জন্মাষ্টমীতে বানান ক্ষীর-তাল

0
khirtal
প্রতীকী ছবি
ramnarayandas
রাম নারায়ণ দাস

জন্মাষ্টমী তিথিতে নন্দলাল কৃষ্ণের মুখে দেওয়া যেতে পারে ক্ষীর-তাল। তিনি তাল যেমন পছন্দ করেন তেমনই পছন্দের হল ক্ষীর। ছোটোবেলায় ক্ষীর-মাখন চুরি করে খাওয়ার একাধিক লীলার কথা লোকমুখে প্রচলিত। সেই ক্ষীর যদি তৈরি করা যায় তালের সংমিশ্রণে, তা হলে কোনো কথাই নেই। ভগবানের পুজো তো ভালো হবেই, প্রসাদে তালের ক্ষীর পেয়ে ভক্তরাও দারুণ খুশি হবেন। তাই জন্মাষ্টমী পুজোতে বালগোপালকে ভোগ দিন ক্ষীর-তাল।

উপকরণ –

বানাতে বিশেষ কিছু লাগে না।

১। তাল।

২। খোয়া ক্ষীর।

৩। ২৫০ গ্রাম চিনি গুঁড়ো।

৪। সামান্য কর্পুর।

৫। ছোটো এলাচগুঁড়ো।

৬। অল্প পরিমাণ কাজু, আমন্ড আর পেস্তা কুচি, কিশমিশ।

পদ্ধতি –

প্রথমেই তাল ভালো করে চেঁচে ঘন মাড়ি বের করে নিতে হবে। তবে তাতে জল না দিলেই ভালো হয়। জল দিলে ঘন ভাবটা নষ্ট হয়ে যাবে। তাতে পাকের সময় অনেক বেশি সময় লাগে যাবে। এর পর দুধ জালে বসাতে হবে। দুধ জাল দেওয়ার সময় সমানে নেড়ে যেতে হবে। দুধ যখন মরে খানিকটা কমে আসবে, এই ধরুন চার ভাগের এক ভাগ কমে আসবে, তখন তালের মাড়ি তাতে ঢেলে দিতে হবে। এই সময়ও কিন্তু নাড়িয়ে যেতে হবে সমানেই। এই সময়টিতেই সামান্য পরিমাণ জল দেওয়া যেতে পারে। এর পর যখন একটু কামড়ে ধরা ভাব হবে তখনই চিনি ঢেলে দিতে হবে। এর পর চিনি ভালো করে মিশ্রণের মধ্যে মিশিয়ে নিতে হবে। চিনি মিশে গেলে নামিয়ে নিতে হবে। নামিয়ে তাতে কর্পুরগুঁড়ো, ছোটো এলাচগুঁড়ো দিয়ে ওপর দিয়ে কাজু, আমন্ড এবং পেস্তা কুচি, কিশমিশ ছড়িয়ে দিয়ে ভালো করে চাপা দিয়ে রাখতে হবে। কিছুক্ষণ পর ঠান্ডা হলে তা ভোগ দিতে হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here