শিলিগুড়ি: দার্জিলিং বেড়াতে যাওয়ার একটা অন্যতম আকর্ষণ হল টয়ট্রেন। পাহাড়ি পথে ধোঁয়া উড়িয়ে কু ঝিকঝিক করতে করতে যাওয়ার একটা আলাদা মজা রয়েছে। সাম্প্রতিক কালে ট্রেনের ভাড়া অনেক বেড়েছে বটে, কিন্তু তাতেও অনেক পর্যটককে টয়ট্রেনের মজা নেওয়ার থেকে টলানো যায় না।

তবে জুন থেকে বন্ধ রয়েছে দার্জিলিং-এর ঐতিহাসিক এই টয়ট্রেন। গোর্খাল্যান্ড আন্দোলনের সময়ে পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছিল গয়াবাড়ি রেল স্টেশনটি। নষ্ট করা হয়েছিল রেলের সম্পত্তি। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল লাইন। গোর্খাল্যান্ড আন্দোলন এখন অতীত। ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হয়েছে পাহাড়। অক্টোবরের শেষেই ঘুম এবং দার্জিলিং-এর মধ্যে জয়রাইড পরিষেবা শুরু হয়েছে। তবে নিউ জলপাইগুড়ি এবং দার্জিলিং-এর মধ্যে পরিষেবা এখনও শুরু হয়নি।

আরও পড়ুন শীতের ভ্রমণ ৬ / আরও হিমাচল

তবে বছর শেষ হওয়ার আগেই এই পরিষেবা শুরু হওয়ার ইঙ্গিত দিলেন রেলের এক আধিকারিক। রবিবার একটি রক্তদান শিবিরে যোগ দিতে শিলিগুড়ি পৌছোন উত্তরপূর্ব সীমান্ত রেলের কাটিহার ডিভিশনের ডিআরএম চন্দ্রপ্রকাশ গুপ্তা। সেখানে তিনি বলেন, “৩০ ডিসেম্বরের আগেই এনজেপি থেকে দার্জিলিং-এর মধ্যে টয়ট্রেন পরিষেবা শুরু হয়ে যাবে।” আন্দোলনে ক্ষতিগ্রস্ত রেললাইনকেও দ্রুত সারিয়ে তোলা হবে বলেও জানান গুপ্তা।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here