হোয়াটসঅ্যাপ (WhatsApp) ব্যবহারকারীদের জন্য আরেকটি সুখবর। চ্যা‌ট মেসেজিং অ্যাপ ব্যবহারকারীদের জন্য লঞ্চ হল কমিউনিটি ফিচার (Communities)।

চলতি বছরের শুরুর দিকে, মেটা (Meta) সিইও মার্ক জুকারবার্গ (Mark Zuckerberg) ঘোষণা করেছিলেন যে হোয়াটসঅ্যাপ ‘কমিউনিটি’ নামে একটি নতুন ফিচার নিয়ে কাজ করছে। যা হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীদের গুরুত্বপূর্ণ গ্রুপগুলির সঙ্গে সংযোগ করতে সাহায্য করবে। ফিচারটি একই আগ্রহের ব্যবহারকারীকে এক ছাতার নীচে আনার লক্ষ্যে তৈরি হয়েছে।

হোয়াটসঅ্যাপ কমিউনিটি

হোয়াটসঅ্যাপ কমিউনিটি নামের এই ফিচার আজ থেকেই ব্যবহারকারীদের জন্য চালু হয়েছে বিশ্ব জুড়ে। গ্রুপ, সাব-গ্রুপ তৈরির পাশাপাশি, ১০২৪ জন ব্যবহারকারী পর্যন্ত ইন-চ্যাট পোল, ৩২ জনের ভিডিও কলিংয়ের ক্ষমতা রয়েছে এই ফিচারে। সংস্থার তরফ থেকে জানানো হয়েছে, ইমোজি রিঅ্যাকশনস, বড় ফাইল শেয়ারিং এবং অ্যাডমিন ডিলিট কন্ট্রোলের মতোই এই ফিচারগুলি যে কোনও হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ এবং কমিউনিটির জন্য অত্যন্ত সহায়ক হতে চলেছে।

হোয়াটসঅ্যাপের তরফে জানানো হয়েছে, হোয়াটসঅ্যাপে কমিউনিটিগুলি তৈরি এবং পরিচালনা করবেন অ্যাডমিনরা। তাঁরা নতুন গ্রুপ গঠন করে বা আগে থেকে বিদ্যমান গ্রুপগুলিকে লিঙ্ক করে কোন গ্রুপ তাদের কমিউনিটির অংশ হবে তা বেছে নিতে পারবেন।

এই ফিচারের সুবিধা

এই ফিচারের সাহায্যে মেটা পাড়া, স্কুল এবং কর্মক্ষেত্রে অভিভাবকদের টার্গেট করবে বলে জানা গিয়েছে। ব্যবহারকারীরা একটি বড়ো গ্রুপে থেকেও একাধিক গ্রুপে সংযোগ রাখতে সক্ষম হবেন। এই ফিচার ব্যবহার করতে ব্যবহারকারীদের অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলে চ্যাটের ওপরে থাকা কমিউনিটি ট্যাবে ক্লিক করতে হবে। সেখান থেকে ব্যবহারকারীরা একটি নতুন গ্রুপ কিংবা আগে যুক্ত থাকা গ্রুপ থেকে নতুন পদক্ষেপটি করতে পারেন।

নতুন এই বৈশিষ্ট্যের মাধ্যমে ব্যবহারকারীরা নিরাপত্তা ও গোপনীয়তা রক্ষা করতে পারবেন। নতুন এই বৈশিষ্ট্যের মাধ্যমে ব্যবহারকারীকে আলাদা গ্রুপ তৈরি করতে হবে না বা বিভিন্ন গ্রুপে ম্যাসেজ করতে হবে না। নতুন বৈশিষ্ট্যেও এন্ড টু এন্ড এনক্রিপশন অব্যাহত থাকবে। যার জেরে ব্যবহারকারীদের ডেটার অ্যাক্সেসও পাওয়া যাবে না।

আরও পড়ুন: টুইটারের এই ফিচার আর ‘ফ্রি’ নয়, এ বার খরচ হবে সাড়ে ৬০০ টাকার বেশি

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন