নয়াদিল্লি: কোভিড অতিমারির কারণে প্রায় আড়াই বছর বন্ধ ছিল ভুটানের গেট। ভারত থেকে যাওয়া সাধারণ ও আন্তর্জাতিক পর্যটকদের জন্য আবারও তা খুলে দেওয়া হল শুক্রবার সকালে।

ভারতে ভুটানের রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল ভেটসপ নামগেল এ দিন বলেন, সম্পূর্ণ টিকাপ্রাপ্ত ভ্রমণকারীদের এখন স্বাগত জানাচ্ছে ভুটান। পর্যটকদের সেখানে পৌঁছানোর পরে আর আলাদা করে থাকার প্রয়োজন হবে না। অতিমারি চলাকালীন দেশের মানুষের স্বাস্থ্যসুরক্ষার কথা ভেবেই এত দিন ওই গেট বন্ধ রাখার কঠোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিল ভুটান সরকার।

নামগেল আরও বলেন, ভুটানে প্রবেশের জন্য পর্যটকদের দৈনিক ফি দিতে হবে। ভুটান সরকারের পর্যটন পর্ষদ ভারতীয়দের জন্য প্রতিদিন ১,২০০ টাকা ফি নির্ধারণ করেছে। অন্যান্য আন্তর্জাতিক পর্যটকদের জন্য দৈনিক ফি প্রতিদিন ২০০ মার্কিন ডলার। অর্থাৎ, অর্থাৎ ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ১৬ হাজার টাকা।

চিনের সঙ্গে সীমান্ত বিরোধের কোনো প্রভাব পর্যটনে পড়েছে কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, “সীমান্ত ইস্যু পর্যটনের সঙ্গে জড়িত বলে আমার মনে হয় না। কারণ, পর্যটন শিল্প সীমান্ত থেকে দূরে। মূলত ট্রেকিং রুটের জন্যই পর্যটকরা এখানে আসেন। ফলে সমস্যার কোনো কারণ নেই”।

এ দিন গেট খোলার সঙ্গে সঙ্গে জয়ঁগা ভুটান গেটের সামনে অজস্র মানুষের ভিড় লক্ষ‍্য করা যায়। দীর্ঘদিন পর আগের মতোই ভুটানে প্রবেশের জন‍্য প্রচুর মানুষ ভিড় জমান। উপস্থিত ছিলেন ভুটানের প্রধানমন্ত্রী লোটে শেরিং। তিনি জানান, “দীর্ঘ করোনা পরিস্থিতি কাটিয়ে ভুটান গেট খুলতে পেরে আমরা খুশি। আমাদের দেশে ৯৪ শতাংশ মানুষের কোভিড ভ‍্যাকসিন সম্পূর্ণ হয়েছে‌। পর্যটকদের সুবিধার্থে বিভিন্ন রকমের ব‍্যবস্থা গ্ৰহণ করা হয়েছে।”

পর্যট‌ন তো রয়েছেই, এ ছাড়া বিভিন্ন কাজে দু’দেশের মানুষ এই গেট ব্যবহার করেন। স্থানীয় এলাকার আর্থ সামাজিক অবস্থার অনেকটাই নির্ভর করে এই ভুটান গেটের উপর। কিন্তু করোনার কারণে সীমান্ত বন্ধ হয়ে যাওয়ায় সমস্যায় পড়েছিলেন তাঁরা। এলাকা লাগোয়া অর্থনীতিও কার্যত মুখ থুবড়ে পড়েছিল। এখন গেট আবার খুলে যাওয়ায় পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে বলেই আশায় বুক বাঁধছেন তাঁরা।

প্রসঙ্গত, ডিসেম্বর থেকে ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত পর্যটনের ভুটানে অফ সিজন ধরা হয়। একই ভাবে জুন থেকে আগাস্ট অর্থাৎ বর্ষার সময়ও এই সে ভাবে পর্যটকদের ভিড় দেখা যায় না। তবে এই পর্যটন স্থল ভারতীয়দের কাছে অন্যতম পছন্দের। পুজোর মুখে ভুটান গেট খুলে যাওয়ায় পর্যটন মহলেও খুশির হাওয়া।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন