বাজারের ‘মধুর’ সময়ে স্বল্প মেয়াদি বিনিয়োগকারীরা কী করবেন?

ওয়েবডেস্ক: বেলাশেষে আচমকা ১১,১৮৫.৪৫ পয়েন্ট ছুঁয়ে এসেও বাজার বন্ধের সময় নিফটি৫০ পড়ে গেল প্রায় ১৮ পয়েন্ট। কী এমন ঘটল এই কয়েকটা মুহূর্তে?

বাজার বিশেষজ্ঞদের মতে, এর নেপথ্য রয়েছে বহুবিধ কারণ। তবে সব থেকে বড়ো কারণ, নিফটি আপাতত শক্তি সঞ্চয়ের দিকেই বেশি করে মনোনিবেশ করতে চাইছে। শেয়ার বাজারের ভাষায় যা কনসলিডেশন। গত ১৯ জানুয়ারি ১১,১৭১.৫২ পয়েন্টের রেকর্ড ভেঙে নতুন আর একটা রেকর্ড গড়েছে গত বৃহস্পতিবার। কিন্তু বাজারের বুলিশ ট্রেন্ড বলছে, এখানে থেমে থাকবে না নিফটি বা সেনসেক্স। দীর্ঘায়িত হলেও সাড়ে বারো হাজারের চুড়োয় পৌঁছানোর লক্ষ্য নিয়েই এগোবে নিফটি।

শুক্রবারের নিফটি ফিফটি

রেজিস্ট্য়ান্স ১১,১৮০ এবং ১১,২৪৫ 

সাপোর্ট ১১,১১০ এবং ১১,০৪৫

বৃহস্পতিবারের নিফটির উত্থান প্রথম রেজিস্ট্যান্সেই আটকে পড়েছে। ফলে ১১,২২০ বা ১১,২৪৫ পয়েন্টের বেড়া না টপকানো অবধি সেই সাড়ে বারো হাজারের দৌড় কোনো মতেই সম্ভব নয়।

আরও পড়ুন: পোস্ট অফিসে মাত্র ২০ টাকাতেই খোলা যায় সেভিংস অ্যাকাউন্ট! চাইলে পাবেন চেকবই, এটিএম সুবিধা

নিফটির অন্তর্গত ৫০টি স্টকের পৃথক বিশ্লেষণ করেও দেখা গিয়েছে, সেগুলির অধিকাংশের আয় স্বাভাবিকের তুলনায় অনেকটাই বেড়েছে গত কয়েক দিনের কেনাবেচায়। ফলে স্বল্পমেয়াদি বিনিয়োগকারীদের কাছে এটা একটা ‘মধুর’ সময় হতে পারে। কেনা দামের থেকে অনেকটাই উপরে স্টক বিক্রি করে নেওয়ার ঝোঁক দেখা দিতে পারে। যা আবার নিফটির বেঁকে বসার কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.