বিশ্বকাপ ২০২২: শেষ ১৬-য় জাপান, ফের অঘটন ঘটিয়ে হারাল স্পেনকে, আটকে গেল জার্মানি

0
জাপান শিবিরে উল্লাস। ছবি সৌজন্যে Twitter/AFC

জাপান ২ (দোয়ান, তানাকা) স্পেন ১ (মোরাতা)

জার্মানি ৪ (ন্যাবরি, হাভার্তস ২, ফুয়েলক্রুগ)  কোস্তারিকা ২ (তাজেদা, বার্গাস)

কাতার: আবার চমক দিল জাপান। গ্রুপের চূড়ান্ত পর্বের খেলায় ২-১ গোলে তারা হারাল ২০১০-এর বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন স্পেনকে। প্রথম ম্যাচে তারা একই ফলে হারিয়েছিল ২০১৪-এর বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন জার্মানিকে।

৩ ম্যাচ থেকে ৬ পয়েন্ট সংগ্রহ করে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে শেষ ১৬-য় চলে গেল জাপান। আর জাপানের সঙ্গী হল স্পেন। প্রথম ম্যাচে কোস্তারিকাকে ৭ গোল দেওয়ার ফল পেল তারা। গোল-পার্থক্যের হিসাবে তারা পেছনে ফেলে দিল জার্মানিকে। দু’টি দলেরই পয়েন্ট ৪।    

এ বারের বিশ্বকাপে গ্রুপ ই-র খেলা ভরা থাকল নাটকীয়তায়। গ্রুপের প্রথম ম্যাচে হেরে নিজেদের ভবিষ্যৎ বিপন্ন করে ফেলে জার্মানি। দ্বিতীয় ম্যাচে ড্র করে কিছুটা আশার আলো জাগায়। শেষ ১৬-য় পৌঁছোনোর জন্য বৃহস্পতিবার যেটা করার দরকার ছিল সেটাই করল জার্মানি। তারা ৪-২ গোলে হারাল কোস্তারিকাকে। কিন্তু তাদের শেষ ১৬-য় যাওয়া হল না। একই সঙ্গে কোস্তারিকাও বিদায় নিল গ্রুপ পর্বেই।

জাপানের কাছে ২-১ গোলে হেরেও স্পেন এ দিন গোল-পার্থক্যের বিচারে শেষ ১৬-য় চলে গেল। স্পেন যদি এই ম্যাচ ২-২ গোলে ড্র করতে পারত তা হলেই জার্মানি চলে যেত শেষ ১৬-য়। সে ক্ষেত্রে স্পেন তো যেতই, আটকে যেত জাপান।

রাউন্ড অফ ১৬-য় জাপান-ক্রোয়েশিয়া, স্পেন-মরক্কো

আগামী সোমবার ৫ ডিসেম্বর ভারতীয় সময় রাত সাড়ে ৮টায় জাপান মুখোমুখি হবে ক্রোয়েশিয়ার। মঙ্গলবার ৬ ডিসেম্বর ভারতীয় সময় রাত সাড়ে ৮টায় স্পেন খেলবে মরক্কোর বিরুদ্ধে।

প্রথমে গোল করেও হেরে গেল স্পেন

কাতারের খলিফা ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে আয়োজিত স্পেন বনাম জাপান ম্যাচের শুরুতেই গোল করার সুযোগ পায় জাপান। জুনি ইতোর শট স্পেনের দক্ষিণ দিকের পোস্টের বাইরে দিয়ে চলে যায়। কিন্তু ১১ মিনিটে গোল পেয়ে যায় স্পেন। সেজার আজপিলিকুয়েতার উঁচু পাসে দুর্দান্ত হেড করেন আলবারো মোরাতা। বল জাপানের জালে জড়িয়ে যায়।

প্রথমার্ধে পুরোপুরিই আধিপত্য ছিল স্পেনের। মোরাতা কাতার বিশ্বকাপে এই নিয়ে ৩টি গোল করলেন। প্রথমার্ধের খেলার পর জাপান যখন গ্রুপ স্টেজেই বেরিয়ে যাওয়ার মুখে ঠিক সেই সময়েই ঘুরে দাঁড়াল তারা। শেষ ১৬-য় যেতে হলে স্পেনকে হারানো ছাড়া তাদের উপায় ছিল না। আর সেটাই করল তারা।

