এসি রেকের পরীক্ষামূলক দৌড় দার্জিলিং-এ, ভাড়া শুনলে চমকে যাবেন

0
4957
dhr sc coaches

দার্জিলিং: প্রস্তুতি একদম শেষ পর্যায়ে। শুধু দিল্লি থেকে ভাড়ার চার্ট চলে এলেই যাত্রা শুরু করবে দার্জিলিং হিমালয়ান রেলের (ডিএইচআর) বাতানুকূল বগি-সহ প্রথম রেক। তবে প্রাথমিক ভাবে ভাড়ার যে একটা আন্দাজ পাওয়া গিয়েছে সেটা শুনলে আপনি পুরোপুরি চমকে যাবেন।

বৃহস্পতিবার পরীক্ষামূলক দৌড় হয়েছে এসি রেলের। নিউ জলপাইগুড়ি থেকে কার্শিয়াং-এর কাছে তিনধারিয়া পর্যন্ত গিয়ে আবার ফিরে এসেছে একটি ট্রেন যেখানে ইঞ্জিন ছাড়াও দু’টি এসি বগি এবং দু’টি নন-এসি বগি ছিল।

এসি বগি চালু করার ব্যাপারে তারা যে একদম তৈরি সে কথা বলেন নিউ জলপাইগুড়ির এডিআরএম পার্থপ্রতিম রায়। তাঁর কথায়, “প্রযুক্তিগত ভাবে এসি রেক চালু করার ব্যাপারে আমরা একদম তৈরি। দিল্লি থেকে শুধু ভাড়ার চার্ট আসার অপেক্ষা। সেটা এলেই যাত্রী সংরক্ষণ ব্যবস্থায় এসির ভাড়া চালু করে দেওয়া হবে।”

ভাড়া কতটা হতে পারে তার একটা আন্দাজ অবশ্য এডিআরএম দিয়েছেন, “এনজেপি থেকে দার্জিলিং পর্যন্ত এসি কোচের ভাড়া ১৬০০ মতো হওয়া উচিত। ফার্স্ট ক্লাসের ভাড়ার সঙ্গে তেলের দামটা যোগ করব আমরা।” এখন টয় ট্রেনে ফার্স্ট ক্লাসের ভাড়া নেওয়া হয় ১,২৯৫ করে। এডিআরএমের আশা, আগামী সাত থেকে দশ দিনের মধ্যেই দার্জিলিং-এর পথে কু ঝিকঝিক করে ছুটে যাবে এসি ট্রেন।

কিন্তু প্রশ্ন উঠতে পারে টয় ট্রেনের এই এসি রেকের ভাড়ার বৈষম্য নিয়ে। কালকা থেকে শিমলা ফার্স্ট ক্লাসে ভাড়া ২৯৫ টাকা এবং মেটুপালায়াম থেকে উটির ভাড়া ২০৫ টাকা। সেখানে ডিএইচআরে ১,২৯৫ টাকার যৌক্তিকতা কথায়? তা হলে কি এটা ধরেই নেওয়া যায় যে শুধুমাত্র বিদেশি পর্যটকদের টানার জন্যই এত ভাড়ার ব্যবস্থা করেছে ডিএইচআর।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here