Arunava Gupta
অরুণাভ গুপ্ত

১৩ জুলাই, ১৯৩০। স্থান: উরুগুয়ের মন্টিভিডিও স্টেডিয়াম। বিশ্বকাপ ফু‌‌টবলের প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি ফ্রান্স এবং মেক্সিকো। ওই একই দিনে ছিল আরও একটি ম্যাচ, বেলজিয়ামের বিরুদ্ধে আমেরিকার। প্রথম ম্যাচটিতে ৪-১ গোলে জিতে যায় ফ্রান্স। ফ্রান্সের কাছে চারটি গোল হজম করে কোনো মতে একটা দিতে পেরেছিল উরুগুয়ে। সেই ম্যাচেই গোল করেছিলেন লুই লরেন্ট। যাঁর সেই গোলের রেকর্ড কখনোই ভাঙবে না।

সেই রেকর্ড কেন কারও ভাঙার সাধ্যি নেই? উত্তরটা ওই ম্যাচের বহুদিন পর, ১৯৯৮ সালে ফ্রান্স বিশ্বকাপের সময় দেওয়া একটা সাক্ষাৎকারে লরেন্ট নিজেই স্পষ্ট করেছিলেন। বলেছিলেন, “একখানা্ গোলের এত মাহাত্ম্য আমি কল্পনা করতে পারছি না। বুঝলেন, আমি দেশে ফেরার পর দেখলাম, কোনো একটা খবরের কাগজে ছোট্টো করে একটা লেখা ছাপা হয়েছে। যেখানে আমার নামটাও কোনো রকমে উল্লেখ করা হয়েছে। ব্যস, এইটুকুই। কিন্তু আমার পক্ককেশ বৃদ্ধ মাথার এক কোণে সেই পুরো স্মৃতি পাকাপোক্ত আসন গেড়ে বসে আছে। হুঁ-উ বাবা, কেউ কোনো দিন পারবে না আমার কাছ থেকে ওই রেকর্ডটা ছিনিয়ে দিতে। কারণ আমিই তো বিশ্বকাপ ফুটবলের প্রথম ম্যাচের প্রথম গোলদাতা। সত্যি বলতে কী, আমি নিজেও অনেক পরে বুঝেছি ওই একটা গোলের কত মাহাত্ম্য”।

lorent
লুসিয়েন লরেন্ট জন্ম: ১০ ডিসেম্বর, ১৯০৭, মৃত্যু: ১১ এপ্রিল, ২০০৫

হ্যাঁ, তাঁর হাতেই সে দিন উঠেছিল ওই চিরস্থায়ী কীর্তির সার্টিফিকেট। যা কোনো দিন কারো পক্ষেই ভাঙা সম্ভব নয়।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here