৫০ কোটি হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীর ফোন নম্বর হ্যাক, বিক্রি হচ্ছে অনলাইনে

0

এক চাঞ্চল্যকর তথ্য। একটি রিপোর্টে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে যে প্রায় ৫০ কোটি হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীর ফোন নম্বর হ্যাক করা হয়েছে। যেগুলি বিক্রি করা হচ্ছে অনলাইনে।

সাইবারনিউজ-এর একটি রিপোর্ট অনুযায়ী, ৪৮ কোটি ৭০ লক্ষ হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীর ফোন নম্বর হ্যাক করা হয়েছে এবং একটি হ্যাকিং ফোরামে সেগুলি বিক্রি করা হচ্ছে। এই ব্যক্তিগত তথ্যটি ২০২২ সালের একটি ডাটাবেসে রয়েছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, মিশর, ইতালি এবং ভারত-সহ ৮৪টি দেশের ব্যবহারকারীদের তথ্য তাতে রয়েছে বলে অভিযোগ।

এই কাজের সঙ্গে যুক্ত হ্যাকারদের মতে, সমস্ত নম্বরগুলি “সক্রিয়” হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীদের। রিপোর্ট অনুযায়ী, চুরি হওয়া ডাটাবেসে ৩ কোটি ২০ লক্ষ মার্কিন ব্যবহারকারী এবং ব্রিটেনের ১ কোটি ১৫ লক্ষ হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীর ফোন নম্বর রয়েছে। তবে রিপোর্ট অনুযায়ী, সবচেয়ে বেশি প্রভাবিত হয়েছেন মিশরীয় ব্যবহারকারী। ঝুঁকিতে রয়েছেন প্রায় ৪ কোটি ৫০ লক্ষ হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারী।

হ্যাক হওয়া তথ্যভাণ্ডারে প্রায় ১ কোটি রুশ এবং ১ কোটি ১০ লক্ষ ব্রিটিশের ফোন নম্বর রয়েছে বলে ধারণা করা হয়েছে ওই রিপোর্টে। বিক্রি হওয়া মার্কিন ডেটাসেটের দাম প্রায় ৭ হাজার মার্কিন ডলার (ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৫,৭১,৬৯০ টাকা)। অন্য দিকে, ব্রিটেন এবং জার্মানির ডেটাসেটের দাম যথাক্রমে ২ হাজার ৫০০ মার্কিন ডলার (ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ২,০৪,১৭৫ টাকা) এবং ২ হাজার মার্কিন ডলার (ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ১,৬৩,৩৪০ টাকা)।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, বিক্রেতার দাবি সম্পূর্ণরূপে অনুমানমূলক। প্রায়শই, অনলাইনে পোস্ট করা বিশাল ডেটা সেটগুলি স্ক্র্যাপ করে, হোয়াটসঅ্যাপের পরিষেবার শর্তাবলী লঙ্ঘন করে সেগুলি চুরি করা হয়। যাইহোক, বিক্রেতা দাবি করেছেন যে সমস্ত নম্বর মেটা-মালিকানাধীন প্ল্যাটফর্মের সক্রিয় ব্যবহারকারীদের অন্তর্গত। যদিও এটি নির্দিষ্ট করেনি যে তিনি কী ভাবে ডাটাবেস পেয়েছেন। শুধুমাত্র বলা হয়েছে, ডেটা সংগ্রহ করতে তাঁরা “নিজেদের কৌশল ব্যবহার করেছেন”।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন