এক পড়শি রাজ্য উত্তরাখণ্ড বৃষ্টিতে জেরবার, আর এক পড়শি কাশ্মীরে তো ঝামেলা লেগেই আছে। এমতবস্থায় উত্তরাখণ্ড আর কাশ্মীরের দিক থেকে মুখ ঘুরিয়ে নিচ্ছেন পর্যটকরা। বর্ষা তো বটেই, পুজোর বাজারও বেজায় খারাপ এই দুই রাজ্যের। আর এদের মাঝখানে পড়ে হিমাচলের অবস্থাও খুব একটা ভালো নয়। না, মাত্রাতিরিক্ত বৃষ্টি বা অন্য ঝামেলা, হিমাচলে কোনওটাই না হলেও পর্যটকরা ভয়ে হিমাচলের দিকে পা বাড়াচ্ছেন না।

তবে হিমাচলে বেড়াতে যেতে এমনিতে কোনও অসুবিধা নেই। হ্যাঁ, এখন বর্ষা চললেও সাহস করে ঘুরে আসতে পারেন হিমাচলে। উত্তরাখণ্ডের থেকে প্রায় ৪০ শতাংশ কম বৃষ্টি হয় হিমাচলে। তাই উত্তরাখণ্ডে বর্ষায় বিপদ হলে যে হিমাচলেও হবে এমনটি ভাবার কোনও কারণ নেই।

আর বর্ষার জন্য,  হোটেল ভাড়ায় বিশেষ ছাড়ের ব্যবস্থা করেছে হিমাচল প্রদেশ পর্যটন উন্নয়ন নিগম। আগামী ১৬ আগস্ট থেকে ১৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এই বিশেষ সুবিধা পাওয়া যাবে। সর্বনিম্ন ২০ শতাংশ থেকে সর্বোচ্চ ৪৫ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় দেওয়া হচ্ছে বিভিন্ন হোটেলে। তবে স্পিতি উপত্যকার কেলং আর কাজার হোটেলে কোনও ছাড়ের ব্যবস্থা নেই। এর কারণ এই বর্ষাই হল কাশ্মীরের লেহ-লাদাখের সাথে হিমাচলের লাহুল-স্পিতি বেড়ানোর সেরা সময়।

আগস্ট, সেপ্টেম্বরে হাওড়া-কালকা মেলে টিকিট পেতেও কোনও অসুবিধা নেই। পুজোর সময়ের টিকিট নিঃশেষ হয়ে গেলেও আগামী এক মাসের টিকিট পাওয়া যাচ্ছে। আর কালকার টিকিট একান্তই না পেলে যে কোনও ট্রেনে দিল্লি চলে যান। দিল্লি থেকে কালকা শতাব্দী এক্সপ্রেসেও কালকা পৌঁছে যেতে পারেন। তা হলে আর দেরি কেন? ব্যাগপত্তর গুছিয়ে বেড়িয়ে পড়ুন দিন দশেকের ছুটিতে। ঘুরে আসুন সিমলা-কুলু-মানালি, বা ডালহাউসি-চাম্বা-খাজিয়ার-ধরমশালা আর যদি আর একটু সময় বার করতে পারেন তা হলে আপনার ভ্রমণসুচিতে জায়গা করে নিতে পারে কল্পা-কেলং-কাজা।   

হোটেল বুকিং সংক্রান্ত তথ্যের জন্য বিশদে জানতে লগ ইন করুন: www.hptdc.nic.in

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here