darjeeling toy train
দার্জিলিং স্টেশনে টয়ট্রেন। নিজস্ব চিত্র

দার্জিলিং: সবকিছু ঠিকঠাক চললে আগামী ৮ অক্টোবর, মহালয়ার দিনই নিউ জলপাইগুড়ি থেকে দার্জিলিং-এর মধ্যে টয়ট্রেনের পরিষেবা চালু হয়ে যাবে বলে জানিয়েছে দার্জিলিং হিমালয়ান রেলওয়ে (ডিএইচআর)। এর ফলে পুজোর আগেই পাহাড়ে পর্যটনের আরও এক দিক খুলে যাবে বলে আশাবাদী সংশ্লিষ্ট মহল।

এ বছর ১ আগস্ট, পাগলাঝোরার কাছে ধসের জন্য ক্ষতিগ্রস্ত হজয় টয়ট্রেনের লাইন। লাইনের প্রায় ৬০ মিটার দীর্ঘ অংশ ভেঙে যায়। সেই অংশটি বারবার মেরামতির চেষ্টা হলেও বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে প্রতিকূল আবহাওয়া। ধসও নেমেছে অনবরত। কিন্তু এখন বর্ষা যেহেতু প্রায় শেষের দিকে তাই জোরকদমে লাইন মেরামতির কাজে হাত লাগিয়েছে ডিএইচআর। ইতিমধ্যে ওই অংশ দিয়ে পরীক্ষামূলক দৌড়ও শুরু করেছে টয়ট্রেন।

আরও পড়ুন সোমবার থেকে প্লাস্টিকের ব্যবহার পুরোপুরি বন্ধ করছে পাহাড়ের হোমস্টেগুলি

ডিএইচআরের ডিরেক্টর এনকে নারজারি বলেন, “আপাতত ঠিক করেছি যে ৮ অক্টোবর নাগাদ টয়ট্রেন পরিষেবা শুরু করব। কার্শিয়াং থেকে এনজেপির মধ্যে বিভিন্ন জায়গায় লাইনের ওপরে কড়া নজর রাখা হচ্ছে। পরীক্ষামূলক ট্রেনও চালানো হচ্ছে। যদি মনে হয়, যে পরিষেবা শুরু করার জন্য লাইন এক্কেবারে তৈরি, তা হলে সময়সীমার আগেই শুরু করে দিতে পারি পরিষেবা।”

এই মুহূর্তে শুধুমাত্র দার্জিলিং এবং কার্শিয়াং-এর মধ্যে স্বাভাবিক টয়ট্রেন পরিষেবা রয়েছে। অন্যদিকে দার্জিলিং এবং ঘুমের মধ্যে হয় জয়রাইড। কিন্তু সাধারণ পর্যটকদের কাছে এনজেপি থেকে দার্জিলিং টয়ট্রেনে যাওয়ার মজার কোনো বিকল্পই নেই।

সব মিলিয়ে পুজোর আগেই খুশির হাওয়া দার্জিলিং পাহাড়ে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন