রংটং স্টেশন। ছবি: ফেসবুক

শিলিগুড়ি: টয়ট্রেনে এ বার করে নিতে পারে বৈকালিক জঙ্গল সাফারি। তিন ঘণ্টার সফরে শিলিগুড়ি থেকে পাহাড়ে পৌঁছে আবার ফিরতে পারবেন শিলিগুড়ি।

উত্তরপূর্ব সীমান্ত রেলের উদ্যোগে শিলিগুড়ি থেকে রংটং পর্যন্ত, ১৭ কিমি পথে জঙ্গল সাফারি শুরু করল টয়ট্রেন। রবিবার বিকেলে এই যাত্রার সূচনা করেন উত্তরপূর্ব সীমান্ত রেলের ডিআরএম চন্দ্রপ্রকাশ গুপ্তা।

এই ট্রেনে থাকছে দু’টি বগি, ডাইনিং কোচ ও ফার্স্ট ক্লাস। ডাইনিং কোচে ১৩ জন বসে যেতে পারবেন। এই বগির জন্য জনপ্রতি ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে ১২০০ টাকা। ফার্স্ট ক্লাসে রয়েছে গদিযুক্ত চেয়ার। এই কোচে ভাড়া নির্ধারিত করা হয়েছে ১০০০ টাকা। পর্যটকেরা ডাইনিং কোচে জলখাবার পাবেন। মিলবে চা, কফি, স্ন্যাকস। রীতিমতো কাঠের চেয়ারটেবিলে বসে মনভোলানো অনুভূতি নিতে নিতে পৌঁছাবেন রংটং। একই রকম ভ্রমণের সুবিধা পেলেও ফার্স্ট ক্লাসে জলখাবারের ব্যবস্থা নেই।

আরও পড়ুন শীঘ্রই পাহাড়ে আরও টুরিস্ট স্পট, জানালেন পর্যটনমন্ত্রী

দার্জিলিং হিমালয়ার রেলওয়ের তরফ থেকে একটি বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, প্রতিদিন বিকেল ৩টায় ট্রেনের যাত্রা শুরু হবে শিলিগুড়ি জংশন থেকে। ৪টে ২০ মিনিটে পৌঁছে যাবে রংটং। পথে দশ মিনিটের জন্য সুকনায় মিউজিয়াম দেখানোর জন্য দশ মিনিট ট্রেনটি থামবে। ২৫ মিনিট রংটং-এ থাকার পরে বিকেল ৪:৪৫-এ আবার ফেরার যাত্রা শুরু করবে ট্রেনটি।

উত্তরপূর্ব সীমান্ত রেলের আশা, নতুন এই পরিষেবার মধ্যে দিয়েই পর্যটকদের কাছে আরও জনপ্রিয় হয়ে উঠবে টয়ট্রেন।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here