দ্বিতীয়ার্ধে খেলা শুরু হওয়ার মিনিট তিনেক পরেই তিন মিনিটের ব্যবধানে দু’টি গোল করে ফেলল জাপান। ম্যাচের ৪৮ মিনিটে স্পেনের পেনাল্টি বক্সের ঠিক বাইরে থেকে রিৎসু দোয়ান যে শট নিলেন তা গোলকিপার উনাই সিমনকে পরাস্ত করে গোলে ঢুকে যায়।

৩ মিনিট পরে আবার জাপানের গোল। এ বার গোলদাতা আও তানাকা। বেশ কিছুক্ষণ ধরে ভার (VAR, ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি) পরীক্ষা চলার পরে গোলটি ঠিকঠাক হয়েছে বলে জানানো হয়। উল্লাসে ফেটে পড়ে জাপান। গ্যালারিতে তখন জাপানের সমর্থকদের উল্লাস।

এর পর গোল শোধ করে ম্যাচে সমতা ফেরানোর আপ্রাণ চেষ্টা করে স্পেন। সর্বশক্তি দিয়ে জাপানের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে তারা। জাপানের প্রায় সব খেলোয়াড় রক্ষণভাগ দখল করে থাকে। শেষ পর্যন্ত সেই রক্ষণকে ভাঙতে পারল না স্পেন।     

জিতেও হতাশা। ছবি সৌজন্যে Twitter/Germany                           

কোস্তারিকাকে হারিয়েও লাভ হল না জার্মানির

আল খোরের আল বায়াত স্টেডিয়ামে আয়োজিত ম্যাচে ১০ মিনিটেই গোল করে জার্মানি। ডাভিড রাউমের কাছ থেকে উঁচু পাস পেয়ে তাতেই কোস্তারিকার গোল লক্ষ্য করে শট নেন সার্গে ন্যাবরি। ১-০ গোলে এগিয়ে যায় জার্মানি।

প্রথম ২৫ মিনিটে বলের উপর জার্মানির দখলদারি ছিল ৭১ শতাংশ। ২৮ মিনিটে গোল করার সুযোগ নষ্ট করে জার্মানি। কোস্তারিকার রক্ষণভাগের খেলোয়াড়দের গায়ে লেগে বল রিবাউন্ড করে চলে আসে জার্মানির জামাল মুসিয়ালার কাছে। কিন্তু তার সদ্ব্যবহার করতে পারেননি তিনি। ১০ মিনিট পরে জোশুয়া কিমিচের শট দুর্দান্ত ভাবে সেভ করেন কোস্তারিকার গোলকিপার কেলর নাভাস। এর ৫ মিনিট পরে ন্যাবরির শট কোস্তারিকার বাঁ দিকের পোস্টের বাইরে দিয়ে বেরিয়ে যায়। প্রথমার্ধে পুরো আধিপত্য রেখে ১-০ গোলে এগিয়ে থাকে জার্মানি।  

দ্বিতীয়ার্ধে ম্যাচের ৫৮ মিনিটে কোস্তারিকার ইয়েলতসিন তাজেদা ম্যাচে সমতা ফেরান। ৪ মিনিট পর আবার হতাশা জার্মানি শিবিরে। আন্তোনিও রুডিগারের শট ডান দিকের পোস্টে লেগে ফিরে আসে। ম্যাচের ৭০ মিনিটে কোস্তারিকার আবার গোল। ফ্রি-কিক থেকে জার্মানির বক্সে উঁচু করে বল ফেলেন কোস্তারিকার ক্যাম্পবেল। ওয়াটসন তাতে হেড দিয়ে বল পাঠান জুয়ান পাবলো বার্গাসের কাছে। বার্গাস তার সদ্ব্যবহার করেন। কোস্তারিকা ২-১ গোলে এগিয়ে যায়।

এর পরই ঝাঁপিয়ে পড়ে জার্মানি। ম্যাচের শেষ ২৫ মিনিটে তারা আক্রমণের ঝড় তলে। এবং এই সময়ের মধ্যে তারা তিন তিনটি গোল করে ফেলে। তার মধ্যে জোড়া গোল কাই হাভার্তসের, ম্যাচের ৭৩ ও ৮৫ মিনিটে। নির্ধারিত সময়ের ১ মিনিট আগে গোল করেন নিকলাস ফুয়েলক্রুগ। জার্মানি জিতে যায় ৪-২ গোলে। কিন্তু এই জয় জার্মানিকে শেষ ১৬-য় তুলতে পারল না।

আরও পড়ুন

বিশ্বকাপ ২০২২: ৩৬ বছর পর শেষ ১৬-য় মরক্কো, জায়গা করে নিল গত বারের রানার্স ক্রোয়েশিয়াও

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন