতা গোপন রাখতে এই আশ্চর্যজনক ৫টি কৌশল অনুসরণ করুন

Continue Reading
Advertisement
Advertisement
বিদেশ1 hour ago

২৫ বার এভারেস্ট শীর্ষে, নিজের রেকর্ড ভেঙে ইতিহাস সৃষ্টি করলেন কামি রিটা শেরপা

ক্রিকেট2 hours ago

IPL 2021: বাকি ম্যাচগুলি আয়োজন করতে চেয়ে বিসিসিআইকে আবেদন জানাল শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড

দেশ3 hours ago

Coronavirus Second Wave: এ বার সম্পূর্ণ লকডাউনের পথে হাঁটল তামিলনাড়ুও

রাজ্য3 hours ago

Bengal Corona Update: রাজ্যের ১৫ জেলায় মৃত্যুহার ১ শতাংশের কম

দেশ3 hours ago

Corona Update: দৈনিক সংক্রমণ কিছুটা কমলেও মৃতের সংখ্যায় রেকর্ড, তবুও মৃত্যুহার নিম্নমুখী

দেশ4 hours ago

Delhi Covid Crisis: অক্সিজেনের সংকট শেষ, তিন মাসের মধ্যে সব দিল্লিবাসীর টিকাকরণ হয়ে যাবে, জানালেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল

দেশ4 hours ago

Assam CM Dilema: ফলাফলের ছ’দিন পরেও মুখ্যমন্ত্রীর ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিতে পারল না বিজেপি

দেশ5 hours ago

Coronavirus Second Wave: করোনা মোকাবিলায় এ বার দু’ সপ্তাহের সম্পূর্ণ লকডাউন জারি হল কর্নাটকে

রাজ্য3 days ago

কমিশনের নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে পুনর্গণনার দাবিতে আদালতে যাওয়ার হুঁশিয়ারি শুভেন্দু অধিকারীর

রাজ্য3 days ago

বৃহস্পতিবার থেকে রাজ্যে লোকাল ট্রেন বন্ধ, মেট্রো ও সরকারি বাস অর্ধেক, এক গুচ্ছ ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

sourav ganguly
ক্রিকেট2 days ago

Covid Crisis in IPL: জৈব সুরক্ষা বলয়ে কোনো ফাঁক ছিল বলে মনে করেন না সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়

দেশ2 days ago

Corona Update: দু’তিনটে রাজ্যে সংক্রমণবৃদ্ধির জের, ভারতের দৈনিক সংক্রমণ ভেঙে দিল অতীতের রেকর্ড

রাজ্য3 days ago

Bengal Corona Update: দৈনিক সংক্রমণ ১৮ হাজারের গণ্ডি পেরোলেও কমল সংক্রমণের হার, পর পর ৪ দিন সুস্থতার হারে বৃদ্ধি

রাজ্য2 days ago

Post-Poll Violence: ইন্ডিয়া টুডে-র সাংবাদিকের ছবি পোস্ট করে হিংসায় মৃত হিসেবে বর্ণনা বিজেপির

ক্রিকেট3 days ago

অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন স্পিনার অপহৃত, পরে মুক্ত

রাজ্য2 days ago

Bengal Corona Update: দৈনিক সংক্রমণে স্থিতাবস্থা অব্যাহত, কলকাতায় সক্রিয় রোগীর সংখ্যায় বড়ো পতন

ভিডিও

কেনাকাটা

কেনাকাটা2 months ago

বাজেট কম? তা হলে ৮ হাজার টাকার নীচে এই ৫টি স্মার্টফোন দেখতে পারেন

আট হাজার টাকার মধ্যেই দেখে নিতে পারেন দুর্দান্ত কিছু ফিচারের স্মার্টফোনগুলি।

কেনাকাটা3 months ago

সরস্বতী পুজোর পোশাক, ছোটোদের জন্য কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সরস্বতী পুজোয় প্রায় সব ছোটো ছেলেমেয়েই হলুদ লাল ও অন্যান্য রঙের শাড়ি, পাঞ্জাবিতে সেজে ওঠে। তাই ছোটোদের জন্য...

কেনাকাটা3 months ago

সরস্বতী পুজো স্পেশাল হলুদ শাড়ির নতুন কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই সরস্বতী পুজো। এই দিন বয়স নির্বিশেষে সবাই হলুদ রঙের পোশাকের প্রতি বেশি আকর্ষিত হয়। তাই হলুদ রঙের...

কেনাকাটা3 months ago

বাসন্তী রঙের পোশাক খুঁজছেন?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই আসছে সরস্বতী পুজো। সেই দিন হলুদ বা বাসন্তী রঙের পোশাক পরার একটা চল রয়েছে অনেকের মধ্যেই। ওই...

কেনাকাটা3 months ago

ঘরদোরের মেকওভার করতে চান? এগুলি খুবই উপযুক্ত

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঘরদোর সব একঘেয়ে লাগছে? মেকওভার করুন সাধ্যের মধ্যে। নাগালের মধ্যে থাকা কয়েকটি আইটেম রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার...

কেনাকাটা4 months ago

সিলিকন প্রোডাক্ট রোজের ব্যবহারের জন্য খুবই সুবিধেজনক

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যপ্রয়োজনীয় বিভিন্ন সামগ্রী এখন সিলিকনের। এগুলির ব্যবহার যেমন সুবিধের তেমনই পরিষ্কার করাও সহজ। তেমনই কয়েকটি কাজের সামগ্রীর খোঁজ...

কেনাকাটা4 months ago

আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আজ রইল আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার সময় যে দাম ছিল...

কেনাকাটা4 months ago

রান্নাঘরের এই সামগ্রীগুলি কি আপনার সংগ্রহে আছে?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরে বাসনপত্রের এমন অনেক সুবিধেজনক কালেকশন আছে যেগুলি থাকলে কাজ অনেক সহজ হয়ে যেতে পারে। এমনকি দেখতেও সুন্দর।...

কেনাকাটা4 months ago

৫০% পর্যন্ত ছাড় রয়েছে এই প্যান্ট্রি আইটেমগুলিতে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: দৈনন্দিন জীবনের নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসগুলির মধ্যে বেশ কিছু এখন পাওয়া যাচ্ছে প্রায় ৫০% বা তার বেশি ছাড়ে। তার মধ্যে...

কেনাকাটা4 months ago

ঘরের জন্য কয়েকটি খুবই প্রয়োজনীয় সামগ্রী

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যদিনের প্রয়োজনীয় ও সুবিধাজনক বেশ কয়েকটি সামগ্রীর খোঁজ রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদনটি লেখার সময় যে দাম ছিল তা-ই...

নজরে