jule rimet trophy
Arunava Gupta
অরুণাভ গুপ্ত

বিশ্বকাপ ফুটবল শুরু হওয়ার হওয়ার প্রাক্কালে এমন এক অপ্রত্যাশিত ঘটনা ঘটে গেল, যে খবর দাবানলের মতো ছড়িয়ে পড়তেই গোটা পৃথিবী স্তম্ভিত। আয়োজক দেশ ইংল্যান্ডের মাথায় পড়ল বাজ। সমস্ত প্রস্তুতি প্রায় সারা, সেখানে যাকে কেন্দ্র করে এত আযোজন সেই জুলে রিমে ট্রফি চুরি, উধাও। এ কী ভোজবাজি!

ঘটনা যা ঘটেছে তা সংক্ষেপে এই রকম-লন্ডনের ওয়েস্ট মিনিস্টার সেন্ট্রাল হলে ১৯৬৬-র ২০ মার্চ দুপুরে বিশ্বকাপের প্রদর্শনী জাঁকজমকের সঙ্গেই চলছে। ট্রফি দেখতে সাধারণ মানুষের ভিড় উপচে পড়ছে। ঘটনাক্রমে ওখানে এক পাশে চার্চ-সম্পৃক্ত কার্যাবলি চলছিল। ধারণা-সেই ফাঁকে ঝোপ বুঝে কোপ মেরে সোনার জুলে রিমে ট্রফি , যার আনুমানিক মূল্য ৩০ হাজার ডলার, নিমেষে গায়েব।

খোঁজ-খোঁজ, তোলপাড় হল। কোথাও নেই। চারদিকে ছ্যা-ছ্যা রব। স্কটল্যান্ড ইয়ার্ডের এই হাল, কেমন দায়িত্বশীল দেশ ইংল্যান্ড?

fifa

ইংল্য়ান্ডের তখন ‘ত্রাহি মধুসূদন’ অবস্থা। ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের চেয়ারম্যানের কাছে একটা ফোন এল। বলা হল-আমার নাম জ্যাকসন। ট্ৰফি যদি ফেরত চান, দেরি না করে চলে আসুন ওমুক জায়গায়। তবে হ্যাঁ, সঙ্গে ১৫ হাজার পাউন্ড নিয়ে আসবেন। ওনলি হাতবদল।

পুলিশ ফোর্স পড়িমরি ছুটল। চারধার ঘিরে ধরে যাঁকে ধরা হল, তাঁর নাম জ্যাকসন নয়, তিনি এডওয়ার্ড বেট্‌শলে। সে একটা পাতি ছিঁচকে চোর। জেরার মুখে সে জানাল, চুরি সে করেনি। কে এক জন তাকে মিডলম্যান হওয়ার প্রস্তাব দেয়। বিনিময়ে তাকে ৫০০ পাউন্ড দেওয়ার চুক্তি হয়। এর পর কী হল? পড়ুন আগামী পর্বে www.khaboronline.com-এ

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here