আরবিআই-এর নতুন নির্দেশিকা, ঝক্কি বাড়বে ডেবিট, ক্রেডিট কার্ড লেনদেনে!

0

খবর অনলাইন ডেস্ক: ডেবিট বা ক্রেডিট কার্ড নম্বরটি ১৬ ডিজিটের, যা সবার পক্ষে সব সময় মনে রাখা সম্ভব নয়। তার উপর বেশির ভাগ মানুষই একাধিক কার্ড ব্যবহার করেন। ফলে রিজার্ভ ব্য়াঙ্কের (RBI) নতুন একটি নিয়মে কিছুটা হলেও বিপাকে পড়তে হতে পারে কার্ড ব্যবহারকারীদের।

সংশ্লিষ্ট মহলের দাবি, আরবিআই-এর নতুন নিয়ম অনুযায়ী, আপনার কাছে অন্য কোনো সুবিধাজনক বিকল্প নাও থাকতে পারে। তবে হ্যাঁ, সমস্যার হলে একটি বিকল্প হল আপনি যেখানেই যাবেন, কার্ডটি সঙ্গে নিয়ে যেতে হবে।

সংস্থাগুলি কার্ডের তথ্য সংরক্ষণ করতে পারবে না

আরবিআই নতুন নির্দেশিকা জারি করে বলেছে, অনলাইন মার্চেন্ট, ই-কমার্স ওয়েবসাইট এবং পেমেন্ট অ্যাগ্রিগেটরগুলিকে অনলাইন গ্রাহকদের কার্ডের বিশদ সংরক্ষণ করতে দেওয়া হবে না। এই নিয়ম অ্যামাজন, ফ্লিপকার্ট, গুগল পে, পেটিএম, নেটফ্লিক্স ইত্যাদির ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে। অর্থাৎ এই সংস্থাগুলি আপনার কার্ড নম্বর সংরক্ষণ করতে সক্ষম হবে না।

সে ক্ষেত্রে দ্বিতীয় বার ব্যবহার করার সময় শুধুমাত্র সিভিভি নম্বর দিলেই চলবে না। তখন আপনার নাম, কার্ডের নম্বর, বৈধতার সময়সীমা-সহ বিশদ বিবরণ দিতে হবে। আরবিআই বলেছে, নতুন এই নির্দেশিকা এ বছরের জুলাই মাস থেকে কার্যকর হবে।

কেন এমন পদক্ষেপ

দেশ যখন এক দিকে নগদহীন লেনদেনে বাড়তি গুরুত্ব দিতে চাইছে, তখন আরবিআই-এর এই নতুন নির্দেশিকাকে ঘিরে প্রশ্ন তো উঠবেই।

এ ব্যাপারে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে ন্যাসকম। তথ্যপ্রযুক্তি শিল্প সংস্থা ন্যাসকম ইতিমধ্যেই এ ধরনের পদক্ষেপ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। সিএনবিসি-টিভি১৮-এর রিপোর্ট অনুযায়ী, ফ্লিপকার্ট, অ্যামাজন, নেটফ্লিক্স, মাইক্রোসফ্‌ট এবং জোম্যাটোর মতো ২৫টি ইন্টারনেট-নির্ভর সংস্থার একটি দল আরবিআইকে চিঠিও দিয়েছে। তাদের যুক্তি, এই নিয়ম গ্রাহকের অনলাইন প্রদানের অভিজ্ঞতাকে মারাত্মক ভাবে ব্যাহত করবে।

যদিও কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক বলেছে, তৃতীয় পক্ষকে কার্ডের বিবরণ না দেওয়ার উদ্দেশ্য জালিয়াতির ঝুঁকি হ্রাস করা।

আরও পড়তে পারেন: সোশ্যাল, ডিজিটাল মিডিয়া নিয়ন্ত্রণে কড়া পদক্ষেপ কেন্দ্রের

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন