কলকাতা-ঢাকা মৈত্রী এক্সপ্রেসের পর এ বার কি কলকাতা-খুলনা প্যাসেঞ্জার? সব কিছু ঠিকঠাক চললে হয়তো অদূর ভবিষ্যতেই ট্রেন চলবে এই রুটে।

স্বাধীনতার আগে কলকাতা ও খুলনার মধ্যে নিয়মিত ট্রেন চলাচল করত। কিন্তু দেশভাগের পরে তা বন্ধ হয়ে যায়। এর পর ২০০১ সালে পেট্রাপোল-বেনাপোল সীমান্ত দিয়ে ভারত আর বাংলাদেশের মধ্যে প্রথম মালগাড়ি পরিষেবা চালু করা হয়। ২০০৮ সালে কলকাতা-ঢাকা মৈত্রী এক্সপ্রেসের মাধ্যমে প্রথম যাত্রিবাহী ট্রেন পরিষেবা চালু হয়। তবে এই ট্রেনটি চলে গেদে-দর্শনা রুট দিয়ে। এই ট্রেন পরিষেবাটি যথেষ্ট জনপ্রিয় এবং ব্যবসায়িক দিক থেকেও যথেষ্ট লাভজনক। এই সব দিক খতিয়ে দেখেই নতুন ট্রেনটি চালু করার কথা ভাবে হচ্ছে।

এই বিষয়ে পূর্ব রেলের মুখপাত্র রবি মহাপাত্র জানান, “কলকাতা থেকে খুলনা পর্যন্ত একটি প্যাসেঞ্জার ট্রেন চালানোর ব্যাপারে কথাবার্তা চলছে”। তাঁর মতে, ভারত আর বাংলাদেশের মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে এই ব্যাপারে কথা হয়েছে। তিনি আরও বলেন নতুন এই ট্রেনটি চালু হলে সেটি যাবে পেট্রাপোল-বেনাপোল বর্ডার দিয়ে।

মহাপাত্রের কথায়, শুধু নতুন ট্রেনটির ব্যাপারেই নয়, মৈত্রী এক্সপ্রেসের দিনের সংখ্যাও বাড়ানোর ব্যাপারে কথা হয়েছে দুই দেশের মধ্যে। এখন সপ্তাহে শুধু তিন দিন – সোমবার, মঙ্গলবার আর বুধবার চলে মৈত্রী এক্সপ্রেস।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here