indo-bangladesh beating the retreat

নিজস্ব প্রতিনিধি, শিলিগুড়ি: ভারত-পাকিস্তান সীমান্তে ওয়াঘার মতোই ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তেও শুরু হয়ে গেল ‘বিটিং দ্য রিট্রিট’। শুক্রবার ফুলবাড়িতে এই প্রথার সূচনা করলেন সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ) ও বর্ডার গার্ডস বাংলাদেশ-এর (বিজিবি) ডিজিরা। আর এই ঐতিহাসিক মূহূর্তের সাক্ষী থাকল দুই দেশের আপামর জনতা।

দুই দেশের মধ্যে বরাবরই সুসম্পর্ক রয়েছে। সেই সম্পর্ক আরও দৃঢ় করতে শুক্রবার থেকে শুরু হল এই ‘রিট্রিট’ অনুষ্ঠান। এ বার থেকে সাধারণ মানুষও এই রিট্রিট দেখতে পাবেন। রিট্রিটটি অনুষ্ঠিত হবে দুই দেশের জিরো পয়েন্টে।

এ দিন দুই দেশের দুই বাহিনীর ডিজি একে অপরকে স্বাগত জানান। তার পর শুরু হয়ে যায় ‘রিট্রিট’। বাংলাদেশে সমন্বয় বৈঠক শেষ করে এ দিন দেশে ফিরে আসেন বিএসএফের ডিজি কৃষণ কুমার শর্মা। ‘রিট্রিট’ শেষে তিনি জানান, “খুব ভালো বৈঠক হয়েছে বাংলাদেশের সঙ্গে। আমরা দুই দেশ মিলে অপরাধ দমনে কাজ করব। এ ব্যাপারটি সীমান্ত এলাকার বাসিন্দাদের শেখানো হয়েছে। তাতে সব থেকে বেশি লাভবান হয়েছি আমরা। কারণ সীমান্তে অপরাধ রুখতে সীমান্ত এলাকার মানুষজন আমাদের সঙ্গে সহযোগিতা করছেন।”

‘রিট্রিট’ প্রসঙ্গে ডিজি বলেন, আগামী দিনে এই অনুষ্ঠান আরও জমকালো করা হবে যাতে সাধারণ মানুষ গোটা ব্যাপারটা উপভোগ করতে পারেন। বিজিবির ডিজি মহম্মদ শাফিনুল ইসলাম বলেন, “এই রিট্রিটের মাধ্যমে দুই দেশের সৌহাদ্যপূর্ণ সম্পর্কের বহিঃপ্রকাশ ঘটল। পর্যটকরা যাতে সীমান্ত পরিদর্শন করতে পারেন তার জন্য দুই দেশ সম্মিলিত ভাবে চেষ্টা করবে।”

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here