leopard

নিজস্ব প্রতিনিধি, শিলিগুড়ি: রবিবার থেকে শিলিগুড়ির বেঙ্গল সাফারি পার্কে চালু হল লেপার্ড সাফারি। এই সাফারি হবে কুড়ি হেক্টর জমিতে। সাফারিতে চারটি চিতাবাঘ দেখা যাবে – পাঁচ বছর বয়সি দু’টি পুরুষ চিতাবাঘ শচীন ও সৌরভ এবং এগারো বছর বয়সি দু’টি স্ত্রী চিতাবাঘ শীতল ও কাজল। এদের আনা হয়েছে দক্ষিণ খয়েরবাড়ি থেকে।  এ ছাড়া তিনটি কুমিরও ছাড়া হয়েছে বেঙ্গল সাফারি পার্কে। এদের আনা হয়েছে কলকাতার আলিপুর চিড়িয়াখানা থেকে।

শনিবার লেপার্ড সাফারি এবং কুমির সাফারির উদ্বোধন করেন রাজ্যের পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব এবং বনমন্ত্রী বিনয়কৃষ্ণ বর্মণ। পর্যটনমন্ত্রী বলেন, ভারতবর্ষে এই প্রথম লেপার্ড সাফারি চালু হল। বনমন্ত্রী বলেন, উত্তরবঙ্গে যত ধরনের প্রাণী আছে, তার সবগুলিই বেঙ্গল সাফারি পার্কে প্রদর্শিত হবে। তিনি জানান, ধরা হয়েছিল ২০১৮-এর ডিসেম্বরের মধ্যে বেঙ্গল সাফারি পার্কের প্রথম পর্যায়ের কাজ শেষ হয়ে যাবে। কিন্তু তার ছ’ মাসেই আগেই কাজ সম্পূর্ণ হল। শুধু তা-ই নয়, প্রথম পর্যায়ের জন্য খরচ ধরা হয়েছিল ৭৮ কোটি টাকা। কিন্তু ৫০ কোটি টাকার মধ্যেই প্রথম পর্যায়ের সব কাজ সম্পন্ন  হয়েছে।

এ দিন লেপার্ড সাফারি করার জন্য বহু মানুষ এসেছিলেন পার্কে। সাফারি করতে পারার আনন্দ তাঁরা চেপে রাখতে পারেননি। কাকলি সাহা, সুবীর কররা খুবই উপভোগ করেছেন এই সাফারি।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here