বিশেষ প্রতিনিধি: ভারতের শেয়ার বাজার ফের চমক দেখাল। গত বুধবার পঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্কের আর্থিক তছরুপের ঘটনা প্রকাশ্যে আসার পর যে ভাবে স্টক মার্কেটের সমস্ত সূচক ধপাধপ পড়ে গিয়েছিল, বৃহস্পতিবার তা অনেকটাই কাটিয়ে উঠতে পারল। নিফটির ৫০টি স্টকের মধ্যে ৩০টি উঠেছে উপরের দিকে এবং ১৯টি নীচে নেমেছে। এর কারণ কী?

বাজার বিশেজ্ঞরা বলছেন, এর মূল কারণ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র মুদ্রাস্ফীতির প্রবৃদ্ধি বাড়িয়ে তুলেছে। এ ছাড়া আর বিশ্ববাজারে কর্তৃত্ব বজায় রাখার পথ নেই তাদের কাছে। কারণ তারা বৈদেশিক বাণিজ্য নীতিকে যেন তেন প্রকারে টিকিয়ে রাখত চায়। তবে সুখের কথা, আমেরিকার ওই নীতি গ্রহণের ফলে ভারতের বাজারও যথেষ্ট শক্তিশালী জায়গায় অবস্থান করছে। আমেরিকার স্টক মার্কেটের অবস্থা ঠিক যে ইঙ্গিত দিচ্ছে তাকে অনুসরণ করেই এগোচ্ছে সেনসেক্স-নিফটি। আবার এশিয়ার অন্যতম দেশ জাপানের শেয়ার সূচকও দম নিয়ে উপরের দিকে ধাবমান। তা যাইহোক, বাজার যে ভাবে আবার বাড়ছে, তাতে সাধারণ বিনিয়োগকারীর কী করণীয়?

সপ্তাহের পাঁচ দিনই এই কলামে কোনো না কোনো স্টক কেনার বিশেষ পরামর্শ দেওয়া হয়। আজ না হয় উল্টো কিছু হোক। নীচের তালিকাটি প্রস্তুত করেছে একটি আর্থিক বিশ্লেষক সংস্থা।

share

তালিকাটিতে চোখ বুলিয়ে নিন মনোযোগ সহকারে। দেখুন পরিচিত স্টকগুলির গত এক বছর সময়কালে কী ভাবে প্রায় ৬০ শতাংশ পর্যন্ত পতন হয়েছে। এই এক বছরে যখন শেয়ার সূচক রেকর্ড চুড়া ছুঁয়ে ফেলেছে, তখন কেন এগুলি নীচের দিকে ধাবমান, নজরে রাখুন।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন